নিখোঁজ যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার
jugantor
নিখোঁজ যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার

  যুগান্তর প্রতিবেদন, নবাবগঞ্জ  

০৯ আগস্ট ২০২২, ১৫:২৩:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার নবাবগঞ্জে মাজহারুল ইসলাম (১৮) নামে এক নিখোঁজ যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১০ এর সদস্যরা। পরে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন বলে র‌্যাবের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

মাজহারুল পেশায় ইজিবাইক চালক ছিলেন। সে দিঘীরপাড় এলাকার মো. মিজানের ছেলে। এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে গ্রেফতারকৃতরা র‌্যাবের হেফাজতে আছেন বলে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশ সূত্র জানিয়েছে।

নিহত যুবক মাজহারুলের বোন ইতি আক্তার বলেন, গত ৬ আগস্ট বিকাল ৪টার পর থেকে আমার ভাইকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। আমার মোবাইল ফোন থেকে তার মোবাইলে ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও, সংযোগ চালু থাকলেও কল রিসিভ করেননি কেউ।

পরে শনিবার আমার ভাই এর ব্যবহারকৃত মোবাইল ফোন নাম্বার থেকে, ২ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে ফোন আসে আমার মোবাইল ফোন নাম্বারে। এরপর আমার পরিবারের পক্ষ থেকে আমি আমার ভাই নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে নবাবগঞ্জ থানায় একটি একটি জিডি করেছি।

নবাবগঞ্জ থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম শেখ বলেন, মাদক ব্যবসা নিয়ে এ হত্যাকাণ্ড সংগঠিত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। হত্যাকাণ্ডে ব্যবহারকৃত ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত যুবক মাজহারুল লাশ সুরতহাল রিপোট শেষে ঢাকায় ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

নিখোঁজ যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার

 যুগান্তর প্রতিবেদন, নবাবগঞ্জ 
০৯ আগস্ট ২০২২, ০৩:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার নবাবগঞ্জে মাজহারুল ইসলাম (১৮) নামে এক নিখোঁজ যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১০ এর সদস্যরা। পরে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন বলে র‌্যাবের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। 

মাজহারুল পেশায় ইজিবাইক চালক ছিলেন। সে দিঘীরপাড় এলাকার মো. মিজানের ছেলে। এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে গ্রেফতারকৃতরা র‌্যাবের হেফাজতে আছেন বলে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশ সূত্র জানিয়েছে। 

নিহত যুবক মাজহারুলের বোন ইতি আক্তার বলেন, গত ৬ আগস্ট বিকাল ৪টার পর থেকে আমার ভাইকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। আমার মোবাইল ফোন থেকে তার মোবাইলে ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও, সংযোগ চালু থাকলেও কল রিসিভ করেননি কেউ। 

পরে শনিবার আমার ভাই এর ব্যবহারকৃত মোবাইল ফোন নাম্বার থেকে, ২ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে ফোন আসে আমার মোবাইল ফোন নাম্বারে। এরপর আমার পরিবারের পক্ষ থেকে আমি আমার ভাই নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে নবাবগঞ্জ থানায় একটি একটি জিডি  করেছি।
 
নবাবগঞ্জ থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম শেখ বলেন, মাদক ব্যবসা নিয়ে এ হত্যাকাণ্ড সংগঠিত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। হত্যাকাণ্ডে ব্যবহারকৃত ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত যুবক মাজহারুল লাশ সুরতহাল রিপোট শেষে ঢাকায় ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন