বেত্রাঘাতে ছাত্রের মৃত্যু, সেই শিক্ষক কারাগারে 
jugantor
বেত্রাঘাতে ছাত্রের মৃত্যু, সেই শিক্ষক কারাগারে 

  কুমিল্লা ব্যুরো   

০৬ আগস্ট ২০২২, ২০:৫২:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

অভিযুক্ত মাদ্রাসাশিক্ষক আব্দুর রব

কুমিল্লার বরুড়ায় বেত্রাঘাতে ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত মাদ্রাসাশিক্ষক আব্দুর রবকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শনিবার বিকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরুড়া থানার ওসি ইকবাল বাহার মজুমদার। তিনি জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় অভিযুক্ত শিক্ষক আব্দুর রবকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে বেত্রাঘাতের বিষয়টি তিনি স্বীকার করেছেন।

শনিবার দুপুরে নিহত মাদ্রাসাছাত্র মো. সিহাবের বাবা শুকুর আলী বাদী হয়ে আব্দুর রবকে প্রধান আসামি করে থানায় হত্যা মামলা করেছেন। পরে আদালতে তোলা হলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

উল্লেখ্য, শুক্রবার দুপুরে মো. সিহাব হোসেন নামে এক মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু হয়। নিহতের পরিবারের অভিযোগ- মেড্ডা আল মাতিনিয়া নুরানি মাদ্রাসার শিক্ষক আব্দুর রব ঠুনকো অজুহাতে সিহাবকে দুই শতাধিক বেত্রাঘাত করলে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েও তাকে সুস্থ করতে না পেরে বৃহস্পতিবার তার পরিবারে ফোন করে সিহাবের অসুস্থতার খবর জানানো হয়।

সিহাবের বাবা মাদ্রাসায় গিয়ে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসেন। পরদিন শুক্রবার সকালে তার অসুস্থতা বেড়ে যাওয়ায় প্রথমে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে দুপুরে মৃত্যু হয় সিহাবের।

নিহত সিহাব জেলার বরুড়া উপজেলার ঝলম ইউনিয়নের শশইয়া গ্রামের ডিলার বাড়ির শুকুর আলীর ছেলে। সে একই ইউনিয়নের মেড্ডা আল মাতিনিয়া নুরানি মাদ্রাসার ছাত্র ছিল। অভিযুক্ত শিক্ষক আব্দুর রবের তত্ত্বাবধানে সে নুরানি শিক্ষা গ্রহণ করছিল। এ ঘটনায় শিক্ষক আব্দুর রবকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

কারাগারে যাওয়া ওই শিক্ষক আব্দুর রব (৩৫) কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের মো. বাবুল মিয়ার ছেলে।

বেত্রাঘাতে ছাত্রের মৃত্যু, সেই শিক্ষক কারাগারে 

 কুমিল্লা ব্যুরো  
০৬ আগস্ট ২০২২, ০৮:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
অভিযুক্ত মাদ্রাসাশিক্ষক আব্দুর রব
অভিযুক্ত মাদ্রাসাশিক্ষক আব্দুর রব। ফাইল ছবি

কুমিল্লার বরুড়ায় বেত্রাঘাতে ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত মাদ্রাসাশিক্ষক আব্দুর রবকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শনিবার বিকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরুড়া থানার ওসি ইকবাল বাহার মজুমদার। তিনি জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় অভিযুক্ত শিক্ষক আব্দুর রবকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে বেত্রাঘাতের বিষয়টি তিনি স্বীকার করেছেন। 

শনিবার দুপুরে নিহত মাদ্রাসাছাত্র মো. সিহাবের বাবা শুকুর আলী বাদী হয়ে আব্দুর রবকে প্রধান আসামি করে থানায় হত্যা মামলা করেছেন। পরে আদালতে তোলা হলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। 

উল্লেখ্য, শুক্রবার দুপুরে মো. সিহাব হোসেন নামে এক মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু হয়। নিহতের পরিবারের অভিযোগ- মেড্ডা আল মাতিনিয়া নুরানি মাদ্রাসার শিক্ষক আব্দুর রব ঠুনকো অজুহাতে সিহাবকে দুই শতাধিক বেত্রাঘাত করলে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েও তাকে সুস্থ করতে না পেরে বৃহস্পতিবার তার পরিবারে ফোন করে সিহাবের অসুস্থতার খবর জানানো হয়। 

সিহাবের বাবা মাদ্রাসায় গিয়ে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসেন। পরদিন শুক্রবার সকালে তার অসুস্থতা বেড়ে যাওয়ায় প্রথমে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে দুপুরে মৃত্যু হয় সিহাবের। 

নিহত সিহাব জেলার বরুড়া উপজেলার ঝলম ইউনিয়নের শশইয়া গ্রামের ডিলার বাড়ির শুকুর আলীর ছেলে। সে একই ইউনিয়নের মেড্ডা আল মাতিনিয়া নুরানি মাদ্রাসার ছাত্র ছিল। অভিযুক্ত শিক্ষক আব্দুর রবের তত্ত্বাবধানে সে নুরানি শিক্ষা গ্রহণ করছিল। এ ঘটনায় শিক্ষক আব্দুর রবকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
 
কারাগারে যাওয়া ওই শিক্ষক আব্দুর রব (৩৫) কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের মো. বাবুল মিয়ার ছেলে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন