তালা মারা ঘরে খাটের নিচে গৃহবধূর লাশ
jugantor
তালা মারা ঘরে খাটের নিচে গৃহবধূর লাশ

  চাঁদপুর প্রতিনিধি  

১৭ মে ২০২২, ২০:৪৫:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁদপুরে তালা মারা ঘরে খাটের নিচ থেকে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে চাঁদপুর সদর উপজেলার ২নং আশিকাটি ইউনিয়নের দক্ষিণ আশিকাটি গ্রাম থেকে শাপলা আক্তার রিমি নামে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হয়। তবে তার স্বামীকে পাওয়া যায়নি।

নিহত গৃহবধূ ময়মনসিংহ জেলার চরকুমারিয়া গ্রামের ইদ্রিস আলীর মেয়ে। তার স্বামী শাহপরান গাজী পাশের শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের পাইকদি গ্রামের শহর গাজীর ছেলে। তারা চাঁদপুরের ওই বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- স্বামী তাকে হত্যা করে খাটের নিচে লাশ ফেলে পালিয়েছেন।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরে ওই দম্পতির ঘরে বাইরে থেকে তালা মারা দেখতে পান পাশের বাসার এক ভাড়াটিয়া। তবে জানালার পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় ভেতরে তাকাতেই খাটের নিচে রিমিকে পড়ে থাকতে দেখেন তিনি। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আসিফ মহিউদ্দীন, মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদ, পিবিআই ও সিআইডির কর্মকর্তারা। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করা হয়।

চাঁদপুর মডেল থানার ওসি আব্দুর রশিদ বলেন, এক মাস আগে শাহাপরান গাজী এনায়েত পাটোয়ারি বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নেন তারা। নিহতের গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে- রাতের কোনো এক সময় স্ত্রী রিমিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন স্বামী। পরে লাশ ফেলে পালিয়ে যান তিনি।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের স্বামী শাহপরান গাজীকে আটকের চেষ্টা চলছে।

তালা মারা ঘরে খাটের নিচে গৃহবধূর লাশ

 চাঁদপুর প্রতিনিধি 
১৭ মে ২০২২, ০৮:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁদপুরে তালা মারা ঘরে খাটের নিচ থেকে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে চাঁদপুর সদর উপজেলার ২নং আশিকাটি ইউনিয়নের দক্ষিণ আশিকাটি গ্রাম থেকে শাপলা আক্তার রিমি নামে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হয়। তবে তার স্বামীকে পাওয়া যায়নি।

নিহত গৃহবধূ ময়মনসিংহ জেলার চরকুমারিয়া গ্রামের ইদ্রিস আলীর মেয়ে। তার স্বামী শাহপরান গাজী পাশের শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের পাইকদি গ্রামের শহর গাজীর ছেলে। তারা চাঁদপুরের ওই বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- স্বামী তাকে হত্যা করে খাটের নিচে লাশ ফেলে পালিয়েছেন।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরে ওই দম্পতির ঘরে বাইরে থেকে তালা মারা দেখতে পান পাশের বাসার এক ভাড়াটিয়া। তবে জানালার পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় ভেতরে তাকাতেই খাটের নিচে রিমিকে পড়ে থাকতে দেখেন তিনি। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আসিফ মহিউদ্দীন, মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদ, পিবিআই ও সিআইডির কর্মকর্তারা। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করা হয়।

চাঁদপুর মডেল থানার ওসি আব্দুর রশিদ বলেন, এক মাস আগে শাহাপরান গাজী এনায়েত পাটোয়ারি বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নেন তারা। নিহতের গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে- রাতের কোনো এক সময় স্ত্রী রিমিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন স্বামী। পরে লাশ ফেলে পালিয়ে যান তিনি।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের স্বামী শাহপরান গাজীকে আটকের চেষ্টা চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন