দীঘিনালায় ইউপিডিএফের সাবেক কর্মীকে গুলি করে হত্যা

  খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি ২২ মে ২০১৮, ২২:১২ | অনলাইন সংস্করণ

খাগড়াছড়ি ম্যাপ
খাগড়াছড়ি ম্যাপ

খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় উজ্জ্বল কান্তি চাকমা ওরফে মার্শাল(৫৫) নামে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) সাবেক কর্মীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

এই ঘটনায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে ইউপিডিএফ (প্রসীত) ও জেএসএস (এমএন লারমা)।

মঙ্গলবার বিকালে ইউপিডিএফের কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের প্রধান নিরন চাকমা স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এই প্রেস বিবৃতিতে বলা হয়, সোমবার রাত ৯টার দিকে মার্শালকে উপজেলার গুলছড়ি রাখাল মহাজন পাড়ার নিজ বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গুলি করে হত্যা করা হয়। নিহতের বাবার নাম মৃত গৌতম বুজ্জে চাকমা।

এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জন্য জেএসএসকে (এম এন লারমা) দায়ী করেছে প্রসীত খীসার নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফের জেলা সংগঠক অনি চাকমা।

তবে জেএসএসের (এম এন লারমা) কেন্দ্রীয় সহতথ্য ও প্রচার সম্পাদক প্রশান্ত চাকমা বলেন, ইউপিডিএফই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। নিহত মার্শাল ২০০৭ সালে ইউপিডিএফ থেকে বের হয়ে যায়। বিভিন্ন সময় ইউপিডিএফ তাকে দলের নেয়ার চেষ্টা করেছে। পুনরায় দলে টানতে ব্যর্থ হয়ে ইউপিডিএফই (প্রসীত) মার্শালকে হত্যা করেছে। এই ঘটনায় জেএসএস (এম এন লারমা) কোনোভাবেই জড়িত নয়।

ইউপিডিএফের খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের সংগঠক অনি চাকমা সাবেক কর্মী উজ্জ্বল কান্তি চাকমা ওরফে মার্শালকে হত্যার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

খাগড়াছড়ি জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম এম সালাউদ্দিন বলেন, এই বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়ার জন্য দীঘিনালার থানার ওসিকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এই বিষয়ে বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter