কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি নিয়ে বিতর্ক
jugantor
কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি নিয়ে বিতর্ক

  কুমিল্লা ব্যুরো   

২৫ জুলাই ২০২২, ২২:১১:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. মহিউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম রুবেল

কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে চান্দিনা উপজেলা ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি মো. মহিউদ্দিনকে সভাপতি ও সাইফুল ইসলাম রুবেলকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৪ সদস্যের আংশিক কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

রোববার রাতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত ছাত্রলীগের দলীয় প্যাডে আগামী এক বছরের জন্য ওই কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

নবগঠিত কমিটির সভাপতি মো. মহিউদ্দিন চান্দিনা উপজেলার মাইজখার ইউনিয়নের মোহাম্মদ উল্লাহর ছেলে। তিনি চান্দিনা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি। মহিউদ্দিন বিবাহিত এবং তার বিরুদ্ধে যৌতুক ও নারী নির্যাতনের মামলা রয়েছে।

সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম রুবেল দেবিদ্বার উপজেলার বরকামতা ইউনিয়নের প্রেমু গ্রামের সফিকুল ইসলামের ছেলে। স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতারা জানান, রুবেলকে এর আগে রাজনীতির মাঠে সক্রিয় দেখা যায়নি।

কমিটিতে তোফাজ্জল হোসেন সাদ্দাম, মেহেদী হাসান সৈকত, সাইফ জালাল অনি, আরিফুল ইসলাম, রাজু ফকির, রবিউল ইসলাম শিশির, তন্ময় বক্সী রাজু, মো. জহির উদ্দিন, ফাহাদ, মো. আবু ছাইন সানি, রাতুল রহমান আশিককে সহ-সভাপতি এবং আহম্মেদ শাকিল, রাসেল আহমেদ শুভ, অনুপম দেবনাথ আদিত্য, সুব্রত মল্লিক, রায়হান ইসলাম শান্ত, সারোয়ার হোসেন রাকিব, আনোয়ার হোসেন বাপ্পুকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, মো. রায়হান মিয়াজী, মো. আলিফ, মো. সাহাবুদ্দিন সরকার, মো. মতিউর রহমানকে সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়।

এছাড়া কুমিল্লা উত্তর জেলার ছাত্রলীগ নেতা সফিক তুহিন ও মো. আসাদুর রহমান রনিকে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য করা হয়।

কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সভাপতি আবু কাউছার অনিক বলেন, কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের এবারের কমিটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা চলছে। কমিটির সভাপতি বিবাহিত এবং স্ত্রীর করা মামলায় আসামি এবং সাধারণ সম্পাদক যাকে করা হয়েছে তাকে এর আগে কখনো রাজনীতির মাঠে সক্রিয় দেখিনি।

অভিযোগের বিষয়ে কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটির সভাপতি মো. মহিউদ্দিন বলেন, আমার বিরুদ্ধে এটা একটা ষড়যন্ত্র। এসব অভিযোগ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের তদন্তে মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমি বিয়ে করিনি। তারা যে অভিযোগ করেছেন কাজি অফিস ও আদালতে তা মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে।

নতুন কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম রুবেল বলেন, আমি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলাম। ওই কলেজের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতিও ছিলাম। আমার রাজনৈতিক ক্যারিয়ার অনেক আগের।

কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি নিয়ে বিতর্ক

 কুমিল্লা ব্যুরো  
২৫ জুলাই ২০২২, ১০:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. মহিউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম রুবেল
কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. মহিউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম রুবেল। ফাইল ছবি

কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে চান্দিনা উপজেলা ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি মো. মহিউদ্দিনকে সভাপতি ও সাইফুল ইসলাম রুবেলকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৪ সদস্যের আংশিক কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়। 

রোববার রাতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত ছাত্রলীগের দলীয় প্যাডে আগামী এক বছরের জন্য ওই কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

নবগঠিত কমিটির সভাপতি মো. মহিউদ্দিন চান্দিনা উপজেলার মাইজখার ইউনিয়নের মোহাম্মদ উল্লাহর ছেলে। তিনি চান্দিনা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি। মহিউদ্দিন বিবাহিত এবং তার বিরুদ্ধে যৌতুক ও নারী নির্যাতনের মামলা রয়েছে।

সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম রুবেল দেবিদ্বার উপজেলার বরকামতা ইউনিয়নের প্রেমু গ্রামের সফিকুল ইসলামের ছেলে। স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতারা জানান, রুবেলকে এর আগে রাজনীতির মাঠে সক্রিয় দেখা যায়নি। 

কমিটিতে তোফাজ্জল হোসেন সাদ্দাম, মেহেদী হাসান সৈকত, সাইফ জালাল অনি, আরিফুল ইসলাম, রাজু ফকির, রবিউল ইসলাম শিশির, তন্ময় বক্সী রাজু, মো. জহির উদ্দিন, ফাহাদ, মো. আবু ছাইন সানি, রাতুল রহমান আশিককে সহ-সভাপতি এবং আহম্মেদ শাকিল, রাসেল আহমেদ শুভ, অনুপম দেবনাথ আদিত্য, সুব্রত মল্লিক, রায়হান ইসলাম শান্ত, সারোয়ার হোসেন রাকিব, আনোয়ার হোসেন বাপ্পুকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, মো. রায়হান মিয়াজী, মো. আলিফ, মো. সাহাবুদ্দিন সরকার, মো. মতিউর রহমানকে সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়। 

এছাড়া কুমিল্লা উত্তর জেলার ছাত্রলীগ নেতা সফিক তুহিন ও মো. আসাদুর রহমান রনিকে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য করা হয়। 

কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সভাপতি আবু কাউছার অনিক বলেন, কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের এবারের কমিটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা চলছে। কমিটির সভাপতি বিবাহিত এবং স্ত্রীর করা মামলায় আসামি এবং সাধারণ সম্পাদক যাকে করা হয়েছে তাকে এর আগে কখনো রাজনীতির মাঠে সক্রিয় দেখিনি। 

অভিযোগের বিষয়ে কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটির সভাপতি মো. মহিউদ্দিন বলেন, আমার বিরুদ্ধে এটা একটা ষড়যন্ত্র। এসব অভিযোগ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের তদন্তে মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। 

তিনি আরও বলেন, আমি বিয়ে করিনি। তারা যে অভিযোগ করেছেন কাজি অফিস ও আদালতে তা মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। 

নতুন কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম রুবেল বলেন, আমি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলাম। ওই কলেজের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতিও ছিলাম। আমার রাজনৈতিক ক্যারিয়ার অনেক আগের। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন