জমিসংক্রান্ত বিরোধে নারীসহ আহত ১৫
jugantor
জমিসংক্রান্ত বিরোধে নারীসহ আহত ১৫

  কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি   

২১ জানুয়ারি ২০২২, ১৯:৩২:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে জমিসংক্রান্ত বিরোধে নারীসহ দু’পক্ষের ১৫ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে চাঁদপুর ইউনিয়নের গড়েরবাড়ি কাঞ্চনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আহতরা হলেন- গড়েরবাড়ি কাঞ্চনপুরের সোহেল রানা (৩৫), তরিকুল ইসলাম (৩৫), রফিকুল ইসলাম, আতাহার আলী (৬০), মহির হোসেন (৪০), শহীদুল ইসলাম (৬০), নাজিম মিয়া (৪০), অন্তর বিশ্বাস (২২), শাহাদাত বিশ্বাস, আমেনা বেগম (৭০), আম্বিয়া খাতুন (৫০), আসাদুল ইসলাম (৪৫), রবিন বিশ্বাস (২৬) ও আরিফুল ইসলাম (১৮)।

জানা যায়, ইসলামী ব্যাংকে কর্মরত সোহেল রানা তার ক্রয়কৃত সম্পত্তিতে শুক্রবার সকালে বাড়ি নির্মাণের কাজ করতে যান। ওই সময় প্রতিবেশী সিরাজ বিশ্বাস তার লোকজন নিয়ে দেশীয় অস্ত্রে নিয়ে হামলা চালায়। পরে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে নারীসহ দুইপক্ষের ১৫ জন আহত হন। আহতরা বর্তমানে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ বিষয়ে চাঁদপুর ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদুজ্জমান তুষার জানান, সোহেল রানা জমি কেনার পর থেকেই প্রতিবেশি সিরাজ বিশ্বাস বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেন জমির দখল নিয়ে।

এ বিষয় নিয়ে কুমারখালী থানায় সালিশি বৈঠকে সোহেল রানার পক্ষে সমস্ত প্রমাণাদি থাকার কারণে তার পক্ষে রায় দেয়। যে কারণে ব্যাংক কর্মকর্তা তার জমির ওপর শুক্রবার সকালে বাড়ি নির্মাণের কাজ করতে গেলে সিরাজ বিশ্বাস তার লোকজন নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়।

কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, সংঘর্ষে দুইপক্ষের অনেকেই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অভিযোগ পেয়েছি। খোঁজখবর নিয়ে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জমিসংক্রান্ত বিরোধে নারীসহ আহত ১৫

 কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি  
২১ জানুয়ারি ২০২২, ০৭:৩২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে জমিসংক্রান্ত বিরোধে নারীসহ দু’পক্ষের ১৫ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে চাঁদপুর ইউনিয়নের গড়েরবাড়ি কাঞ্চনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আহতরা হলেন- গড়েরবাড়ি কাঞ্চনপুরের সোহেল রানা (৩৫), তরিকুল ইসলাম (৩৫), রফিকুল ইসলাম, আতাহার আলী (৬০), মহির হোসেন (৪০), শহীদুল ইসলাম (৬০), নাজিম মিয়া (৪০), অন্তর বিশ্বাস (২২), শাহাদাত বিশ্বাস, আমেনা বেগম (৭০), আম্বিয়া খাতুন (৫০), আসাদুল ইসলাম (৪৫),  রবিন বিশ্বাস (২৬) ও আরিফুল ইসলাম (১৮)। 

জানা যায়, ইসলামী ব্যাংকে কর্মরত সোহেল রানা তার ক্রয়কৃত সম্পত্তিতে শুক্রবার সকালে বাড়ি নির্মাণের কাজ করতে যান। ওই সময় প্রতিবেশী সিরাজ বিশ্বাস তার লোকজন নিয়ে দেশীয় অস্ত্রে নিয়ে হামলা চালায়। পরে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে নারীসহ দুইপক্ষের ১৫ জন আহত হন। আহতরা বর্তমানে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 

এ বিষয়ে চাঁদপুর ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদুজ্জমান তুষার জানান, সোহেল রানা জমি কেনার পর থেকেই প্রতিবেশি সিরাজ বিশ্বাস বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেন জমির দখল নিয়ে।

এ বিষয় নিয়ে কুমারখালী থানায় সালিশি বৈঠকে সোহেল রানার পক্ষে সমস্ত প্রমাণাদি থাকার কারণে তার পক্ষে রায় দেয়। যে কারণে ব্যাংক কর্মকর্তা তার জমির ওপর শুক্রবার সকালে বাড়ি নির্মাণের কাজ করতে গেলে সিরাজ বিশ্বাস তার লোকজন নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। 

কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, সংঘর্ষে দুইপক্ষের অনেকেই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অভিযোগ পেয়েছি। খোঁজখবর নিয়ে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন