নির্বাচনে হেরেও গেজেটে নাম, এলাকায় চাঞ্চল্য
jugantor
নির্বাচনে হেরেও গেজেটে নাম, এলাকায় চাঞ্চল্য

  নড়াইল প্রতিনিধি   

২৮ জানুয়ারি ২০২২, ২১:৪২:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

নড়াইলের কালিয়া উপজেলায় বিজয়ী প্রার্থীর পরিবর্তে পরাজিত এক ইউপি সদস্য প্রার্থীর নাম জয়ী দেখিয়ে গেজেট প্রকাশিত হয়েছে। উপজেলার ১২নং চাঁচুড়ী ইউনিয়নের ২নং ওয়াডের্র সাধারণ সদস্য পদে বেসরকারিভাবে ছামিউল শেখকে জয়ী ঘোষণা করা হয়। কিন্তু সরকারি গেজেটে তার নাম অন্তর্ভুক্ত না করে তার নিকটতম পরাজিত প্রার্থী রবিউল ইসলামের নামে গেজেট প্রকাশ করে নির্বাচন অফিস।

এ ঘটনাকে অনিচ্ছাকৃত ভুল দাবি করেছেন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা। এতে জয়ী প্রার্থী ও তার সমর্থকদের মধ্যে ক্ষোভ এবং এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার চাঁচুড়ী ইউনিয়নের চতুর্থ ধাপে গত ২৮ নভেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ইউপির ২ নম্বর ওয়ার্ডে সদস্য পদে প্রার্থী ছিলেন ছামিউল শেখ (ফুটবল), মহাত্তাপ শেখ (টিউবওয়েল) ও রবিউল ইসলাম (মোরগ)। কৃষ্ণপুর-ডহর চাঁচুড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ওয়ার্ডের ইউপি সদস্যের ভোটগ্রহণ করা হয়।

এ কেন্দ্রে প্রিসাইডিং অফিসারের দায়িত্বে ছিলেন খামার পারোখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক বিনয় কুমার বিশ্বাস। সদস্য পদে ফুটবল প্রতীকে ছামিউল শেখ ৪৪০ ভোট পেয়ে জয়ী হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রবিউল ইসলাম মোরগ প্রতীক নিয়ে পান ৪৩৩ ভোট। কিন্তু গত ১৯ ডিসেম্বর প্রকাশিত সরকারি বাংলাদেশ গেজেটের অতিরিক্ত সংখ্যায় ১৯৫৩৭নং পৃষ্ঠায় ১নং কলামে রবিউল ইসলামকে বিজয়ী হিসেবে দেখানো হয়।

ভুল স্বীকার করে প্রিসাইডিং অফিসার বিনয় কুমার বিশ্বাস বলেন, নির্বাচনের দিন ভোট গণনা শেষে প্রার্থীদের এজেন্টদের কাছে ফলাফলের সঠিক তালিকা দেওয়া হয়। কিন্তু রাতে তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে রেজাল্ট শিটে ভুলবশত পরাজিত প্রার্থী রবিউল ইসলামের নাম রিটার্নিং অফিসারের কাছে জমা দেওয়া হয়। এমন ভুলের জন্য আমি লজ্জিত-দুঃখিত এবং ক্ষমা প্রার্থী।

ইতোমধ্যে রিটার্নিং অফিসারের কাছে প্রকৃত ঘটনার জবানবন্দি দিয়ে বিজয়ী প্রার্থী ছামিউল শেখকে গেজেটে প্রতিস্থাপনের আবেদন করেছি।

এ ব্যাপারে চাঁচুড়ী ইউপির রিটার্নিং অফিসারের দায়িত্বে থাকা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বিশ্বাস সুজন কুমার বলেন, এটি প্রিসাইডিং অফিসারের অনিচ্ছাকৃত ভুল। সে যে রেজাল্ট শিট জমা দিয়েছে, সেই মোতাবেক আমরা তথ্য পেয়েছি। এ ব্যাপারে তার সঠিক জবানবন্দি নিয়ে ভুক্তভোগী প্রার্থীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিধি মোতাবেক সংশোধিত ফরম-ঠ-২ ও ফরম-ড অনুয়ায়ী নির্বাচিত প্রার্থী ছামিউল শেখকে গেজেটভুক্ত করার জন্য আমারা নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে পাঠিয়েছি। আশা করি শিগগিরই গেজেটটি সংশোধন করে পুনরায় প্রকাশিত করা হবে।

নির্বাচনে হেরেও গেজেটে নাম, এলাকায় চাঞ্চল্য

 নড়াইল প্রতিনিধি  
২৮ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নড়াইলের কালিয়া উপজেলায় বিজয়ী প্রার্থীর পরিবর্তে পরাজিত এক ইউপি সদস্য প্রার্থীর নাম জয়ী দেখিয়ে গেজেট প্রকাশিত হয়েছে। উপজেলার ১২নং চাঁচুড়ী ইউনিয়নের ২নং ওয়াডের্র সাধারণ সদস্য পদে বেসরকারিভাবে ছামিউল শেখকে জয়ী ঘোষণা করা হয়। কিন্তু সরকারি গেজেটে তার নাম অন্তর্ভুক্ত না করে তার নিকটতম পরাজিত প্রার্থী রবিউল ইসলামের নামে গেজেট প্রকাশ করে নির্বাচন অফিস। 

এ ঘটনাকে অনিচ্ছাকৃত ভুল দাবি করেছেন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা। এতে জয়ী প্রার্থী ও তার সমর্থকদের মধ্যে ক্ষোভ এবং এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার চাঁচুড়ী ইউনিয়নের চতুর্থ ধাপে গত ২৮ নভেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ইউপির ২ নম্বর ওয়ার্ডে সদস্য পদে প্রার্থী ছিলেন ছামিউল শেখ (ফুটবল), মহাত্তাপ শেখ (টিউবওয়েল) ও রবিউল ইসলাম (মোরগ)। কৃষ্ণপুর-ডহর চাঁচুড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ওয়ার্ডের ইউপি সদস্যের ভোটগ্রহণ করা হয়। 

এ কেন্দ্রে প্রিসাইডিং অফিসারের দায়িত্বে ছিলেন খামার পারোখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক বিনয় কুমার বিশ্বাস। সদস্য পদে ফুটবল প্রতীকে ছামিউল শেখ ৪৪০ ভোট পেয়ে জয়ী হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রবিউল ইসলাম মোরগ প্রতীক নিয়ে পান ৪৩৩ ভোট। কিন্তু গত ১৯ ডিসেম্বর প্রকাশিত সরকারি বাংলাদেশ গেজেটের অতিরিক্ত সংখ্যায় ১৯৫৩৭নং পৃষ্ঠায় ১নং কলামে রবিউল ইসলামকে বিজয়ী হিসেবে দেখানো হয়। 

ভুল স্বীকার করে প্রিসাইডিং অফিসার বিনয় কুমার বিশ্বাস বলেন, নির্বাচনের দিন ভোট গণনা শেষে প্রার্থীদের এজেন্টদের কাছে ফলাফলের সঠিক তালিকা দেওয়া হয়। কিন্তু রাতে তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে রেজাল্ট শিটে ভুলবশত পরাজিত প্রার্থী রবিউল ইসলামের নাম রিটার্নিং অফিসারের কাছে জমা দেওয়া হয়। এমন ভুলের জন্য আমি লজ্জিত-দুঃখিত এবং ক্ষমা প্রার্থী। 

ইতোমধ্যে রিটার্নিং অফিসারের কাছে প্রকৃত ঘটনার জবানবন্দি দিয়ে বিজয়ী প্রার্থী ছামিউল শেখকে গেজেটে প্রতিস্থাপনের আবেদন করেছি।

এ ব্যাপারে চাঁচুড়ী ইউপির রিটার্নিং অফিসারের দায়িত্বে থাকা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বিশ্বাস সুজন কুমার বলেন, এটি প্রিসাইডিং অফিসারের অনিচ্ছাকৃত ভুল। সে যে রেজাল্ট শিট জমা দিয়েছে, সেই মোতাবেক আমরা তথ্য পেয়েছি। এ ব্যাপারে তার সঠিক জবানবন্দি নিয়ে ভুক্তভোগী প্রার্থীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিধি মোতাবেক সংশোধিত ফরম-ঠ-২ ও ফরম-ড অনুয়ায়ী নির্বাচিত প্রার্থী ছামিউল শেখকে গেজেটভুক্ত করার জন্য আমারা নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে পাঠিয়েছি। আশা করি শিগগিরই গেজেটটি সংশোধন করে পুনরায় প্রকাশিত করা হবে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন