বিষে মারা গেল অর্ধশতাধিক ঘুঘু
jugantor
বিষে মারা গেল অর্ধশতাধিক ঘুঘু

  চাঁদপুর প্রতিনিধি  

২৯ জুন ২০২২, ০৪:২৩:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁদপুরের হাইমচরে কৃষি জমিতে বিষ প্রয়োগের ফলে অর্ধশতাধিক ঘুঘু পাখি মারা গেছে বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার (২৮ জুন ) হাইমচর উপজেলার ৩নং আলগী দুর্গাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের চরপোড়ামুখী গ্রামের ফসলের মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

পরে স্থানীয় লোকজন ও শিশুরা মৃত পাখিগুলো উদ্ধার করে বিভিন্ন জায়গায় ফেলে দেয়। এতে সচেতন মানুষের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

সরেজমিনে দেখা যায়, ফসলি মাঠ ও বিভিন্ন গাছপালায় পাখিগুলো বিষক্রিয়ায় মরে পড়ে আছে।

ধান বীজতলা রোপণকারী কৃষক আলী উকিল বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। তবে কে বা কারা বিষ প্রয়োগ করেছে তা আমার জানা নাই। আমাকে ফাঁসানোর জন্য কেউ একজন ফেলে রেখে গেছে।

উপজেলা বনবিভাগ কর্মকর্তা বিল্লাল হোসেন কাজী জানান, আমরা বন্যপ্রাণী আহত বা আক্রান্ত হলে ব্যবস্থা নিয়ে থাকি। তবে ফসলি জমিতে পাখি মারা গেলে আমাদের কিছু করার থাকে না। এটি কৃষি বিভাগের আওতায় পড়ে। তারাই ব্যবস্থা নেবে।

হাইমচর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দেবব্রত সরকার বলেন, বিষ প্রয়োগ করে ঘুঘুসহ পাখি মারা শুধু অপরাধই নয়, পরিবেশের জন্যও অত্যন্ত ক্ষতিকর। ঘটনাটি আমাদের জানা নাই। তবে যারা এ অমানবিক কাজ করেছে, আমরা খোঁজখবর নেব। কৃষক দোষী হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিষে মারা গেল অর্ধশতাধিক ঘুঘু

 চাঁদপুর প্রতিনিধি 
২৯ জুন ২০২২, ০৪:২৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁদপুরের হাইমচরে কৃষি জমিতে বিষ প্রয়োগের ফলে অর্ধশতাধিক ঘুঘু পাখি মারা গেছে বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার (২৮ জুন ) হাইমচর উপজেলার ৩নং আলগী দুর্গাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের চরপোড়ামুখী গ্রামের ফসলের মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

পরে স্থানীয় লোকজন ও শিশুরা মৃত পাখিগুলো উদ্ধার করে বিভিন্ন জায়গায় ফেলে দেয়। এতে সচেতন মানুষের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

সরেজমিনে দেখা যায়, ফসলি মাঠ ও বিভিন্ন গাছপালায় পাখিগুলো বিষক্রিয়ায় মরে পড়ে আছে।

ধান বীজতলা রোপণকারী কৃষক আলী উকিল বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। তবে কে বা কারা বিষ প্রয়োগ করেছে তা আমার জানা নাই। আমাকে ফাঁসানোর জন্য কেউ একজন ফেলে রেখে গেছে। 

উপজেলা বনবিভাগ কর্মকর্তা বিল্লাল হোসেন কাজী জানান, আমরা বন্যপ্রাণী আহত বা আক্রান্ত হলে ব্যবস্থা নিয়ে থাকি। তবে ফসলি জমিতে পাখি মারা গেলে আমাদের কিছু করার থাকে না। এটি কৃষি বিভাগের আওতায় পড়ে। তারাই ব্যবস্থা নেবে। 

হাইমচর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দেবব্রত সরকার বলেন, বিষ প্রয়োগ করে ঘুঘুসহ পাখি মারা শুধু অপরাধই নয়, পরিবেশের জন্যও অত্যন্ত ক্ষতিকর। ঘটনাটি আমাদের জানা নাই। তবে যারা এ অমানবিক কাজ করেছে, আমরা খোঁজখবর নেব। কৃষক দোষী হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন