দৌলতদিয়ায় যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু
jugantor
দৌলতদিয়ায় যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

  গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি  

২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৭:১১:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে জাকির শেখ (৩২) নামে এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তাকে হত্যা করা হয়েছে কি-না এ নিয়ে সন্দেহ দেখা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে তার নিজ বাড়িতেই এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জাকির শেখ গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউপির শাহাদত মেম্বারপাড়া গ্রামের ইউসুফ শেখের ছেলে। সে দৌলতদিয়া ঘাটে ট্রাক পারাপারের বুকিংয়ের কাজ করত।

এ ঘটনার খবর পেয়ে রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মো. সালাহউদ্দিন, (সদর সার্কেল) মো. মঈন উদ্দিন চৌধুরী ও গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

স্থানীয় ও পারিবার সূত্রে জানা যায়, জাকিরসহ কয়েকজন একসঙ্গে দৌলতদিয়া ঘাটে গাড়ি পারাপারের কাজ করত। পেশাগত কারণে তিনি অনেক রাত করে বাড়িতে আসা-যাওয়া করতেন। গত রাতে কখন বাড়িতে এসেছেন, তা কেউ বলতে পারছেন না। এছাড়া তার স্ত্রী ও সন্তান বাড়িতে ছিল না। হঠাৎ ভোরে জাকিরের ঘরের দরজা খোলা দেখতে পাওয়া যায়। সে সময় পরিবারের অন্যরা ভেতরে গিয়ে দেখেন জাকিরের হাত বাঁকা হয়ে মেঝেতে পড়ে আছে। তার মুখ দিয়ে রক্ত পড়ছে। এছাড়া তার বিছানা অগোছালো এবং মেঝেতে একটি স্ক্রু ড্রাইভার পড়ে ছিল। এছাড়া সুইচ বোর্ডের সকেট খোলা ছিল।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন ও নিহতের পরিবার সুষ্ঠু তদন্ত করে জড়িতদের শাস্তির দাবি জানান।

রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রসাশন ও অপরাধ) মো. সালাহউদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে বলেন, ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

দৌলতদিয়ায় যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

 গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি 
২৭ জানুয়ারি ২০২২, ০৫:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে জাকির শেখ (৩২) নামে এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তাকে হত্যা করা হয়েছে কি-না এ নিয়ে সন্দেহ দেখা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে তার নিজ বাড়িতেই এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জাকির শেখ গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউপির শাহাদত মেম্বারপাড়া গ্রামের ইউসুফ শেখের ছেলে।  সে দৌলতদিয়া ঘাটে ট্রাক পারাপারের বুকিংয়ের কাজ করত।

এ ঘটনার খবর পেয়ে রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মো. সালাহউদ্দিন, (সদর সার্কেল) মো. মঈন উদ্দিন চৌধুরী ও গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

স্থানীয় ও পারিবার সূত্রে জানা যায়, জাকিরসহ কয়েকজন একসঙ্গে দৌলতদিয়া ঘাটে গাড়ি পারাপারের কাজ করত। পেশাগত কারণে তিনি অনেক রাত করে বাড়িতে আসা-যাওয়া করতেন। গত রাতে কখন বাড়িতে এসেছেন, তা কেউ বলতে পারছেন না। এছাড়া তার স্ত্রী ও সন্তান বাড়িতে ছিল না। হঠাৎ ভোরে জাকিরের ঘরের দরজা খোলা দেখতে পাওয়া যায়। সে সময় পরিবারের অন্যরা ভেতরে গিয়ে দেখেন জাকিরের হাত বাঁকা হয়ে মেঝেতে পড়ে আছে। তার মুখ দিয়ে রক্ত পড়ছে। এছাড়া তার বিছানা অগোছালো এবং মেঝেতে একটি স্ক্রু ড্রাইভার পড়ে ছিল। এছাড়া সুইচ বোর্ডের সকেট খোলা ছিল।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন ও নিহতের পরিবার সুষ্ঠু তদন্ত করে জড়িতদের শাস্তির দাবি জানান।

রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রসাশন ও অপরাধ) মো. সালাহউদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে বলেন, ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন