চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

প্রকাশ : ২১ মে ২০১৮, ০৮:২৯ | অনলাইন সংস্করণ

  জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি

জীবননগর উপজেলার উথলী গ্রামের সন্ন্যাসীতলা মাঠে রোববার দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে পুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ জনাব আলী (৩২) নামে চিহ্নিত এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন।

নিহত জনাব আলী উথলী গ্রামের আমতলাপাড়ার মো. জামাত আলীর ছেলে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি শর্টগান, দুটি কার্তুজ, ৩টি রামদা এবং এক বস্তা ভারতীয় ফেনসিডিল উদ্ধার করেছে।

বন্দুকযুদ্ধের সময় জীবননগর থানার তিন পুলিশ সদস্যও গুরুতর আহত হয়েছেন বলে পুলিশের দাবি। আহতরা হলেন- সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মিলন হোসেন, কনস্টেবল ওয়ালিদ রহমান ও কনস্টেবল জুয়েল হোসেন।

আহত পুলিশ সদস্যদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত জনাব আলীর নামে জীবননগর থানাসহ পার্শ্ববর্তী দামুড়হুদা ও চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় অন্তত ১১টি মাদক মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

পুলিশ জানায়, জীবননগর থানার পুলিশ সদস্যরা রোববার রাত পৌনে ১টার দিকে উপজেলার উথলী মোল্লাবাড়ি-সন্ন্যাসীতলা সড়কে টহল দিচ্ছিলেন। পুলিশের গাড়ি সন্ন্যাসীতলা নামক মাঠের কাছে পৌঁছলে ১০-১২ জনের দুর্বৃত্ত দল পুলিশকে লক্ষ্য করে ৫-৭ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করে।

একপর্যায়ে পুলিশও আত্মরক্ষার্থে দুর্বৃত্তের ওপর পাল্টা গুলি চালায়। এ সময় উভয়পক্ষের মধ্যে অন্তত ১০-১২ রাউন্ড গুলিবিনিময় হয়। দুর্বৃত্ত দলের সদস্যরা পিছু হটলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একজনকে মৃতাবস্থায় উদ্ধার করে। পরে গ্রামবাসী এসে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত যুবক এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী উথলী গ্রামের জনাব আলীর লাশ বলে শনাক্ত করেন।

জীবননগর থানার ওসি মো. মাহমুদ রহমান জানান, বন্দুকযুদ্ধে নিহত জনাব আলীর বিরুদ্ধে জীবননগর থানাসহ পার্শ্ববর্তী থানায় অন্তত ১১টি মাদক মামলা রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি শর্টগান, দুটি কার্তুজ, ৩টি রামদা এবং এক  বস্তা ফেনসিডিল উদ্ধার করে।