ময়মনসিংহ বোর্ডে এবার এইচএসসি পরীক্ষার্থী ৭১ হাজার
jugantor
ময়মনসিংহ বোর্ডে এবার এইচএসসি পরীক্ষার্থী ৭১ হাজার

  ময়মনসিংহ ব্যুরো  

০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:৪৯:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এইচএসসি পরীক্ষায় ২৮১টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ৭০ হাজার ৯৪১ জন ছাত্রছাত্রী অংশ নিচ্ছে। ২ ডিসেম্বর থেকে পরীক্ষা শুরু হবে, শেষ হবে ৩০ ডিসেম্বর।

এ বোর্ডে সবচেয়ে বেশি পরীক্ষার্থী ময়মনসিংহে আর সবচেয়ে কম শেরপুর জেলায়। প্রতিটি বিষয়ের এমসিকিউ ও সৃজনশীল পরীক্ষার সময় ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট।

ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ডের তথ্যে জানা যায়, ময়মনসিংহ জেলার ১৩৪টি প্রতিষ্ঠানের ৩৫ হাজার ৫৯৫ জন পরীক্ষার্থী ৩৮টি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নেবে। এদের মধ্যে ১৭ হাজার ৯৯৭ জন ছাত্র এবং ১৭ হাজার ৫৯৮ জন ছাত্রী।

নেত্রকোনা জেলার ৪৩টি প্রতিষ্ঠানের ১২ হাজার ৪৩৭ জন পরীক্ষার্থী ২০টি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নেবে। এদের মধ্যে পাঁচ হাজার ৬৮৪ জন ছাত্র এবং ছয় হাজার ৭৫৩ জন ছাত্রী।

জামালপুর জেলার ৭৫টি প্রতিষ্ঠানের ১৪ হাজার ৩৩০ জন পরীক্ষার্থী ২২টি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নেবে। এদের মধ্যে ছয় হাজার ৮১৪ জন ছাত্র এবং সাত হাজার ৫১৬ জন ছাত্রী।

শেরপুর জেলার ২৯টি প্রতিষ্ঠানের আট হাজার ৫৭৯ জন পরীক্ষার্থী সাতটি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নেবে। এদের মধ্যে চার হাজার ১৩৫ জন ছাত্র এবং চার হাজার ৪৪৪ জন ছাত্রী।

ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. গাজী হাসান কামাল জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র পাঠানো হয়েছে। বোর্ডের একাধিক ভিজিলেন্স টিম গঠন করা হয়েছে। পরীক্ষা চলাকালীন বোর্ডে কন্ট্রোল রুম চালু থাকবে, যে কোনো জরুরি পরিস্থিতি মোকাবেলায় ত্বরিত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ময়মনসিংহ বোর্ডে এবার এইচএসসি পরীক্ষার্থী ৭১ হাজার

 ময়মনসিংহ ব্যুরো 
০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৪৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এইচএসসি পরীক্ষায় ২৮১টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ৭০ হাজার ৯৪১ জন ছাত্রছাত্রী অংশ নিচ্ছে। ২ ডিসেম্বর থেকে পরীক্ষা শুরু হবে, শেষ হবে ৩০ ডিসেম্বর।

এ বোর্ডে সবচেয়ে বেশি পরীক্ষার্থী ময়মনসিংহে আর সবচেয়ে কম শেরপুর জেলায়। প্রতিটি বিষয়ের এমসিকিউ ও সৃজনশীল পরীক্ষার সময় ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট।

ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ডের তথ্যে জানা যায়, ময়মনসিংহ জেলার ১৩৪টি প্রতিষ্ঠানের ৩৫ হাজার ৫৯৫ জন পরীক্ষার্থী ৩৮টি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নেবে। এদের মধ্যে ১৭ হাজার ৯৯৭ জন ছাত্র এবং ১৭ হাজার ৫৯৮ জন ছাত্রী।

নেত্রকোনা জেলার ৪৩টি প্রতিষ্ঠানের ১২ হাজার ৪৩৭ জন পরীক্ষার্থী ২০টি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নেবে। এদের মধ্যে পাঁচ হাজার ৬৮৪ জন ছাত্র এবং ছয় হাজার ৭৫৩ জন ছাত্রী।

জামালপুর জেলার ৭৫টি প্রতিষ্ঠানের ১৪ হাজার ৩৩০ জন পরীক্ষার্থী ২২টি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নেবে। এদের মধ্যে ছয় হাজার ৮১৪ জন ছাত্র এবং সাত হাজার ৫১৬ জন ছাত্রী।
 
শেরপুর জেলার ২৯টি প্রতিষ্ঠানের আট হাজার ৫৭৯ জন পরীক্ষার্থী সাতটি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নেবে। এদের মধ্যে চার হাজার ১৩৫ জন ছাত্র এবং চার হাজার ৪৪৪ জন ছাত্রী।

ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. গাজী হাসান কামাল জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র পাঠানো হয়েছে। বোর্ডের একাধিক ভিজিলেন্স টিম গঠন করা হয়েছে। পরীক্ষা চলাকালীন বোর্ডে কন্ট্রোল রুম চালু থাকবে, যে কোনো জরুরি পরিস্থিতি মোকাবেলায় ত্বরিত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন