দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ৫০
jugantor
দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ৫০

  টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি  

২১ জানুয়ারি ২০২২, ১৯:৫৯:০৪  |  অনলাইন সংস্করণ

মাদারীপুরের রাজৈরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় ১০টি দোকান ভাঙচুর করা হয়। আহতদের স্থানীয় ক্লিনিকসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত দুই ঘণ্টাব্যাপী উপজেলার টেকেরহাট বন্দরের কাঠেরপোল এলাকায় এ সংঘর্ষ চলে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ১১৮ রাউন্ড গুলি ও ১১ রাউন্ড টিয়ারশেল ছোড়ে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, মাথায় মাফলার পেচানোর সময় গায়ে স্পর্শ লাগা নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকালে রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট বন্দর সংলগ্ন পূর্ব সরমঙ্গল গ্রামের রশিদ (৬০) নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে পার্শ্ববর্তী শংকরদীরপাড় গ্রামের মৃত সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান লিয়াকত শেখের মেয়ে পপির (৩৫) কথাকাটাকাটি হয়।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে পপির ভাইসহ শংকরদী গ্রামের কয়েক ব্যক্তির সঙ্গে রশিদ খা ও তার লোকজনের কথাকাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়।

এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে দুই গ্রাম পূর্ব সরমঙ্গল ও শংকরদী গ্রামের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে টেকেরহাট বন্দরের কাঠেরপোল এলাকায় নিম্ন কুমার নদের উপর নির্মিত ব্রিজের দুই পাশে অবস্থান নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

এতে উভয়পক্ষের প্রায় ৫০ জন আহত হন। আহতদের স্থানীয় ক্লিনিকসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। সংঘর্ষ চলাকালে প্রায় ১০টি দোকান ভাঙচুর করা হয়।

রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ সাদিক জানান, খবর পেরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শর্টগানের ১১৮ রাউন্ড গুলি ও ১১ রাউন্ড টিয়ারশেল ছোড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ৫০

 টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি 
২১ জানুয়ারি ২০২২, ০৭:৫৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মাদারীপুরের রাজৈরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় ১০টি দোকান ভাঙচুর করা হয়। আহতদের স্থানীয় ক্লিনিকসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। 

শুক্রবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত দুই ঘণ্টাব্যাপী উপজেলার টেকেরহাট বন্দরের কাঠেরপোল এলাকায় এ সংঘর্ষ চলে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ১১৮ রাউন্ড গুলি ও ১১ রাউন্ড টিয়ারশেল ছোড়ে। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, মাথায় মাফলার পেচানোর সময় গায়ে স্পর্শ লাগা নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকালে রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট বন্দর সংলগ্ন পূর্ব সরমঙ্গল গ্রামের রশিদ (৬০) নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে পার্শ্ববর্তী শংকরদীরপাড় গ্রামের মৃত সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান লিয়াকত শেখের মেয়ে পপির (৩৫) কথাকাটাকাটি হয়। 

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে পপির ভাইসহ শংকরদী গ্রামের কয়েক ব্যক্তির সঙ্গে রশিদ খা ও তার লোকজনের  কথাকাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। 

এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে দুই গ্রাম পূর্ব সরমঙ্গল ও শংকরদী গ্রামের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে টেকেরহাট বন্দরের কাঠেরপোল এলাকায় নিম্ন কুমার নদের উপর নির্মিত ব্রিজের দুই পাশে অবস্থান নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। 

এতে উভয়পক্ষের প্রায় ৫০ জন আহত হন। আহতদের স্থানীয় ক্লিনিকসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। সংঘর্ষ চলাকালে প্রায় ১০টি দোকান ভাঙচুর করা হয়।

রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ সাদিক জানান, খবর পেরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শর্টগানের ১১৮ রাউন্ড গুলি ও ১১ রাউন্ড টিয়ারশেল ছোড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন