দিন-দুপুরে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা
jugantor
দিন-দুপুরে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

  লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি  

২৩ জুন ২০২২, ০০:৩৫:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলায় আধিপত্যের জের ধরে আজিবর বিশ্বাস (৩৫) নামে এক ব্যবসায়ীকে দিন-দুপুরে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা।

বুধবার দুপুরে উপজেলার শালনগর ইউনিয়নের রামকান্তপুর গ্রামের সবুর মোল্যার ঘরের মধ্যে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। বিকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

নিহত আজিবর বিশ্বাস লোহাগড়া পৌরসভার মদিনাপাড়া গ্রামের গফুর বিশ্বাসের ছেলে। তিনি তার শ্বশুরবাড়ি এলাকা রামকান্তপুর গ্রামে বাড়ি করে দীর্ঘ দিন ধরে বসবাস করতেন।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ও রামকান্তপুর গ্রামের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যান লাবু মিয়ার সমর্থক আজিবর বিশ্বাসের সঙ্গে সাবেক চেয়ারম্যান তসলু খানের সমর্থক মিঠু সরদারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। গত কয়েকদিন আগে এলাকার এক কৃষকের একটি শ্যালো মেশিন চুরি হয়। চুরির ঘটনায় প্রতিপক্ষ মিঠু সরদার আজিবরকে চোর দোষারোপ করে তার ছবি ফেসবুকে ছেড়ে দেয়।

এ ঘটনায় আজিবর ক্ষিপ্ত হয়ে মিঠুকে মারপিট করে আহত করে। মিঠু আজিবরের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করে। আজিবর ওই মামলায় কয়েকদিন হাজতবাস করে গত রোববার (১৯ জুন) জামিনে বাড়ি আসেন।

বুধবার দুপুরে আজিবর স্থানীয় শিয়রবর হাট থেকে ভ্যানযোগে বাড়ি ফেরার পথে রামকান্তপুর গ্রামের তালতলা নামক স্থানে পৌঁছালে সবুর মোল্যার বাড়ির কাছে পৌঁছালে পূর্ব থেকে ওত পেতে থাকা মিঠু সরদারের নেতৃত্বে সিজান সরদার, রুবায়েত সরদার, বক্কার সরদার, ইব্রাহীম সরদার, ইমন সরদারসহ ১০-১২ জন তাকে ধাওয়া করে। এ সময় আজিবর প্রাণ ভয়ে ভ্যান থেকে নেমে দৌড়ে রাস্তার পাশে সবুর মোল্যার ঘরের মধ্যে আশ্রয় নেয়।

হামলাকারীরা ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে আজিবরকে এলোপাতাড়িভাবে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে লোহাগড়া হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

লোহাগড়া থানার ওসি শেখ আবু হেনা মিলন হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পূর্ব বিরোধের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। বর্তমান ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশি জোর অভিযান চলছে।

দিন-দুপুরে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

 লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি 
২৩ জুন ২০২২, ১২:৩৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলায় আধিপত্যের জের ধরে আজিবর বিশ্বাস (৩৫) নামে এক ব্যবসায়ীকে দিন-দুপুরে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা।

বুধবার দুপুরে উপজেলার শালনগর ইউনিয়নের রামকান্তপুর গ্রামের সবুর মোল্যার ঘরের মধ্যে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। বিকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

নিহত আজিবর বিশ্বাস লোহাগড়া পৌরসভার মদিনাপাড়া গ্রামের গফুর বিশ্বাসের ছেলে। তিনি তার শ্বশুরবাড়ি এলাকা রামকান্তপুর গ্রামে বাড়ি করে দীর্ঘ দিন ধরে বসবাস করতেন। 

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ও রামকান্তপুর গ্রামের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যান লাবু মিয়ার সমর্থক আজিবর বিশ্বাসের সঙ্গে সাবেক চেয়ারম্যান তসলু খানের সমর্থক মিঠু সরদারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। গত কয়েকদিন আগে এলাকার এক কৃষকের একটি শ্যালো মেশিন চুরি হয়। চুরির ঘটনায় প্রতিপক্ষ মিঠু সরদার আজিবরকে চোর দোষারোপ করে তার ছবি ফেসবুকে ছেড়ে দেয়।

এ ঘটনায় আজিবর ক্ষিপ্ত হয়ে মিঠুকে মারপিট করে আহত করে। মিঠু আজিবরের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করে। আজিবর ওই মামলায় কয়েকদিন হাজতবাস করে গত রোববার (১৯ জুন) জামিনে বাড়ি আসেন।

বুধবার দুপুরে আজিবর স্থানীয় শিয়রবর হাট থেকে ভ্যানযোগে বাড়ি ফেরার পথে রামকান্তপুর গ্রামের তালতলা নামক স্থানে পৌঁছালে সবুর মোল্যার বাড়ির কাছে পৌঁছালে পূর্ব থেকে ওত পেতে থাকা মিঠু সরদারের নেতৃত্বে সিজান সরদার, রুবায়েত সরদার, বক্কার সরদার, ইব্রাহীম সরদার, ইমন সরদারসহ ১০-১২ জন তাকে ধাওয়া করে। এ সময় আজিবর প্রাণ ভয়ে ভ্যান থেকে নেমে দৌড়ে রাস্তার পাশে সবুর মোল্যার ঘরের মধ্যে আশ্রয় নেয়।

হামলাকারীরা ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে আজিবরকে এলোপাতাড়িভাবে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে লোহাগড়া হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

লোহাগড়া থানার ওসি শেখ আবু হেনা মিলন হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পূর্ব বিরোধের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। বর্তমান ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশি জোর অভিযান চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন