ফেরি থেকে নদীতে পড়ে বাসযাত্রী নিখোঁজ
jugantor
ফেরি থেকে নদীতে পড়ে বাসযাত্রী নিখোঁজ

  রাজবাড়ী প্রতিনিধি  

০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ১৩:১৩:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

নিখোঁজ বাসযাত্রী

রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় ফেরি থেকে পদ্মা নদীতে পড়ে এক বাসযাত্রী নিখোঁজ হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সকালে পদ্মায় নিখোঁজ ওই যাত্রীর সন্ধানে উদ্ধারকাজ চলছে বলে যুগান্তরকে জানান গোয়ালন্দ নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সৈয়দ জাকির হোসেন।

নিখোঁজ ওই যাত্রীর নাম মোজাফফর হোসেন নান্নু (৬৫)। তার বাড়ি কুষ্টিয়া পৌরসভার চৌরহাস এলাকার ফুলতলা গ্রামে।

সরেজমিন বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে উপস্থিত থেকে ফায়ার সার্ভিস ও নৌপুলিশ ফাঁড়ির কর্মকর্তাদের উদ্ধারকাজে নিয়োজিত থাকতে দেখা গেছে।

নিখোঁজ মোজাফফর হোসেনের বড় মেয়ে নাসরিন আক্তার জানান, আমার বাবার সঙ্গে ঢাকা যাচ্ছিলাম। রাত ১০টায় কুষ্টিয়া থেকে লালন পরিবহণে উঠি। রাত পৌনে ২টার দিকে দৌলতদিয়া ৫ নম্বর ফেরিঘাটে কেরামত আলী ফেরিতে উঠি। বাবা বাস থেকে নেমে যান। পকেট গেটের সামনে তিনি প্রস্রাব করতে গেলে ফেরি ছাড়ার সময় একটা জোরে ধাক্কা লাগে। এতে তিনি ফেরি থেকে পড়ে যান।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, এ ঘটনায় আমার বাবাকে উদ্ধারে তেমন কোনো তৎপরতা দেখছি না বলে জানান তিনি।

উদ্ধারকর্মী নুর মোহাম্মদ বলেন, আমরা ঘটনা শোনার পর পরই নৌকা নিয়ে তল্লাশি করছি। কিন্তু পাওয়া যাচ্ছে না। তবে না পাওয়া পর্যন্ত এখনও উদ্ধারকাজে নিয়োজিত রয়েছি।

ফেরি থেকে নদীতে পড়ে বাসযাত্রী নিখোঁজ

 রাজবাড়ী প্রতিনিধি 
০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নিখোঁজ বাসযাত্রী
ছবি: যুগান্তর

রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় ফেরি থেকে পদ্মা নদীতে পড়ে এক বাসযাত্রী নিখোঁজ হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সকালে পদ্মায় নিখোঁজ ওই যাত্রীর সন্ধানে উদ্ধারকাজ চলছে বলে যুগান্তরকে জানান গোয়ালন্দ নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সৈয়দ জাকির হোসেন।

নিখোঁজ ওই যাত্রীর নাম মোজাফফর হোসেন নান্নু (৬৫)। তার বাড়ি কুষ্টিয়া পৌরসভার চৌরহাস এলাকার ফুলতলা গ্রামে।

সরেজমিন বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে উপস্থিত থেকে ফায়ার সার্ভিস ও নৌপুলিশ ফাঁড়ির কর্মকর্তাদের উদ্ধারকাজে নিয়োজিত থাকতে দেখা গেছে।

নিখোঁজ মোজাফফর হোসেনের বড় মেয়ে নাসরিন আক্তার জানান, আমার বাবার সঙ্গে ঢাকা যাচ্ছিলাম। রাত ১০টায় কুষ্টিয়া থেকে লালন পরিবহণে উঠি। রাত পৌনে ২টার দিকে দৌলতদিয়া ৫ নম্বর ফেরিঘাটে কেরামত আলী ফেরিতে উঠি। বাবা বাস থেকে নেমে যান। পকেট গেটের সামনে তিনি প্রস্রাব করতে গেলে ফেরি ছাড়ার সময় একটা জোরে ধাক্কা লাগে। এতে তিনি ফেরি থেকে পড়ে যান।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, এ ঘটনায় আমার বাবাকে উদ্ধারে তেমন কোনো তৎপরতা দেখছি না বলে জানান তিনি।

উদ্ধারকর্মী নুর মোহাম্মদ বলেন, আমরা ঘটনা শোনার পর পরই নৌকা নিয়ে তল্লাশি করছি। কিন্তু পাওয়া যাচ্ছে না। তবে না পাওয়া পর্যন্ত এখনও উদ্ধারকাজে নিয়োজিত রয়েছি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন