ঋণ দিতে দৈহিক সম্পর্ক স্থাপনের প্রস্তাব!

  যুগান্তর ডেস্ক    ২৮ মে ২০১৮, ২১:৪৩ | অনলাইন সংস্করণ

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন মিনু আরা
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন মিনু আরা। ছবি: যুগান্তর

সোমবার জয়পুরহাটে একটি বেসরকারি সংস্থা (এনজিও) থেকে ৩০ হাজার ঋণ প্রদানের বিনিময়ে দৈহিক মেলামেশার প্রস্তাব দেয়ার অভিযোগ করেছেন এক নারী।

মঙ্গলবার দুপুরে জয়পুরহাট প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে ওই সংস্থার স্থানীয় শাখা ব্যবস্থাপক (ম্যানেজার) বায়েজিদ বোস্তামীর বিরুদ্ধে সদর উপজেলার মঙ্গলবাড়ির পেঁচুলিয়া গ্রামের মিনু আরা নামের এক নারী সদস্য এ অভিযোগ করে।

সংবাদ সম্মেলনে অনৈতিক প্রস্তাবের অডিও রেকর্ডও উপস্থাপন করা হয়।

সম্মেলনে উল্লেখিত অভিযোগ উপস্থাপনকালে জয়পুরহাটের স্থানীয় দোগাছি ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য আবদুল মতিন, প্রতিবেশী রিনা আক্তার, মেহেরুন্নেছা, মর্জিনা বেগম, অভিযোগকারী মিনু আরার স্বামী ওষুধ ব্যবসায়ী সোহেল রানা, আরিফ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মিনু আরা অভিযোগ করেন, জয়পুরহাটের পার্শ্ববর্তী নওগাঁর ধামরহাট উপজেলার মঙ্গলবাড়ী বাজারে ওই এনজিওর স্থানীয় ব্যবস্থাপক বায়েজিদ বোস্তামীর কাছে ৩০ হাজার টাকা ঋণের আবেদন করেন। এ সময় ঋণ প্রদানের বিনিমিয়ে ফাঁকা বাড়িতে নিয়ে গিয়ে দৈহিক সম্পর্ক স্থাপনের কুপ্রস্তাব দেন।

পরে ওই ব্যবস্থাপক মোবাইল ফোনেও তাকে অশালীন কথা বলে কুপ্রস্তাব দেন। যে কথা মিনু আরা কৌশলে তার মোবাইল ফোনে অডিও (ভয়েজ কল) রেকর্ড করেন।

এ ঘটনায় ধামইরহাট থানায় তিনি ওই ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে মামলাও করেছেন। কিন্তু এখনো তাকে গ্রেফতার করা হয়নি। উপরন্ত ওই ব্যবস্থাপক নানাভাবে তাকে মামলা তুলে নিতে হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে মিনু আরা অবিলম্বে ওই ব্যবস্থাপককে গ্রেফতারের দাবি জানান।

পাশাপাশি তিনি অভিযোগ করেন, ওই ব্যবস্থাপক তাকে অনৈতিক প্রস্তাব দেয়ার পর বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়। পরে এ নিয়ে ব্যবস্থাপক বায়েজিদ বোস্তামী মীমাংসার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে নিজের দোষ ঢাকতে উল্টো মারপিট ও চাঁদা দাবির অভিযোগে তার স্বামীসহ কয়েকজন ব্যবসায়ীকে আসামি করে ধামরহাট থানায় সংস্থার প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে দিয়ে একটি মামলা করিয়েছেন, যা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

 

 

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter