চেক ডিজঅনারের মামলায় স্বামী কারাগারে, স্ত্রী পলাতক
jugantor
চেক ডিজঅনারের মামলায় স্বামী কারাগারে, স্ত্রী পলাতক

  মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি  

০৬ আগস্ট ২০২২, ২১:১৮:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এসএম মোজাহিদুল ইসলাম মনিরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে পৌর সদরের কলেজ রোডে আওয়ামী লীগের মিটিং শেষে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর তাকে শনিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

পুলিশ জানায়, ২০২১ সালে টাঙ্গাইলের এক ইটভাটা ব্যবসায়ী মনিরের বিরুদ্ধে ১১ লাখ টাকার চেক ডিজঅনার মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় মনিরের বিরুদ্ধে থানায় ওয়ারেন্ট বের হয়। শুক্রবার উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় সভা শেষে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এছাড়া তার স্ত্রীও সাজাপ্রাপ্ত আসামি। তিনি পলাতক রয়েছেন বলে এসআই আরিফ হোসেন জানান।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার ওসি শেখ মো. আবু সালেহ মাসুদ করিম বলেন, এসএম মোজাহিদুল ইসলাম মনির ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি ছিলেন। শুক্রবার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

চেক ডিজঅনারের মামলায় স্বামী কারাগারে, স্ত্রী পলাতক

 মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি 
০৬ আগস্ট ২০২২, ০৯:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এসএম মোজাহিদুল ইসলাম মনিরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে পৌর সদরের কলেজ রোডে আওয়ামী লীগের মিটিং শেষে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর তাকে শনিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। 

পুলিশ জানায়, ২০২১ সালে টাঙ্গাইলের এক ইটভাটা ব্যবসায়ী মনিরের বিরুদ্ধে ১১ লাখ টাকার চেক ডিজঅনার মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় মনিরের বিরুদ্ধে থানায় ওয়ারেন্ট বের হয়। শুক্রবার উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় সভা শেষে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এছাড়া তার স্ত্রীও সাজাপ্রাপ্ত আসামি। তিনি পলাতক রয়েছেন বলে এসআই আরিফ হোসেন জানান।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার ওসি শেখ মো. আবু সালেহ মাসুদ করিম বলেন, এসএম মোজাহিদুল ইসলাম মনির ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি ছিলেন। শুক্রবার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার  আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন