ধর্ষণ চেষ্টা মামলায় গ্রেফতার সপ্তম শ্রেণির ছাত্র!
jugantor
ধর্ষণ চেষ্টা মামলায় গ্রেফতার সপ্তম শ্রেণির ছাত্র!

  যুগান্তর প্রতিবেদন, তাহিরপুর  

২৬ জানুয়ারি ২০২২, ০১:৪৮:৩৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ধর্ষণ চেষ্টা মামলায় গ্রেফতার ১৩ বছরের কিশোর!

ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রকে গ্রেফতারকরেছে থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকেলে ১৩ বছর বয়সি ওই কিশোরকে সুনামগঞ্জ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়।

আদালতের বিজ্ঞ বিচারক গাজীপুরের টঙ্গী শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র (বালক) হেফাজতে তাকে প্রেরণের আদেশ প্রদান করেন।

এর আগে ওই দিন দুপুরে উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের অমৃতপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে স্কুলছাত্রকে আটক করে পুলিশ। ওই স্কুলছাত্র স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে বলে নিশ্চিত করেন প্রতিষ্ঠানের প্রধানশিক্ষক।

মঙ্গলবার রাতে তাহিরপুর থানার ওসির দায়িত্বে থাকা এসআই গোলাম হক্কানী এ তথ্য যুগান্তরকে নিশ্চিত করেন।

মামলার সুত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে উপজেলার অমৃতপুর গ্রামের সপ্তম শ্রেণি পড়ুয়া ওই স্কুলছাত্র একই গ্রামের অপর বাসিন্দার পাঁচ বছর বয়সি শিশুকন্যাকে ধর্ষণ চেষ্টা চালায় ।

বিষয়টি ওই শিশুর ফুফু পরিবারের লোকজনকে অবহিত করলে পরদিন দুপুরে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে ওই স্কুল ছাত্রের বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন থানায়।

মঙ্গলবার রাতে ভিকটিমের মা বলেন, আমার মেয়েটি কিছু বলতে পারেনি, কিন্ত তার ফুফু ঘটনা দেখে আমাদের জানানোর পর ন্যায় বিচার পেতেই আমি থানায় গিয়ে মামলা দায়ের করি।

মঙ্গলবার রাতে অভিযুক্ত স্কুলছাত্রের পিতা বলেন, আমার পরিবারের সঙ্গে পূর্ব বিরোধের জের ধরে আমার ছেলের বিরুদ্ধে অহেতুক এমন স্পর্শকাতর অভিযোগে হয়রানিমূলক মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্তে প্রকৃত সত্য উদঘাটন হলে ষড়যন্ত্রের বিষয়টি পরিস্কার হয়ে উঠবে।

ধর্ষণ চেষ্টা মামলায় গ্রেফতার সপ্তম শ্রেণির ছাত্র!

 যুগান্তর প্রতিবেদন, তাহিরপুর 
২৬ জানুয়ারি ২০২২, ০১:৪৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ধর্ষণ চেষ্টা মামলায় গ্রেফতার ১৩ বছরের কিশোর!
প্রতীকী ছবি

ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকেলে ১৩ বছর বয়সি ওই কিশোরকে সুনামগঞ্জ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। 

আদালতের বিজ্ঞ বিচারক গাজীপুরের টঙ্গী শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র (বালক) হেফাজতে তাকে প্রেরণের আদেশ প্রদান করেন।

এর আগে ওই দিন দুপুরে উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের অমৃতপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে স্কুলছাত্রকে আটক করে পুলিশ। ওই স্কুলছাত্র স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে বলে নিশ্চিত করেন প্রতিষ্ঠানের প্রধানশিক্ষক।

মঙ্গলবার রাতে তাহিরপুর থানার ওসির দায়িত্বে থাকা এসআই গোলাম হক্কানী এ তথ্য যুগান্তরকে নিশ্চিত করেন।

মামলার সুত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে উপজেলার অমৃতপুর গ্রামের সপ্তম শ্রেণি পড়ুয়া ওই স্কুলছাত্র একই গ্রামের অপর বাসিন্দার পাঁচ বছর বয়সি শিশুকন্যাকে ধর্ষণ চেষ্টা চালায় ।

বিষয়টি ওই শিশুর ফুফু পরিবারের লোকজনকে অবহিত করলে পরদিন দুপুরে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে ওই স্কুল ছাত্রের বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন থানায়।

মঙ্গলবার রাতে ভিকটিমের মা বলেন, আমার মেয়েটি কিছু বলতে পারেনি, কিন্ত তার ফুফু ঘটনা দেখে আমাদের জানানোর পর ন্যায় বিচার পেতেই আমি থানায় গিয়ে মামলা দায়ের করি।

মঙ্গলবার রাতে অভিযুক্ত স্কুলছাত্রের পিতা বলেন, আমার পরিবারের সঙ্গে পূর্ব বিরোধের জের ধরে আমার ছেলের বিরুদ্ধে অহেতুক এমন স্পর্শকাতর অভিযোগে হয়রানিমূলক মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্তে প্রকৃত সত্য উদঘাটন হলে ষড়যন্ত্রের বিষয়টি পরিস্কার হয়ে উঠবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন