কনফেকশনারী দোকানে ৭৫ বোতল ফেনসিডিল, আটক ২
jugantor
কনফেকশনারী দোকানে ৭৫ বোতল ফেনসিডিল, আটক ২

  কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি  

১৩ আগস্ট ২০২২, ০৫:৩৬:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় হাফিজুর রহমান মিল্লাত (৪২) ও মো. আলমগীর (৩৮) নামে দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এসময় তাদের কাছ থেকে ৭৫ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে বসুরহাট উত্তর বাজার মিল্লাত স্টোর থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার হাফিজুর রহমান মিল্লাত কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভা ৪নং ওয়ার্ডের মৃত আবুল হাশেমের ছেলে ও মো. আলমগীর ফেনীর দাগনভুঞা উপজেলার সিন্দুলপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের চন্দ্রপুর গ্রামের আলী আহামদের ছেলে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাদেকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, র্যা ব-৭ (সিপিসি-১) ফেনী ক্যাম্পের সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার দুপুর দেড়টায় অভিযান চালিয়ে মিল্লাতের কনফেকশনারী দোকান থেকে ফেনসিডিলসহ তাদের গ্রেফতার করে। পরে র্যা বের উপ-সহকারী পরিচালক (ডিএডি) কামরুল ইসলাম বাদি হয়ে মামলা দিয়ে দুই জনকে থানায় সোপর্দ করে।

স্থানীয় সূত্র জানা যায়, হাফিজুর রহমান মিল্লাত দীর্ঘদিন থেকে কনফেশনারী দোকানের আড়ালে মাদক ব্যবসা করে আসছেন। তার বাবা আবুল হাশেমও চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন। মো.আলমগীর ফেনসিডিলের পাইকারী বিক্রেতা।

কনফেকশনারী দোকানে ৭৫ বোতল ফেনসিডিল, আটক ২

 কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি 
১৩ আগস্ট ২০২২, ০৫:৩৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় হাফিজুর রহমান মিল্লাত (৪২) ও মো. আলমগীর (৩৮) নামে দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এসময় তাদের কাছ থেকে ৭৫ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করা হয়েছে। 

শুক্রবার দুপুরে বসুরহাট উত্তর বাজার মিল্লাত স্টোর থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। 

গ্রেফতার হাফিজুর রহমান মিল্লাত কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভা ৪নং ওয়ার্ডের মৃত আবুল হাশেমের ছেলে ও মো. আলমগীর ফেনীর দাগনভুঞা উপজেলার সিন্দুলপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের চন্দ্রপুর গ্রামের আলী আহামদের ছেলে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাদেকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি বলেন, র্যা ব-৭ (সিপিসি-১) ফেনী ক্যাম্পের সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার দুপুর দেড়টায় অভিযান চালিয়ে মিল্লাতের কনফেকশনারী দোকান থেকে ফেনসিডিলসহ তাদের গ্রেফতার করে। পরে র্যা বের উপ-সহকারী পরিচালক (ডিএডি) কামরুল ইসলাম বাদি হয়ে মামলা দিয়ে দুই জনকে থানায় সোপর্দ করে।

স্থানীয় সূত্র জানা যায়, হাফিজুর রহমান মিল্লাত দীর্ঘদিন থেকে কনফেশনারী দোকানের আড়ালে মাদক ব্যবসা করে আসছেন। তার বাবা আবুল হাশেমও চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন। মো.আলমগীর ফেনসিডিলের পাইকারী বিক্রেতা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন