নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নতুন ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক নাসির
jugantor
নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নতুন ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক নাসির

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২০ জানুয়ারি ২০২২, ১০:৪৭:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির জ্যেষ্ঠ আহ্বায়ক নাসির উদ্দিনকে ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক করেছে দলের কেন্দ্রীয় কমিটি।বুধবার রাতে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ নিয়োগ দেওয়া হয়।

বিষয়টি যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সহসাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ।

নাসির উদ্দিন রূপগঞ্জের তারাব পৌর বিএনপির সভাপতির দায়িত্বও পালন করছেন।

গত ২৪ ডিসেম্বর দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে অংশ নেওয়ায় জেলা বিএনপির আহ্বায়ক পদ থেকে তৈমুর আলম খন্দকারকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তাকে সরিয়ে প্রথম যুগ্ম আহ্বায়ক মনিরুল ইসলাম রবিকে ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়।

গত ১১ জানুয়ারি মনিরুল ইসলাম রবিকে সিদ্ধিরগঞ্জের বাড়ি থেকে আটক করে পুলিশ। পরে তাকে হেফাজতে ইসলামের ডাকা হরতালে গাড়ি পোড়ানো মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়।

ওই সময় জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মনিরুল ইসলাম রবি সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় নির্বাচনি প্রচার কমিটির প্রধান সমন্বয়ক। নির্বাচনি এজেন্ট নির্ধারণ এবং নির্বাচনি প্রচারসংক্রান্ত সব দায়িত্ব তার ওপর অর্পিত ছিল।

এদিকে আহ্বায়ক কমিটির পদ থেকে অব্যাহতির ৯ দিন পর গত ৪ জানুয়ারি তৈমুর আলম খন্দকারকে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টার পদ থেকে অব্যাহতি দেয় বিএনপি। সবশেষ নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার দুদিন পর মঙ্গলবার রাতে দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকাণ্ডের অভিযোগে বিএনপির গঠনতন্ত্র মোতাবেক তৈমুর আলম খন্দকারকে দলের প্রাথমিক সদস্য পদসহ সব পর্যায়ের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়।

অপর এক চিঠিতে তৈমুরের প্রধান নির্বাচনি এজেন্ট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামালকেও দল থেকে বহিষ্কার করে বিএনপি। তৈমুর আলম খন্দকারকে বহিষ্কারের একদিনের মাথায় জেলা বিএনপির জ্যেষ্ঠ আহ্বায়ক নাসির উদ্দিন আহমেদকে ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক দায়িত্ব দিয়ে চিঠি দেওয়া হলো।

এদিকে এটিএম কামালকে বহিষ্কারের পর তৈমুর আলম খন্দকার বলেছেন, আমার ক্ষেত্রে যা করার করেছে; কিন্তু এটিএম কামালের মতো নেতাকে বহিষ্কার করা আত্মঘাতী সিদ্ধান্তের শামিল। কারণ বিএনপি করতে গিয়ে ত্যাগী এটিএম কামাল বহুবার মৃত্যুকে আলিঙ্গন করেছেন। আরেকজন এটিএম কামাল সৃষ্টি করা নারায়ণগঞ্জে খুবই কঠিন।

নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নতুন ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক নাসির

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২০ জানুয়ারি ২০২২, ১০:৪৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির জ্যেষ্ঠ আহ্বায়ক নাসির উদ্দিনকে ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক করেছে দলের কেন্দ্রীয় কমিটি। বুধবার রাতে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ নিয়োগ দেওয়া হয়।

বিষয়টি যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সহসাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ।

নাসির উদ্দিন রূপগঞ্জের তারাব পৌর বিএনপির সভাপতির দায়িত্বও পালন করছেন। 

গত ২৪ ডিসেম্বর দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে অংশ নেওয়ায় জেলা বিএনপির আহ্বায়ক পদ থেকে তৈমুর আলম খন্দকারকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তাকে সরিয়ে প্রথম যুগ্ম আহ্বায়ক মনিরুল ইসলাম রবিকে ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়।

গত ১১ জানুয়ারি মনিরুল ইসলাম রবিকে সিদ্ধিরগঞ্জের বাড়ি থেকে আটক করে পুলিশ। পরে তাকে হেফাজতে ইসলামের ডাকা হরতালে গাড়ি পোড়ানো মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়। 

ওই সময় জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মনিরুল ইসলাম রবি সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় নির্বাচনি প্রচার কমিটির প্রধান সমন্বয়ক। নির্বাচনি এজেন্ট নির্ধারণ এবং নির্বাচনি প্রচারসংক্রান্ত সব দায়িত্ব তার ওপর অর্পিত ছিল।  

এদিকে আহ্বায়ক কমিটির পদ থেকে অব্যাহতির ৯ দিন পর গত ৪ জানুয়ারি তৈমুর আলম খন্দকারকে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টার পদ থেকে অব্যাহতি দেয় বিএনপি। সবশেষ নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার দুদিন পর মঙ্গলবার রাতে দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকাণ্ডের অভিযোগে বিএনপির গঠনতন্ত্র মোতাবেক তৈমুর আলম খন্দকারকে দলের প্রাথমিক সদস্য পদসহ সব পর্যায়ের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়।

অপর এক চিঠিতে তৈমুরের প্রধান নির্বাচনি এজেন্ট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামালকেও দল থেকে বহিষ্কার করে বিএনপি। তৈমুর আলম খন্দকারকে বহিষ্কারের একদিনের মাথায় জেলা বিএনপির জ্যেষ্ঠ আহ্বায়ক নাসির উদ্দিন আহমেদকে ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক দায়িত্ব দিয়ে চিঠি দেওয়া হলো।

এদিকে এটিএম কামালকে বহিষ্কারের পর তৈমুর আলম খন্দকার বলেছেন, আমার ক্ষেত্রে যা করার করেছে; কিন্তু এটিএম কামালের মতো নেতাকে বহিষ্কার করা আত্মঘাতী সিদ্ধান্তের শামিল। কারণ বিএনপি করতে গিয়ে ত্যাগী এটিএম কামাল বহুবার মৃত্যুকে আলিঙ্গন করেছেন। আরেকজন এটিএম কামাল সৃষ্টি করা নারায়ণগঞ্জে খুবই কঠিন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন