সৈয়দপুরে এসএসসি ফলপ্রার্থী তরুণী নিখোঁজ
jugantor
সৈয়দপুরে এসএসসি ফলপ্রার্থী তরুণী নিখোঁজ

  সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি  

০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:২৬:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রতীকী ছবি

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলা শহর থেকে রুমাইয়া সুলতানা (১৫) নামে এক তরুণী নিখোঁজ হয়েছেন।

সে সৈয়দপুর শহরের সানফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে চলতি বছরের নভেম্বরে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে।

গত ২ ডিসেম্বর থেকে রুমাইয়াকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

পরিবার সূত্র জানিয়েছে, রুমাইয়ার বাবা সৈয়দপুরে একটি বহুজাতিক কোম্পানিতে কর্মরত। দুই সন্তানের মধ্যে রুমাইয়া বড়।

রুমাইয়ার বাবা মো. ফারুক বলেন, আমি কারোর ক্ষতি করিনি। এলাকায় আমার কোনো শত্রুও নেই। কারা আমার মেয়েকে তুলে নিয়ে গেছে তাও জানি না।

রুমাইয়ার মা সেলিনা ইয়াসমিন বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বাড়ির পাশেই। বাড়ি আর স্কুল ছাড়া আমার মেয়ে তেমন কিছুই চেনে না। গত ২ ডিসেম্বর সন্ধ্যার পর থেকেই তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। আত্মীয়স্বজন সম্ভাব্য সব জায়গায় খুঁজেছি।

এ ঘটনায় গত ৩ ডিসেম্বর সৈয়দপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি নম্বর ১৫০) করা হয়েছে।

সৈয়দপুর সদর থানার ওসি আবুল হাসনাত জানান, বিষয়টিকে অনেক গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। দেশের সব থানায় খবর পাঠানো হয়েছে। আশা করি, দ্রুত মেয়েটিকে খুঁজে পাওয়া যাবে।

সৈয়দপুরে এসএসসি ফলপ্রার্থী তরুণী নিখোঁজ

 সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি 
০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:২৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলা শহর থেকে রুমাইয়া সুলতানা (১৫) নামে এক তরুণী নিখোঁজ হয়েছেন।  

সে সৈয়দপুর শহরের সানফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে চলতি বছরের নভেম্বরে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। 

গত ২ ডিসেম্বর থেকে রুমাইয়াকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

পরিবার সূত্র জানিয়েছে, রুমাইয়ার বাবা সৈয়দপুরে একটি বহুজাতিক কোম্পানিতে কর্মরত। দুই সন্তানের মধ্যে রুমাইয়া বড়। 

রুমাইয়ার বাবা মো. ফারুক বলেন, আমি কারোর ক্ষতি করিনি। এলাকায় আমার কোনো শত্রুও নেই। কারা আমার মেয়েকে তুলে নিয়ে গেছে তাও জানি না। 

রুমাইয়ার মা সেলিনা ইয়াসমিন বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বাড়ির পাশেই। বাড়ি আর স্কুল ছাড়া আমার মেয়ে তেমন কিছুই চেনে না। গত ২ ডিসেম্বর সন্ধ্যার পর থেকেই তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। আত্মীয়স্বজন সম্ভাব্য সব জায়গায় খুঁজেছি। 

এ ঘটনায় গত ৩ ডিসেম্বর সৈয়দপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি নম্বর ১৫০) করা হয়েছে।

সৈয়দপুর সদর থানার ওসি আবুল হাসনাত জানান, বিষয়টিকে অনেক গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। দেশের সব থানায় খবর পাঠানো হয়েছে। আশা করি, দ্রুত মেয়েটিকে খুঁজে পাওয়া যাবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন