অস্ত্রের উৎসের সন্ধান জানতে জিহানকে খুঁজছে পুলিশ
jugantor
অস্ত্রের উৎসের সন্ধান জানতে জিহানকে খুঁজছে পুলিশ

  চট্টগ্রাম ব্যুরো  

২৩ জুন ২০২২, ২১:২৮:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় বসতঘর থেকে পাঁচটি ওয়ান শুটারগান উদ্ধারের ঘটনায় জিহান নামে এক যুবককে খুজঁছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তাকে পাওয়া গেলে অস্ত্রের উৎসের সন্ধান পাওয়া যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। এজন্য ওই যুবককে গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।জিহানের বিরুদ্ধেও অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসার অভিযোগে মামলা রয়েছে।

জিহান লোহাগাড়া উপজেলা পদুয়া ইউনিয়নের মেহের আলী মুন্সিপাড়ার মঞ্জুর আহমদের পুত্র। এছাড়া এসব অস্ত্র ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে পারভেজ নামে আরও একজন জড়িত রয়েছে। কিছুদিন আগেও পারভেজ ইয়াবাসহ পুলিশ গ্রেফতার হয়েছিল। লোহাগাড়া থানায় জিহানের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করেছে র‌্যাব। মামলাটি তদন্ত করছেন লোহাগাড়া থানার পরিশদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্র জানায়, জিহান, রিয়াদ, ইকবাল অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসায়ী। তাদের রয়েছে একটি শক্তিশালী কিশোর গ্যাং। যাদের হাতে অস্ত্র তুলে দিয়ে তারা এলাকায় নানা অপকর্ম করে বেড়াত। বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র দখলে যে অস্ত্রেও ঝনঝনানি হয়েছে এর সঙ্গেও জড়িত এই গ্রুপটি। এলাকায় প্রভাব বিস্তার, জমি দখল কিংবা প্রতিপক্ষকে শায়েস্তা করার প্রয়োজন হলেই ডাক পড়ত লোহাগাড়ার পদুয়া এলাকার রিয়াদ ও জিহানের। তারা কখনো সে আগ্নেয়াস্ত্র ভাড়া দিত, কখনো অস্ত্র হাতে নিজেরা ভাড়ায় খাটত। অস্ত্রের জোরে এলাকায় কায়েম করেছিল ত্রাসের রাজত্ব। গড়ে তুলেছিল শক্তিশালি মাদক সিন্ডিকেট। নিজেদের বসতঘরকে বানিয়েছিল মিনি অস্ত্রাগার। তাদের ত্রাসের বিরুদ্ধে কেউ কথা বলার সাহস পেত না।

গত রোববার র‌্যাব অভিযান চালিয়ে বসতঘর থেকে পাঁচটি ওয়ান শুটারগানসহ রিয়াদকে গ্রেফতার করে। কিন্তু কৌশলে জিহান ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। এরপর থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাকে খুঁজছে। বিভিন্ন জায়গা অভিযানও চালিয়েছে।

লোহাগাড়া থানার পরিশদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, র‌্যাবের অস্ত্র মামলায় পলাতক আসামি জিহানকে এখনো গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। তাকে খোঁজা হচ্ছে। তাকে পাওয়া গেলে অস্ত্রের উৎসের সন্ধান পাওয়া যাবে।

অস্ত্রের উৎসের সন্ধান জানতে জিহানকে খুঁজছে পুলিশ

 চট্টগ্রাম ব্যুরো 
২৩ জুন ২০২২, ০৯:২৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় বসতঘর থেকে পাঁচটি ওয়ান শুটারগান উদ্ধারের ঘটনায় জিহান নামে এক যুবককে খুজঁছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তাকে পাওয়া গেলে অস্ত্রের উৎসের সন্ধান পাওয়া যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। এজন্য ওই যুবককে গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। জিহানের বিরুদ্ধেও অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসার অভিযোগে মামলা রয়েছে। 

জিহান লোহাগাড়া উপজেলা পদুয়া ইউনিয়নের মেহের আলী মুন্সিপাড়ার মঞ্জুর আহমদের পুত্র। এছাড়া এসব অস্ত্র ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে পারভেজ নামে আরও একজন জড়িত রয়েছে। কিছুদিন আগেও পারভেজ ইয়াবাসহ পুলিশ গ্রেফতার হয়েছিল। লোহাগাড়া থানায় জিহানের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করেছে র‌্যাব। মামলাটি তদন্ত করছেন লোহাগাড়া থানার পরিশদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম। 
 
আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্র জানায়, জিহান, রিয়াদ, ইকবাল অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসায়ী। তাদের রয়েছে একটি শক্তিশালী কিশোর গ্যাং। যাদের হাতে অস্ত্র তুলে দিয়ে তারা এলাকায় নানা অপকর্ম করে বেড়াত। বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র দখলে যে অস্ত্রেও ঝনঝনানি হয়েছে এর সঙ্গেও জড়িত এই গ্রুপটি। এলাকায় প্রভাব বিস্তার, জমি দখল কিংবা প্রতিপক্ষকে শায়েস্তা করার প্রয়োজন হলেই ডাক পড়ত লোহাগাড়ার পদুয়া এলাকার রিয়াদ ও জিহানের। তারা কখনো সে আগ্নেয়াস্ত্র ভাড়া দিত, কখনো অস্ত্র হাতে নিজেরা ভাড়ায় খাটত। অস্ত্রের জোরে এলাকায় কায়েম করেছিল ত্রাসের রাজত্ব। গড়ে তুলেছিল শক্তিশালি মাদক সিন্ডিকেট। নিজেদের বসতঘরকে বানিয়েছিল মিনি অস্ত্রাগার। তাদের ত্রাসের বিরুদ্ধে কেউ কথা বলার সাহস পেত না।

গত রোববার র‌্যাব অভিযান চালিয়ে বসতঘর থেকে পাঁচটি ওয়ান শুটারগানসহ রিয়াদকে গ্রেফতার করে। কিন্তু কৌশলে জিহান ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। এরপর থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাকে খুঁজছে। বিভিন্ন জায়গা অভিযানও চালিয়েছে।

লোহাগাড়া থানার পরিশদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, র‌্যাবের অস্ত্র মামলায় পলাতক আসামি জিহানকে এখনো গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। তাকে খোঁজা হচ্ছে। তাকে পাওয়া গেলে অস্ত্রের উৎসের সন্ধান পাওয়া যাবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন