জন্মনিবন্ধন ঠিক করার কথা বলে ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা, কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে মামলা
jugantor
জন্মনিবন্ধন ঠিক করার কথা বলে ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা, কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে মামলা

  ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:২৬:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

জন্মনিবন্ধন ঠিক করার কথা বলে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে ময়মনসিংহের ফুলপুর পৌরসভার কাউন্সিলর এহসানুল হকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বুধবার রাতে ফুলপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

জানা যায়, অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী (১৫) জন্মনিবন্ধন ঠিক করতে তার মামীকে নিয়ে গত ২১ নভেম্বর সকালে ফুলপুর পৌরসভায় আসেন। পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এহসানুল হক (৪০) ওই ছাত্রীকে নিবন্ধন কাজ করার জন্য প্রতারণা করে মোটরসাইকেলে উঠিয়ে গোদারিয়া গ্রামের সহিদের বাড়িতে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে।

এ সময় ওই ছাত্রীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে কাউন্সিলর এহসানুল হক মোটরসাইকেল যোগে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী বাদী হয়ে কাউন্সিলর এহসানুল হকের বিরুদ্ধে বুধবার রাতে ফুলপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

ফুলপুর পৌরসভার মেয়র শশধর সেন জানান, বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছি।

ফুলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ আল মামুন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আসামি গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

জন্মনিবন্ধন ঠিক করার কথা বলে ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা, কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে মামলা

 ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:২৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জন্মনিবন্ধন ঠিক করার কথা বলে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে ময়মনসিংহের ফুলপুর পৌরসভার কাউন্সিলর এহসানুল হকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বুধবার রাতে ফুলপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

জানা যায়, অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী (১৫) জন্মনিবন্ধন ঠিক করতে তার মামীকে নিয়ে গত ২১ নভেম্বর সকালে ফুলপুর পৌরসভায় আসেন। পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এহসানুল হক (৪০) ওই ছাত্রীকে নিবন্ধন কাজ করার জন্য প্রতারণা করে মোটরসাইকেলে উঠিয়ে গোদারিয়া গ্রামের সহিদের বাড়িতে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে।

এ সময় ওই ছাত্রীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে কাউন্সিলর এহসানুল হক মোটরসাইকেল যোগে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী বাদী হয়ে কাউন্সিলর এহসানুল হকের বিরুদ্ধে বুধবার রাতে ফুলপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

ফুলপুর পৌরসভার মেয়র শশধর সেন জানান, বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছি।

ফুলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ আল মামুন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আসামি গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন