নরসিংদীতে তরুণীকে হেনস্তা করার ঘটনায় আটক যুবক কারাগারে
jugantor
নরসিংদীতে তরুণীকে হেনস্তা করার ঘটনায় আটক যুবক কারাগারে

  নরসিংদী প্রতিনিধি   

২২ মে ২০২২, ০৩:২০:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

আধুনিক পোশাক পড়াকে কেন্দ্র করে নরসিংদী স্টেশনে এক তরুণীকে হেনস্তা করার ঘটনায় আটক যুবক ইসমাইল হোসেনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

শনিবার সন্ধ্যায় জেলার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম দ্বিতীয় আদালতের বিচারক মেহেদী হাসান তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

ভৈরব রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফেরদৌস আহমেদ বিশ্বাস সাংবাদিকদের বলেছেন, শুক্রবার রাতে সিসিটিভির ফুটেজ দেখে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশন এলাকা থেকে ইসমাইলকে আটক করে ডিবি পুলিশ। পরে তাকে ভৈরব থানায় হস্তান্তর করা হয়।

ওসি ফেরদৌস আহমেদ আরও বলেছেন, আটক যুবকের বিরুদ্ধে হেনন্তার শিকার কেউ অভিযোগ করেননি। শনিবার বিকেল পর্যন্ত আমরা অপেক্ষা করেছি। পরে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। বিচারক তখন ফৌজদারি আইনের ৫৪ ধারায় তাকে কারাগারে পাঠান।
রেলওয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জ ইমায়েদুল জাহিদী বলেন, আমরা ভাইরাল হওয়া ভিডিও দেখে হেনন্তার শিকার তরুণীর সঙ্গে থাকা এক তরুণকে শনাক্ত করেছি। তাকে ফোন করে রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে এসে অভিযোগ জানাতে বলা হয়েছিল, তবে তিনি জানিয়েছেন, তারা থানা-পুলিশে জড়াবেন না। এর পর থেকে তার মোবাইল বন্ধ।

উল্লেখ বুধবার ঢাকা থেকে দুই যুবক ও এক তরুণী নরসিংদীতে বেড়াতে আসেন। ট্র্রেন থেকে নেমে তারা স্টেশনে অবস্থান করছিলেন। ওই সময় এক মহিলা তাদের পোশাক দেখে বাজে ও নোংরা মন্তব্য করেন।

একপর্যায়ে স্টেশনের স্থানীয় ওই বখাটে সহ ওই মহিলা তরুণী ও যুবককে মারধর শুরু করেন এবং মেয়েটির পোশাক ধরে টানাটানি করেন। তারা নিরুপায় হয়ে স্টেশন মাস্টারের রুমে আশ্রয় নেন।

তরুণীকে হেনস্তা করার ভিডিও ভাইরাল হলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমে নিন্দার ঝড় ওঠে। নেটিজেনরা এ ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি দাবি করেন।

নরসিংদীতে তরুণীকে হেনস্তা করার ঘটনায় আটক যুবক কারাগারে

 নরসিংদী প্রতিনিধি  
২২ মে ২০২২, ০৩:২০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আধুনিক পোশাক পড়াকে কেন্দ্র করে নরসিংদী স্টেশনে এক তরুণীকে হেনস্তা করার ঘটনায় আটক যুবক ইসমাইল হোসেনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। 

শনিবার সন্ধ্যায় জেলার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম দ্বিতীয় আদালতের বিচারক মেহেদী হাসান তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

ভৈরব রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফেরদৌস আহমেদ বিশ্বাস সাংবাদিকদের বলেছেন, শুক্রবার রাতে সিসিটিভির ফুটেজ দেখে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশন এলাকা থেকে ইসমাইলকে আটক করে ডিবি পুলিশ। পরে তাকে ভৈরব থানায় হস্তান্তর করা হয়। 

ওসি ফেরদৌস আহমেদ আরও বলেছেন, আটক যুবকের বিরুদ্ধে হেনন্তার শিকার কেউ অভিযোগ করেননি। শনিবার বিকেল পর্যন্ত আমরা অপেক্ষা করেছি। পরে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। বিচারক তখন ফৌজদারি আইনের ৫৪ ধারায় তাকে কারাগারে পাঠান।
রেলওয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জ ইমায়েদুল জাহিদী বলেন, আমরা ভাইরাল হওয়া ভিডিও দেখে হেনন্তার শিকার তরুণীর সঙ্গে থাকা এক তরুণকে শনাক্ত করেছি। তাকে ফোন করে রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে এসে অভিযোগ জানাতে বলা হয়েছিল, তবে তিনি জানিয়েছেন, তারা থানা-পুলিশে জড়াবেন না। এর পর থেকে তার মোবাইল বন্ধ।

উল্লেখ বুধবার ঢাকা থেকে দুই যুবক ও এক তরুণী  নরসিংদীতে বেড়াতে আসেন। ট্র্রেন থেকে নেমে তারা স্টেশনে অবস্থান করছিলেন। ওই সময় এক মহিলা তাদের পোশাক দেখে বাজে ও নোংরা মন্তব্য করেন। 

একপর্যায়ে স্টেশনের স্থানীয় ওই বখাটে সহ ওই মহিলা তরুণী ও যুবককে মারধর শুরু করেন এবং মেয়েটির পোশাক ধরে টানাটানি করেন। তারা নিরুপায় হয়ে স্টেশন মাস্টারের রুমে আশ্রয় নেন। 

তরুণীকে হেনস্তা করার ভিডিও ভাইরাল হলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমে নিন্দার ঝড় ওঠে। নেটিজেনরা এ ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি দাবি করেন। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন