ভক্তের স্ত্রী নিয়ে উধাও ফকির ‘খেতা শাহ’
jugantor
ভক্তের স্ত্রী নিয়ে উধাও ফকির ‘খেতা শাহ’

  ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

০২ জুলাই ২০২২, ২০:৫৬:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের তারাকান্দায় এক কথিত আধ্যাত্মিক ফকিরের বিরুদ্ধে ভক্তের স্ত্রীকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার ৯ দিন পর ভক্ত বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে তারাকান্দা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

জানা যায়, তারাকান্দা উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের টিকুরিয়া গ্রামের যুবক শফিকুল ইসলামের সাথে প্রায় দেড় মাস আগে নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলার হীরনপুর গ্রামের ফজলুল হক তালুকদার (৬০) ওরফে কথিত আধ্যাত্মিক ফকির খেতা শাহের পরিচয় হয়। পরে শফিকুল ইসলাম খেতা শাহকে গুরু মেনে ভক্ত হয়ে যান। কিছুদিন পর খেতা শাহ ফকির ভক্ত শফিকুল ইসলামের বাড়িতে বেড়াতে এসে অবস্থান করছিলেন। গত ২২ জুন শফিকুল ইসলামের স্ত্রী বাবার বাড়ি ধোবাউড়ায় বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে খেতা শাহ্ ফকিরকে নিয়ে বের হয়ে যান। এরপর থেকে তারা নিখোঁজ রয়েছেন। এ ঘটনায় শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে শুক্রবার গভীর রাতে তারাকান্দা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে শফিকুল ইসলাম জানান, বিশ্বাস করে খেতা শাহকে বাড়িতে থাকতে দিয়েছিলাম। সে আমার স্ত্রী ও ঘরে থাকা ৯০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছে। বর্তমানে সংসারের তিনটি সন্তান নিয়ে খুবই বিপদে রয়েছি।

তারাকান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল খায়ের জানান, এ বিষয়ে অভিযোগ পাওয়ার পর তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ভক্তের স্ত্রী নিয়ে উধাও ফকির ‘খেতা শাহ’

 ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
০২ জুলাই ২০২২, ০৮:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের তারাকান্দায় এক কথিত আধ্যাত্মিক ফকিরের বিরুদ্ধে ভক্তের স্ত্রীকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার ৯ দিন পর ভক্ত বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে তারাকান্দা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

জানা যায়, তারাকান্দা উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের টিকুরিয়া গ্রামের যুবক শফিকুল ইসলামের সাথে প্রায় দেড় মাস আগে নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলার হীরনপুর গ্রামের ফজলুল হক তালুকদার (৬০) ওরফে কথিত আধ্যাত্মিক ফকির খেতা শাহের পরিচয় হয়। পরে শফিকুল ইসলাম খেতা শাহকে গুরু মেনে ভক্ত হয়ে যান। কিছুদিন পর খেতা শাহ ফকির ভক্ত শফিকুল ইসলামের বাড়িতে বেড়াতে এসে অবস্থান করছিলেন। গত ২২ জুন শফিকুল ইসলামের স্ত্রী বাবার বাড়ি ধোবাউড়ায় বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে খেতা শাহ্ ফকিরকে নিয়ে বের হয়ে যান। এরপর থেকে তারা নিখোঁজ রয়েছেন। এ ঘটনায় শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে শুক্রবার গভীর রাতে তারাকান্দা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে শফিকুল ইসলাম জানান, বিশ্বাস করে খেতা শাহকে বাড়িতে থাকতে দিয়েছিলাম। সে আমার স্ত্রী ও ঘরে থাকা ৯০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছে। বর্তমানে সংসারের তিনটি সন্তান নিয়ে খুবই বিপদে রয়েছি। 

তারাকান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল খায়ের জানান, এ বিষয়ে অভিযোগ পাওয়ার পর তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন