সাপে কামড়ানো ছেলের চিকিৎসায় বাধা, অতঃপর...

  চরভদ্রাসন (ফরিদপুর) প্রতিনধি ২২ মে ২০১৮, ২২:১৪ | অনলাইন সংস্করণ

ফরিদপুর

ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে সাপের কামড়ে ফরহাদ হোসেন মোল্যা (১৮) নামে এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার তাকে সাপে কামড় দেয়ার পর হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা না করে বাবা-মা বাড়িতে ফিরিয়ে নিলে মঙ্গলবার সকাল ১০টায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে সে।

নিহত ফরহাদ উপজেলার চরঝাউকান্দা ইউনিয়নের চর কল্যাণপুর গ্রামের নালু মোল্যার ছেলে।

জানা যায়, গত সোমবার সকালে বাড়ির পাশে ফসলি মাঠে গরু চড়াতে গেলে বিষাক্ত সাপ কামড় দেয় তাকে। পরে তাকে চরভদ্রাসন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। কিন্ত হাসপাতালের চিকিৎসকদের কোনো সেবা প্রদান করতে দেয়নি তার পরিবার।

মঙ্গলবার চরভদ্রাসন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক জাহিদ হোসেন জানান, ' সাপের কামড়ে আহত ওই রোগীকে হাসপাতালে আনার পর আমরা বহু আকুতি করেছি তার প্রাথমিক চিকিৎসাসেবা দেয়ার জন্য। কিন্ত রোগীর বাবা-মা আহত ছেলের শরীরে স্যালাইন ও ইনজেকশন পুশ করাতে দেননি। পরে চিকিৎসা ছাড়াই তারা আহত ছেলেকে নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন।'

নিহত ফরহাদের সম্পর্কে চাচা উপজেলা চেয়ারম্যান এ.জি.এম বাদল আমিন বলেন, 'আমি ও আমার সহোদররা মিলে সাপের কামড়ে আহত ফরহাদ হোসেনের বাবা-মাকে অনেক বোঝানোর চেষ্টা করেছি। কিন্তু তার বাবা-মার মধ্যে কুসংস্কার ঘিরে রয়েছে। তারা ছেলে মরে গেলেও স্যালাইন বা ইনজেকশন দিতে দেবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন। ফলে একটা ছেলে এভাবে মৃত্যু হলো।'

জানা যায়, গত বছর বন্যার সময় পাহাড়ি ঢলের পানির সঙ্গে চন্দ্রবোড়া/রাসেল ভাইপার নামে এক প্রকার বিষধর সাপ ভেসে এসে উপজেলা পদ্মা নদীর বিভিন্ন চরে বিস্তার লাভ করেছে।

চরাঞ্চালের কাঁশবন ও ফসলি মাঠে বিষাক্ত সাপের বিচরণ বেশি দেখা গেছে। গত এক বছরে ওই সাপের কামড়ে উপজেলায় ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×