পানকৌড়ি আনতে গিয়ে পানিতে ডুবে স্কুলছাত্রের মৃত্যু
jugantor
পানকৌড়ি আনতে গিয়ে পানিতে ডুবে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

  সাতকানিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

০২ ডিসেম্বর ২০২১, ২২:৪৬:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় মাছের প্রজেক্টের মাঝখান থেকে শিকার করা পানকৌড়ি আনতে গিয়ে পানিতে ডুবে মো. আকিব নামে ১৪ বছরের এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে সাতকানিয়া-বান্দরবানের সীমান্তবর্তী এলাকা ছদাহা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড মরুংঘোনায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আকিব ওই এলাকার কৃষক আবুল কালামের ছেলে। সে বান্দরবানের ভাগ্যকুল কদুখোলা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত ছিল।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে নিহত আকিব গরু নিয়ে মরুঘোনা পাহাড়ে যায়। যাওয়ার পথে স্থানীয় আবু বক্কর সওদাগরের মাছের প্রজেক্টে গুলতি মেরে একটি পানকৌড়ি শিকার করে। পানকৌড়িটি আহত হয়ে প্রজেক্টের মাঝখানে পানিতে পড়ে যায়। পরনের শার্ট আর জুতা খুলে সাঁতার কেটে পানকৌড়িটি আনতে গিয়ে প্রজেক্টের মাঝখানে পানিতে ডুবে যেতে থাকে সে।

তখন তার সঙ্গে থাকা আরও দুই যুবকের চিৎকার চেঁচামেচি ও কান্নাকাটিতে আশপাশের এলাকার মানুষ ছুটে আসেন। পরে স্থানীয় মেম্বারের মাধ্যমে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশকে খবর দেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। কিন্তু এরই মধ্যে আকিব ডুবে যায়। খবর পেয়ে পুলিশের সহযোগিতায় ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ডুবে যাওয়া আকিবের মরদেহ উদ্ধার করে।

সাতকানিয়া থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, নিহত ওই কিশোর সাঁতার জানলেও প্রজেক্টের মাঝখানে পানি বেশি হওয়ায় ডুবে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল তার মরদেহ উদ্ধার করে। স্বজনদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশটি হস্তান্তর করা হয়েছে।

পানকৌড়ি আনতে গিয়ে পানিতে ডুবে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

 সাতকানিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  
০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৪৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় মাছের প্রজেক্টের মাঝখান থেকে শিকার করা পানকৌড়ি আনতে গিয়ে পানিতে ডুবে মো. আকিব নামে ১৪ বছরের এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার সকালে সাতকানিয়া-বান্দরবানের সীমান্তবর্তী এলাকা ছদাহা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড মরুংঘোনায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আকিব ওই এলাকার কৃষক আবুল কালামের ছেলে। সে বান্দরবানের ভাগ্যকুল কদুখোলা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত ছিল।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে নিহত আকিব গরু নিয়ে মরুঘোনা পাহাড়ে যায়। যাওয়ার পথে স্থানীয় আবু বক্কর সওদাগরের মাছের প্রজেক্টে গুলতি মেরে একটি পানকৌড়ি শিকার করে। পানকৌড়িটি আহত হয়ে প্রজেক্টের মাঝখানে পানিতে পড়ে যায়। পরনের শার্ট আর জুতা খুলে সাঁতার কেটে পানকৌড়িটি আনতে গিয়ে প্রজেক্টের মাঝখানে পানিতে ডুবে যেতে থাকে সে। 

তখন তার সঙ্গে থাকা আরও দুই যুবকের চিৎকার চেঁচামেচি ও কান্নাকাটিতে আশপাশের এলাকার মানুষ ছুটে আসেন। পরে স্থানীয় মেম্বারের মাধ্যমে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশকে খবর দেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। কিন্তু এরই মধ্যে আকিব ডুবে যায়। খবর পেয়ে পুলিশের সহযোগিতায় ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ডুবে যাওয়া আকিবের মরদেহ উদ্ধার করে।

সাতকানিয়া থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, নিহত ওই কিশোর সাঁতার জানলেও প্রজেক্টের মাঝখানে পানি বেশি হওয়ায় ডুবে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল তার মরদেহ উদ্ধার করে। স্বজনদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশটি হস্তান্তর করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন