ক্লাস না করে আড্ডা, শিক্ষক শাসন করায় ছাত্রীর আত্মহত্যা
jugantor
ক্লাস না করে আড্ডা, শিক্ষক শাসন করায় ছাত্রীর আত্মহত্যা

  লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  

৩০ জুন ২০২২, ১৩:৪৩:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

সকালে স্কুলে গিয়ে দুপুরে বাড়িতে আসার পর নিজ ঘর থেকে উর্মী আক্তার অহনা (১৪) নামে এক স্কুলছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার দুপুরে কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার সিংজোড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সংলগ্ন বেড়িবাঁধ এলাকার নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আক্তার অহনা সিংজোড় বেড়িবাঁধ এলাকার জাফর আহমেদের মেয়ে এবং ইছাপুরা সেন্ট্রাল হাইস্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত কয়েক দিন আগে অহনা স্কুলে গিয়ে ক্লাস না করে পাশের একটি বাড়ির রাস্তায় কয়েকজন সহপাঠীর সঙ্গে আড্ডা দেয়। অহনা ক্লাসে অনুপস্থিত ও বিষয়টি বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা জানতে পেরে তাকে ডেকে এনে ক্লাসে বকাঝকা দেন। পাশাপাশি তার বাবা- মাকে বিদ্যালয়ে আসার জন্য অনুরোধ করেন শিক্ষকরা।

বুধবার অহনাকে নিয়ে বিদ্যালয়ে আসেন তার বাবা-মা। তাদের মেয়ে অহনা নিয়মিত ক্লাস না করে বিদ্যালয়ের বাইরে আড্ডা দেয়। বিষয়গুলো নিয়ে তার বাবা-মাকে মেয়ের বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। ওই দিন দুপুরে বিদ্যালয় থেকে বাড়িতে আসার সময় বাবা-মায়ের সঙ্গে অহনার কথা কাটাকাটি হয়।

দুপুর ১টার দিকে বাড়িতে এসে নিজ ঘরের দরজা বন্ধ করে গলায় ফাঁস দেয়। পরে দরজা ভেঙে ওড়না পেঁচানো অবস্থায় তার লাশ ঝুলতে দেখতে পান স্বজনরা। এর পর পুলিশকে খবর দিলে লাশ উদ্ধার করে।

ইছাপুরা সেন্ট্রাল হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আবুল ফয়েজ বলেন, অহনা কয়েক দিন ধরে ক্লাস না করে বাইরে তার সহপাঠীদের সঙ্গে আড্ডা দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে তার পরিবারের সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা মেয়েকে নিয়ে বাড়িতে চলে যায়। বিকালে খবর পেয়েছি সেই ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে।

লাকসাম থানার ওসি মেজবাহ উদ্দিন ভূঁইয়া যুগান্তরকে বলেন, স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হচ্ছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে বিস্তারিত বলা যাবে।

ক্লাস না করে আড্ডা, শিক্ষক শাসন করায় ছাত্রীর আত্মহত্যা

 লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি 
৩০ জুন ২০২২, ০১:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সকালে স্কুলে গিয়ে দুপুরে বাড়িতে আসার পর নিজ ঘর থেকে উর্মী আক্তার অহনা (১৪) নামে এক স্কুলছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার দুপুরে কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার সিংজোড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সংলগ্ন বেড়িবাঁধ এলাকার নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত আক্তার অহনা সিংজোড় বেড়িবাঁধ এলাকার জাফর আহমেদের মেয়ে এবং ইছাপুরা সেন্ট্রাল হাইস্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী। 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত কয়েক দিন আগে অহনা স্কুলে গিয়ে ক্লাস না করে পাশের একটি বাড়ির রাস্তায় কয়েকজন সহপাঠীর সঙ্গে আড্ডা দেয়। অহনা ক্লাসে অনুপস্থিত ও বিষয়টি বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা জানতে পেরে তাকে ডেকে এনে ক্লাসে বকাঝকা দেন। পাশাপাশি তার বাবা- মাকে বিদ্যালয়ে আসার জন্য অনুরোধ করেন শিক্ষকরা।

বুধবার অহনাকে নিয়ে বিদ্যালয়ে আসেন তার বাবা-মা। তাদের মেয়ে অহনা নিয়মিত ক্লাস না করে বিদ্যালয়ের বাইরে আড্ডা দেয়। বিষয়গুলো নিয়ে তার বাবা-মাকে মেয়ের বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। ওই দিন দুপুরে বিদ্যালয় থেকে বাড়িতে আসার সময় বাবা-মায়ের সঙ্গে অহনার কথা কাটাকাটি হয়। 

দুপুর ১টার দিকে বাড়িতে এসে নিজ ঘরের দরজা বন্ধ করে গলায় ফাঁস দেয়। পরে দরজা ভেঙে ওড়না পেঁচানো অবস্থায় তার লাশ ঝুলতে দেখতে পান স্বজনরা। এর পর পুলিশকে খবর দিলে লাশ উদ্ধার করে।

ইছাপুরা সেন্ট্রাল হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আবুল ফয়েজ বলেন, অহনা কয়েক দিন ধরে ক্লাস না করে বাইরে তার সহপাঠীদের সঙ্গে আড্ডা দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে তার পরিবারের সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা মেয়েকে নিয়ে বাড়িতে চলে যায়। বিকালে খবর পেয়েছি সেই ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। 

লাকসাম থানার ওসি মেজবাহ উদ্দিন ভূঁইয়া যুগান্তরকে বলেন, স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হচ্ছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে বিস্তারিত বলা যাবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন