ধর্ষণ চেষ্টাকালে শিলের আঘাতে যুবকের মৃত্যু
jugantor
ধর্ষণ চেষ্টাকালে শিলের আঘাতে যুবকের মৃত্যু

  কিশোরগঞ্জ ব্যুরো   

০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯:৪১:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জে ধর্ষণ চেষ্টাকালে গৃহবধূর শিলের আঘাতে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাতে কিশোরগঞ্জ শহরের নীলগঞ্জ মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানায়, শুক্রবার রাত ১১টায় নীলগঞ্জ মোড় এলাকার গৃহবধূ তাসলিমার ভাড়াবাসায় একই এলাকার আমিনুল ইসলাম প্রবেশ করে ধর্ষণের চেষ্টা করে। তখন তাসলিমা তার হাতের কাছে থাকা পাথরের শিল দিয়ে আমিনুলের মাথায় আঘাত করেন। এতে আমিনুল মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এরপর গৃহবধূ তাসলিমা ভয় পেয়ে থানায় গিয়ে পুলিশকে ঘটনা জানান।

সংবাদ পেয়ে কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ইন্সপেক্টর অপারেশন মোখলেছুর রহমান এবং পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত কাজী মাহফুজ হাসানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ গিয়ে ঘরের তালা ভেঙে গুরুতর আহত অবস্থায় আমিনুলকে উদ্ধার করেন। চিকিৎসার জন্য দ্রুত তাকে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে পাঠানো হয়। সেখানে অবস্থা সংকটাপন্ন হলে চিকিৎসকরা তাকে রাতেই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

চিকিৎসকরা ময়মনসিংহ মেডিকেল থেকে আমিনুলকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে ভালুকা এলাকায় অ্যাম্বুলেন্সেই ভোর ৪টার দিকে আমিনুল মারা যান।

শনিবার সকালে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ঘটনার বিষয়ে কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ইন্সপেক্টর অপারেশন মো. মোখলেছুর রহমান বলেন, গৃহবধূ তাসলিমা থানায় আছেন। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

ধর্ষণ চেষ্টাকালে শিলের আঘাতে যুবকের মৃত্যু

 কিশোরগঞ্জ ব্যুরো  
০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জে ধর্ষণ চেষ্টাকালে গৃহবধূর শিলের আঘাতে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাতে কিশোরগঞ্জ শহরের নীলগঞ্জ মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

সূত্র জানায়, শুক্রবার রাত ১১টায় নীলগঞ্জ মোড় এলাকার গৃহবধূ তাসলিমার ভাড়াবাসায় একই এলাকার আমিনুল ইসলাম প্রবেশ করে ধর্ষণের চেষ্টা করে। তখন তাসলিমা তার হাতের কাছে থাকা পাথরের শিল দিয়ে আমিনুলের মাথায় আঘাত করেন। এতে আমিনুল মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এরপর গৃহবধূ তাসলিমা ভয় পেয়ে থানায় গিয়ে পুলিশকে ঘটনা জানান। 
 
সংবাদ পেয়ে কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ইন্সপেক্টর অপারেশন মোখলেছুর রহমান এবং পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত কাজী মাহফুজ হাসানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ গিয়ে ঘরের তালা ভেঙে গুরুতর আহত অবস্থায় আমিনুলকে উদ্ধার করেন। চিকিৎসার জন্য দ্রুত তাকে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে পাঠানো হয়। সেখানে অবস্থা সংকটাপন্ন হলে চিকিৎসকরা তাকে রাতেই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

চিকিৎসকরা ময়মনসিংহ মেডিকেল থেকে আমিনুলকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে ভালুকা এলাকায় অ্যাম্বুলেন্সেই ভোর ৪টার দিকে আমিনুল মারা যান।

শনিবার সকালে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ঘটনার বিষয়ে কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ইন্সপেক্টর অপারেশন মো. মোখলেছুর রহমান বলেন, গৃহবধূ তাসলিমা থানায় আছেন। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন