প্রেমিককে বিয়ের জন্য চাপ, ছাত্রীর মৃত্যু নিয়ে রহস্য
jugantor
প্রেমিককে বিয়ের জন্য চাপ, ছাত্রীর মৃত্যু নিয়ে রহস্য

  নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি  

১৮ জানুয়ারি ২০২২, ২২:৫৮:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে বিয়ে না করায় প্রেমিকের সঙ্গে অভিমান করে সাথী (১৫) নামের এক স্কুলছাত্রী বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। তবে ছাত্রীর পরিবার দাবি করে বিয়ের জন্য চাপ দেওয়ায় প্রেমিক হৃদয় তাকে বিষপ্রয়োগ করে হত্যা করেছে।

রোববার রাতে উপজেলার খাগকান্দা ইউনিয়নের খাগকান্দা নয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রেমিক হৃদয়কে (২২) আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, উপজেলার নয়াপাড়া গ্রামের সাথী আক্তার (১৫) কবি নজরুল উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী। গত দুই বছর যাবত তার প্রেম ছিল পাশের বাড়ির কমু শেখের বখাটে ছেলে হৃদয়ের সঙ্গে। ঘটনার সময় সাথী আক্তার প্রেমিকের বাড়িতে যায় এবং তাকে বিয়ে করার জন্য চাপ দেয়। প্রেমিক হৃদয় বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় অভিমান করে বিষপান করে আত্মহত্যা করে।

নিহতের মা নাসিমা আক্তার অভিযোগ করে বলেন, আমার মেয়ে বিয়ের কথা তাকে জানায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রেমিক হৃদয় ও তার পরিবারের লোকজন তাকে জোরপূর্বক বিষাক্ত দ্রব্য (কেড়ির ট্যাবলেট) খাওয়ায়। এ সংবাদ পেয়ে সাথী আক্তারের বাড়ির লোকজন তাকে আহত অবস্থায় প্রেমিকের বাড়ি থেকে উদ্ধার করে প্রথমে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে আসেন। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। ঢাকায় যাওয়ার পথে সাথী আক্তার মারা যায়।

আড়াইহাজার থানার ওসি আনিচুর রহমান মোল্লা জানান, এ ঘটনায় আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের আগে বিস্তারিত বলা যাচ্ছে না।

প্রেমিককে বিয়ের জন্য চাপ, ছাত্রীর মৃত্যু নিয়ে রহস্য

 নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি 
১৮ জানুয়ারি ২০২২, ১০:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে বিয়ে না করায় প্রেমিকের সঙ্গে অভিমান করে সাথী (১৫) নামের এক স্কুলছাত্রী বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। তবে ছাত্রীর পরিবার দাবি করে বিয়ের জন্য চাপ দেওয়ায় প্রেমিক হৃদয় তাকে বিষপ্রয়োগ করে হত্যা করেছে।

রোববার রাতে উপজেলার খাগকান্দা ইউনিয়নের খাগকান্দা নয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রেমিক হৃদয়কে (২২) আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, উপজেলার নয়াপাড়া গ্রামের সাথী আক্তার (১৫) কবি নজরুল উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী। গত দুই বছর যাবত তার প্রেম ছিল পাশের বাড়ির কমু শেখের বখাটে ছেলে হৃদয়ের সঙ্গে। ঘটনার সময় সাথী আক্তার প্রেমিকের বাড়িতে যায় এবং তাকে বিয়ে করার জন্য চাপ দেয়। প্রেমিক হৃদয় বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় অভিমান করে বিষপান করে আত্মহত্যা করে।

নিহতের মা নাসিমা আক্তার অভিযোগ করে বলেন, আমার মেয়ে বিয়ের কথা তাকে জানায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রেমিক হৃদয় ও তার পরিবারের লোকজন তাকে জোরপূর্বক বিষাক্ত দ্রব্য (কেড়ির ট্যাবলেট) খাওয়ায়। এ সংবাদ পেয়ে সাথী আক্তারের বাড়ির লোকজন তাকে আহত অবস্থায় প্রেমিকের বাড়ি থেকে উদ্ধার করে প্রথমে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে আসেন। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। ঢাকায় যাওয়ার পথে সাথী আক্তার মারা যায়।

আড়াইহাজার থানার ওসি আনিচুর রহমান মোল্লা জানান, এ ঘটনায় আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের আগে বিস্তারিত বলা যাচ্ছে না।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন