ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার
jugantor
ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার

  বরিশাল ব্যুরো  

০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১:২৫:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশালে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি আনোয়ার খানকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার আশুলিয়ার মোল্লা মার্কেটের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আনোয়ার হোসেন (৪২) বরিশাল মেট্রোপলিটনের কাউনিয়া থানাধীন লামচরি এলাকার মৃত আব্দুল কাদের খানের ছেলে।

সোমবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কাউনিয়া থানার ওসি আব্দুর রহমান মুকুল জানান, তাকে আদালতে হাজির করা হবে। এর আগে রোববার ঢাকার আশুলিয়া মোল্লা মার্কেটে সংলগ্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে আনোয়ার হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সগির হোসেনের নেতৃত্বে অভিযানে ছিলেন এসআই হুমায়ন কবির, হালিম, এএসআই সাইফুলসহ ৬-৭ জনের একটি দল অভিযানটি পরিচালনা করে।

মামলার বাদী ও নিহতের পিতা মো. আব্দুল মালেক মাঝি জানান, ২০১০ সালের ২ জুন তার ছেলে সুলতান বাদশাকে চার লাখ টাকার জন্য অপহরণ করে খুন করে একই ইউনিয়নের বশির ফকির, আ. ছত্তার, আনোয়ার হোসেনসহ ৫-৬ জন। যে ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় তিনজনকে ২০১৩ সালের ১১ নভেম্বর ফাঁসির দণ্ডাদেশ দেন আদালত। মামলার অপর দুই আসামির মধ্যে বশার ফকির এখনো পলাতক রয়েছেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার

 বরিশাল ব্যুরো 
০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশালে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি আনোয়ার খানকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার আশুলিয়ার মোল্লা মার্কেটের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আনোয়ার হোসেন (৪২) বরিশাল মেট্রোপলিটনের কাউনিয়া থানাধীন লামচরি এলাকার মৃত আব্দুল কাদের খানের ছেলে।

সোমবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কাউনিয়া থানার ওসি আব্দুর রহমান মুকুল জানান, তাকে আদালতে হাজির করা হবে। এর আগে রোববার ঢাকার আশুলিয়া মোল্লা মার্কেটে সংলগ্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে আনোয়ার হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সগির হোসেনের নেতৃত্বে অভিযানে ছিলেন এসআই হুমায়ন কবির, হালিম, এএসআই সাইফুলসহ ৬-৭ জনের একটি দল অভিযানটি পরিচালনা করে।

মামলার বাদী ও নিহতের পিতা মো. আব্দুল মালেক মাঝি জানান, ২০১০ সালের ২ জুন তার ছেলে সুলতান বাদশাকে চার লাখ টাকার জন্য অপহরণ করে খুন করে একই ইউনিয়নের বশির ফকির, আ. ছত্তার, আনোয়ার হোসেনসহ ৫-৬ জন। যে ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় তিনজনকে ২০১৩ সালের ১১ নভেম্বর ফাঁসির দণ্ডাদেশ দেন আদালত। মামলার অপর দুই আসামির মধ্যে বশার ফকির এখনো পলাতক রয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন