পার্কে বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরণ, উড়ে গেল যুবকের দুহাত
jugantor
পার্কে বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরণ, উড়ে গেল যুবকের দুহাত

  বরিশাল ব্যুরো ও গৌরনদী প্রতিনিধি  

০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ১৩:৩১:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশাল

বরিশালে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের পার্কে বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরণে এক যুবকের দুহাত উড়ে গেছে। এ সময় আরও দুজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

শনিবার রাতে গৌরনদী থানার এসআই আবুল কালাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, এ ঘটনায় বিস্ফোরক আইনে মামলা করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাতে গৌরনদী উপজেলার কটকস্থলে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান ফরহাদের মালিকানাধীন ফারিয়া গার্ডেন পার্কে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আহতদের আটকে বিভিন্ন স্থানে অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, দক্ষিণ মাদ্রার ফারিয়া গার্ডেন পার্কের একটি টিনের ঘরে শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে কয়েকজন বোমা তৈরি করছিল। এ সময় অসাবধানতায় বিকট শব্দে বোমা বিস্ফোরিত হয়ে যায়। এতে বোমা কারিগর হারুনের দুই হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় এবং মুখমণ্ডল ঝলসে যায়। ঘটনার পর পরই তারা বের হয়ে যায় পার্ক থেকে। তবে বিষয়টি ধামাচাপা দিতে বোমা তৈরির সরঞ্জাম সরিয়ে ফেলেন কারিগররা।

আহত হারুনের বোন নাছিমা বেগম জানান, বৃহস্পতিবার বিকালে হারুন ঢাকা যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন। তবে শুক্রবার রাতে তাকে আহতাবস্থায় দেখেছি। হাত উড়ে গেছে। কোথায় চিকিৎসা চলছে জানি না।

এদিকে আহতরা বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শুনে হাসপাতালে যাওয়া হলেও আহত কারও ভর্তি বা চিকিৎসাসংশ্লিষ্ট বিষয় পাওয়া যায়নি।

গৌরনদী থানার এসআই আবুল কালাম বলেন, ঘটনাটি বোমা বিস্ফোরণের ছিল। কী কারণে বোমা তৈরি করা হচ্ছিল তার অনুসন্ধান চলছে। আহতরা কোথায় চিকিৎসা নিচ্ছেন তা শনাক্তের চেষ্টা চলছে। আশা করি শিগগিরই মূল রহস্য উদ্ঘাটন করা যাবে।

এ ছাড়া ঘটনার পর পরই পার্কের নিরাপত্তাকর্মী আব্দুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

গৌরনদী থানার ওসি আফজাল হোসেন বলেন, এ ঘটনায় চারজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ৪-৫ জনের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক আইনে মামলা হয়েছে। স্থানীয় একটি পার্কের নিরাপত্তাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বোমার কারিগরদের এখনও সন্ধান পাওয়া যায়নি। অভিযান চলছে।

উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান ফরহাদ মুন্সী বলেন, আমি ছেলের জন্মদিন পালনে ঢাকায় অবস্থান করছি। বিষয়টি শুনেছি কিন্তু নিশ্চিত কিছু বলতে পারব না। তবে বিস্ফোরণের ঘটনা আমার পার্কে ঘটেনি, পার্কের বাইরে একটি পরিত্যক্ত ঘরে ঘটেছে। সেখানে দেয়াল তুলতে পারিনি।

আমি জেনেছি, কিছু লোক নিরাপত্তাকর্মীকে ভয়ভীতি দেখিয়ে মাঝ রাতে পার্কে ঢুকেছিল।

পার্কে বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরণ, উড়ে গেল যুবকের দুহাত

 বরিশাল ব্যুরো ও গৌরনদী প্রতিনিধি 
০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বরিশাল
ফাইল ছবি

বরিশালে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের পার্কে বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরণে এক যুবকের দুহাত উড়ে গেছে। এ সময় আরও দুজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

শনিবার রাতে গৌরনদী থানার এসআই আবুল কালাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, এ ঘটনায় বিস্ফোরক আইনে মামলা করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাতে গৌরনদী উপজেলার কটকস্থলে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান ফরহাদের মালিকানাধীন ফারিয়া গার্ডেন পার্কে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আহতদের আটকে বিভিন্ন স্থানে অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, দক্ষিণ মাদ্রার ফারিয়া গার্ডেন পার্কের একটি টিনের ঘরে শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে কয়েকজন বোমা তৈরি করছিল। এ সময় অসাবধানতায় বিকট শব্দে বোমা বিস্ফোরিত হয়ে যায়। এতে বোমা কারিগর হারুনের দুই হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় এবং মুখমণ্ডল ঝলসে যায়। ঘটনার পর পরই তারা বের হয়ে যায় পার্ক থেকে। তবে বিষয়টি ধামাচাপা দিতে বোমা তৈরির সরঞ্জাম সরিয়ে ফেলেন কারিগররা।

আহত হারুনের বোন নাছিমা বেগম জানান, বৃহস্পতিবার বিকালে হারুন ঢাকা যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন। তবে শুক্রবার রাতে তাকে আহতাবস্থায় দেখেছি। হাত উড়ে গেছে। কোথায় চিকিৎসা চলছে জানি না।

এদিকে আহতরা বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শুনে হাসপাতালে যাওয়া হলেও আহত কারও ভর্তি বা চিকিৎসাসংশ্লিষ্ট বিষয় পাওয়া যায়নি।

গৌরনদী থানার এসআই আবুল কালাম বলেন, ঘটনাটি বোমা বিস্ফোরণের ছিল। কী কারণে বোমা তৈরি করা হচ্ছিল তার অনুসন্ধান চলছে। আহতরা কোথায় চিকিৎসা নিচ্ছেন তা শনাক্তের চেষ্টা চলছে। আশা করি শিগগিরই মূল রহস্য উদ্ঘাটন করা যাবে।

এ ছাড়া ঘটনার পর পরই পার্কের নিরাপত্তাকর্মী আব্দুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

গৌরনদী থানার ওসি আফজাল হোসেন বলেন, এ ঘটনায় চারজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ৪-৫ জনের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক আইনে মামলা হয়েছে। স্থানীয় একটি পার্কের নিরাপত্তাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বোমার কারিগরদের এখনও সন্ধান পাওয়া যায়নি। অভিযান চলছে।

উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান ফরহাদ মুন্সী বলেন, আমি ছেলের জন্মদিন পালনে ঢাকায় অবস্থান করছি। বিষয়টি শুনেছি কিন্তু নিশ্চিত কিছু বলতে পারব না। তবে বিস্ফোরণের ঘটনা আমার পার্কে ঘটেনি, পার্কের বাইরে একটি পরিত্যক্ত ঘরে ঘটেছে। সেখানে দেয়াল তুলতে পারিনি।

আমি জেনেছি, কিছু লোক নিরাপত্তাকর্মীকে ভয়ভীতি দেখিয়ে মাঝ রাতে পার্কে ঢুকেছিল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন