ভারতের অত্যাধুনিক অ্যাম্বুলেন্স উপহার পেল কুষ্টিয়া পৌরসভা
jugantor
ভারতের অত্যাধুনিক অ্যাম্বুলেন্স উপহার পেল কুষ্টিয়া পৌরসভা

  কুষ্টিয়া প্রতিনিধি  

০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২০:৩৩:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারত সরকারের উপহার হিসেবে দেড় কোটি টাকা মূল্যের অত্যাধুনিক অ্যাম্বুলেন্স পেল কুষ্টিয়া পৌরসভা। সোমবার বেলা ১১টায় কুষ্টিয়া পৌর অডিটোরিয়ামে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মেয়র আনোয়ার আলীর হাতে চাবি তুলে দেন ভারত সরকারের পক্ষে ভারতের সহকারী হাইকমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটী।

এ সময় কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আরএম সেলিম শাহনেওয়াজ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান, বিশিষ্ট সমাজ সেবক অজয় সুরেকা, কুষ্টিয়া পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলামসহ পৌর পরিষদের সব কর্মকর্তা কর্মচারী ও কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

লাইফ সাপোর্ট সম্বলিত এই অ্যাম্বুলেন্সে রয়েছে জটিল জীবন রক্ষাকারী প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের সমন্বয়ে অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধা। রোগীদের মানসম্পন্ন জরুরি সেবা এবং ট্রমা লাইফ সাপোর্ট ও প্রাথমিক চিকিৎসায় ব্যবহার করা যাবে অ্যাম্বুলেন্সটি।

সহকারী হাইকমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটী বলেন, ভারত বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু। সবসময় বাংলাদেশের পাশে আছে ভারত। কুষ্টিয়া পৌরসভার মেয়র সাহেব সব সময় খোঁজ নিতেন এই অ্যাম্বুলেন্সের জন্য। আমি কথা দিয়েছিলাম খুলনা বিভাগের ভেতর কুষ্টিয়া পৌরসভা সবার আগে অ্যাম্বুলেন্স পাবে। আজ আমি কথা রেখেছি। সর্ব প্রথম অ্যাম্বুলেন্সের চাবি মেয়র সাহেবের হাতে তুলে দিয়েছি।

কুষ্টিয়া পৌর মেয়র আনোয়ার আলী বলেন, আমি সব সময় সাধারণ মানুষের পাশে থেকেছি। পৌরবাসীররা যেন ভাল থাকে সেই চেষ্টা করেছি। লাইফ সাপোর্ট সম্বলিত এই অ্যাম্বুলেন্সে জীবন রক্ষাকারী প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের সমন্বয়ে অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধা রয়েছে। ভারত সরকারের দেয়া এই অ্যাম্বুলেন্সটি পৌরবাসীর জন্য সব সময় উন্মুক্ত থাকবে।

ভারতের অত্যাধুনিক অ্যাম্বুলেন্স উপহার পেল কুষ্টিয়া পৌরসভা

 কুষ্টিয়া প্রতিনিধি 
০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারত সরকারের উপহার হিসেবে দেড় কোটি টাকা মূল্যের অত্যাধুনিক অ্যাম্বুলেন্স পেল কুষ্টিয়া পৌরসভা। সোমবার বেলা ১১টায় কুষ্টিয়া পৌর অডিটোরিয়ামে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মেয়র আনোয়ার আলীর হাতে চাবি তুলে দেন ভারত সরকারের পক্ষে ভারতের সহকারী হাইকমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটী।

এ সময় কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আরএম সেলিম শাহনেওয়াজ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান, বিশিষ্ট সমাজ সেবক অজয় সুরেকা, কুষ্টিয়া পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলামসহ পৌর পরিষদের সব কর্মকর্তা কর্মচারী ও কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

লাইফ সাপোর্ট সম্বলিত এই অ্যাম্বুলেন্সে রয়েছে জটিল জীবন রক্ষাকারী প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের সমন্বয়ে অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধা। রোগীদের মানসম্পন্ন জরুরি সেবা এবং ট্রমা লাইফ সাপোর্ট ও প্রাথমিক চিকিৎসায় ব্যবহার করা যাবে অ্যাম্বুলেন্সটি।

সহকারী হাইকমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটী বলেন, ভারত বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু। সবসময় বাংলাদেশের পাশে আছে ভারত। কুষ্টিয়া পৌরসভার মেয়র সাহেব সব সময় খোঁজ নিতেন এই অ্যাম্বুলেন্সের জন্য। আমি কথা দিয়েছিলাম খুলনা বিভাগের ভেতর কুষ্টিয়া পৌরসভা সবার আগে অ্যাম্বুলেন্স পাবে। আজ আমি কথা রেখেছি। সর্ব প্রথম অ্যাম্বুলেন্সের চাবি মেয়র সাহেবের হাতে তুলে দিয়েছি।

কুষ্টিয়া পৌর মেয়র আনোয়ার আলী বলেন, আমি সব সময় সাধারণ মানুষের পাশে থেকেছি। পৌরবাসীররা যেন ভাল থাকে সেই চেষ্টা করেছি। লাইফ সাপোর্ট সম্বলিত এই অ্যাম্বুলেন্সে জীবন রক্ষাকারী প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের সমন্বয়ে অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধা রয়েছে। ভারত সরকারের দেয়া এই অ্যাম্বুলেন্সটি পৌরবাসীর জন্য সব সময় উন্মুক্ত থাকবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন