বকেয়া বেতনের দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন
jugantor
বকেয়া বেতনের দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন

  রাজশাহী ব্যুরো  

১৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:৪৭:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ও রাজশাহী মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষকরা।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শহিদ মিনার চত্বরে এ মানববন্ধন হয়।

গত ১৮ মাসের বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে তারা এ কর্মসূচি পালন করেন।

মানববন্ধনে শিক্ষকরা বলেন, সরকার দেশের কারিগরি শিক্ষার হার ২০২০ সালে ২০ শতাংশ, ২০৩০ সালে ৩০ শতাংশ এবং ২০৪১ সালে ৪০ শতাংশে উন্নীত করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। কারিগরি শিক্ষা সম্প্রসারণ ও মানোন্নয়নে ২০১২ ও ২০১৪ সালে শিক্ষা মন্ত্রণালয় স্টেপ প্রকল্পের আওতায় ১ হাজার ১৫ জন শিক্ষক নিয়োগ দেয়। এর মধ্যে ৭৭৭ জন শিক্ষক বর্তমানে কর্মরত আছেন। প্রকল্পের মেয়াদ শেষে শিক্ষকদের সরকারের মজুদ বরাদ্দ খাত থেকে ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে বেতন ভাতা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু ২০২০ সালের জুলাই মাস থেকে ২০২১ সালের ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত বেতন-ভাতার ব্যবস্থা করা হয়নি। তাই এই ১৮ মাস ধরে শিক্ষকরা খুব কষ্টে আছেন।

শিক্ষকরা দ্রুত কারিগরি শিক্ষকদের বেতনভাতা পরিশোধ করতে সরকারের কাছে দাবি জানান।

মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ পলিটেকনিক টিচার্স ফেডারেশনের সভাপতি আহমেদ হোসেন। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কেন্দ্রীয় কমিটির (কারিগরি শাখা) সভাপতি সুমন হায়দার, শিক্ষক মোহাম্মদ সালাউদ্দিন প্রমুখ।

বকেয়া বেতনের দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন

 রাজশাহী ব্যুরো 
১৮ জানুয়ারি ২০২২, ০৬:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ও রাজশাহী মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষকরা। 

মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শহিদ মিনার চত্বরে এ মানববন্ধন হয়। 

গত ১৮ মাসের বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে তারা এ কর্মসূচি পালন করেন।

মানববন্ধনে শিক্ষকরা বলেন, সরকার দেশের কারিগরি শিক্ষার হার ২০২০ সালে ২০ শতাংশ, ২০৩০ সালে ৩০ শতাংশ এবং ২০৪১ সালে ৪০ শতাংশে উন্নীত করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। কারিগরি শিক্ষা সম্প্রসারণ ও মানোন্নয়নে ২০১২ ও ২০১৪ সালে শিক্ষা মন্ত্রণালয় স্টেপ প্রকল্পের আওতায় ১ হাজার ১৫ জন শিক্ষক নিয়োগ দেয়। এর মধ্যে ৭৭৭ জন শিক্ষক বর্তমানে কর্মরত আছেন। প্রকল্পের মেয়াদ শেষে শিক্ষকদের সরকারের মজুদ বরাদ্দ খাত থেকে ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে বেতন ভাতা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু ২০২০ সালের জুলাই মাস থেকে ২০২১ সালের ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত বেতন-ভাতার ব্যবস্থা করা হয়নি। তাই এই ১৮ মাস ধরে শিক্ষকরা খুব কষ্টে আছেন।

শিক্ষকরা দ্রুত কারিগরি শিক্ষকদের বেতনভাতা পরিশোধ করতে সরকারের কাছে দাবি জানান। 

মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ পলিটেকনিক টিচার্স ফেডারেশনের সভাপতি আহমেদ হোসেন। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কেন্দ্রীয় কমিটির (কারিগরি শাখা) সভাপতি সুমন হায়দার, শিক্ষক মোহাম্মদ সালাউদ্দিন প্রমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন