প্রেমের টানে পালিয়ে যাওয়া স্ত্রীকে দেখতে গিয়ে হলেন লাশ

প্রকাশ : ২২ মে ২০১৮, ২১:২৬ | অনলাইন সংস্করণ

  বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি

প্রেমের টানে পরকীয়া প্রেমিকের হাত ধরে পালিয়ে যাওয়া স্ত্রী আবার ফেরত আসার খবরে তাকে দেখতে গিয়ে লাশ হলেন স্বামী। মঙ্গলবার দুপুরে নাটোরের বড়াইগ্রামে তালশো বিলের মাঝের পুকুরপাড় থেকে আলীফ হোসেন নামে এই যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

নিহত আলীফ উপজেলার আদগ্রামের ফয়েজ আলীর ছেলে।  তিনি লক্ষ্মীকোল বাজারের একটি দোকানে মিষ্টি তৈরির কারিগর ছিলেন।খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ, পরিদর্শক (তদন্ত) সৈকত হোসেন ও চেয়ারম্যান মমিন আলী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
  
নিহতের স্বজনরা জানান, সম্প্রতি আলীফের স্ত্রী সোনিয়া ভরতপুর গ্রামের একটি ছেলের সঙ্গে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কলহ চলছিল। 

এরই মধ্যে গত শুক্রবার সোনিয়া পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে যান। তিন দিন পর সোমবার সোনিয়া বাবার বাড়িতে ফিরে আসার খবর পেয়ে আলীফ তার সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে আর বাড়ি ফেরেননি। 

মঙ্গলবার সকালে ধানকাটা শ্রমিকরা শ্বশুরবাড়ির অদূরে বিলের মাঝখানে পুকুরপাড়ে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। পরে খবর পেয়ে দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে। লাশের সারা শরীরে মারপিটের চিহ্ন রয়েছে। 

এদিকে আলীফের লাশ উদ্ধারের পর থেকে তার শ্বশুর জহুরুল ইসলাম পলাতক রয়েছেন বলে জানা গেছে। 

বড়াইগ্রাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সৈকত হোসেন জানান, লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর সঠিক কারণ জানা যাবে।  

তবে প্রাথমিকভাবে অন্য কোথাও পিটিয়ে হত্যার পর হত্যাকারীরা বিলের মধ্যে লাশ ফেলে রেখে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।