ছয় ঘণ্টায় একই সড়কে ঝরল বাবা-ছেলে, স্বামী-স্ত্রীর প্রাণ
jugantor
ছয় ঘণ্টায় একই সড়কে ঝরল বাবা-ছেলে, স্বামী-স্ত্রীর প্রাণ

  মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি  

১৪ আগস্ট ২০২২, ০১:৪২:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

নওগাঁর মহাদেবপুরে মাত্র ৬ ঘণ্টার ব্যবধানে একই সড়কের ১ কিলোমিটারের মধ্যে ঝরল বাবা-ছেলে ও স্বামী-স্ত্রীর প্রাণ। শনিবার দুপুরে ও সন্ধ্যায় পৃথক এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় মোট ৩ জন গুরুতর আহত হয়েছেন।

শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে শিকারপুর এলাকায় মোটরসাইকেলের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে বাবা ও ছেলে নিহত হয়েছেন। এর মাত্র ৬ ঘণ্টা পূর্বে দুপুরে ওই সড়কের ফয়েজ উদ্দিন কোল্ড স্টোরেজ এলাকায় প্রাইভেটকার খাদে পড়ে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীসহ স্বামীর মৃত্যু হয়েছে।

সন্ধ্যায় দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন- মান্দা উপজেলার ভেবড়া গ্রামের রথিদ্রনাথ মণ্ডল (২৯) ও তার তিন বছর বয়সী শিশু সন্তান রাধাগোবিন্দ ওরফে রিদয়। আহতরা হলেন- নিহত শিশুটির মা পূজা রানী (২২) এবং উপজেলার পাতনা গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে ফাইম হোসেন (২২) ও তার স্ত্রী মোছা. রিয়া আক্তার (১৯)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মান্দা উপজেলার ভেবড়া গ্রামের রথিন্দ্রনাথ মণ্ডল তার স্ত্রী পূজা রানী ও ৩ বছর বয়সী শিশু রাধাগোবিন্দ ওরফে রিদয়কে সাথে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি উপজেলার শিকারপুর গ্রাম থেকে একটি মোটরসাইকেলযোগে নিজ বাড়ি ভেবড়া গ্রামে ফিরছিলেন। শিকারপুর নামক স্থানে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে তাদের মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এ সময় গুরুতর জখম অবস্থায় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠালে দায়িত্বরত চিকিৎসক বাবা রথিন্দ্রনাথ মণ্ডল ও শিশু সন্তান রিদয়কে মৃত ঘোষণা করেন।

আহত ফাইম হোসেনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (রামেক) রেফার্ড করেন। অপর আহতদের মধ্যে পূজা রানী ও রিয়া আক্তার নওগাঁ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এর মাত্র ৬ ঘণ্টা পূর্বে ঘটনাস্থলের মাত্র ১ কিলোমিটারের মধ্যে ফয়েজ উদ্দিন কোল্ড স্টোরেজ এলাকায় প্রাইভেটকার খাদে পড়ে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীসহ স্বামীর মৃত্যু হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন মান্দা উপজেলার কাঁশোপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নিচ কুলিহার গ্রামের আব্দুল খালেকের পুত্র শিমুল হোসেন (৩০) এবং তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী জিনিয়া আক্তার (২৫)।

দুপুরে একটি মাটিবাহী ট্রাক্টর পার্শ্বরাস্তা থেকে হঠাৎ করে মূল সড়কে উঠার কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রাইভেটকারটি ব্রিজের নিচে গভীর খাদে পড়ে পানিতে তলিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক স্বামী-স্ত্রী দুইজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

মহাদেবপুর থানার ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ পৃথক দুটি দুর্ঘটনায় বাবা-ছেলে, স্বামী- স্ত্রীর মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ছয় ঘণ্টায় একই সড়কে ঝরল বাবা-ছেলে, স্বামী-স্ত্রীর প্রাণ

 মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি 
১৪ আগস্ট ২০২২, ০১:৪২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নওগাঁর মহাদেবপুরে মাত্র ৬ ঘণ্টার ব্যবধানে একই সড়কের ১ কিলোমিটারের মধ্যে ঝরল বাবা-ছেলে ও স্বামী-স্ত্রীর প্রাণ। শনিবার দুপুরে ও সন্ধ্যায় পৃথক এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় মোট ৩ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। 

শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে শিকারপুর এলাকায় মোটরসাইকেলের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে বাবা ও ছেলে নিহত হয়েছেন। এর মাত্র ৬ ঘণ্টা পূর্বে দুপুরে ওই সড়কের ফয়েজ উদ্দিন কোল্ড স্টোরেজ এলাকায় প্রাইভেটকার খাদে পড়ে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীসহ স্বামীর মৃত্যু হয়েছে।

সন্ধ্যায় দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন- মান্দা উপজেলার ভেবড়া গ্রামের রথিদ্রনাথ মণ্ডল (২৯) ও তার তিন বছর বয়সী শিশু সন্তান রাধাগোবিন্দ ওরফে রিদয়। আহতরা হলেন- নিহত শিশুটির মা পূজা রানী (২২) এবং উপজেলার পাতনা গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে ফাইম হোসেন (২২) ও তার স্ত্রী মোছা. রিয়া আক্তার (১৯)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মান্দা উপজেলার ভেবড়া গ্রামের রথিন্দ্রনাথ মণ্ডল তার স্ত্রী পূজা রানী ও ৩ বছর বয়সী শিশু রাধাগোবিন্দ ওরফে রিদয়কে সাথে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি উপজেলার শিকারপুর গ্রাম থেকে একটি মোটরসাইকেলযোগে নিজ বাড়ি ভেবড়া গ্রামে ফিরছিলেন। শিকারপুর নামক স্থানে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে তাদের মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এ সময় গুরুতর জখম অবস্থায় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠালে দায়িত্বরত চিকিৎসক বাবা রথিন্দ্রনাথ মণ্ডল ও শিশু সন্তান রিদয়কে মৃত ঘোষণা করেন।

আহত ফাইম হোসেনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (রামেক) রেফার্ড করেন। অপর আহতদের মধ্যে পূজা রানী ও রিয়া আক্তার নওগাঁ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এর মাত্র ৬ ঘণ্টা পূর্বে ঘটনাস্থলের মাত্র ১ কিলোমিটারের মধ্যে ফয়েজ উদ্দিন কোল্ড স্টোরেজ এলাকায় প্রাইভেটকার খাদে পড়ে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীসহ স্বামীর মৃত্যু হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন মান্দা উপজেলার কাঁশোপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নিচ কুলিহার গ্রামের আব্দুল খালেকের পুত্র শিমুল হোসেন (৩০) এবং তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী জিনিয়া আক্তার (২৫)।

দুপুরে একটি মাটিবাহী ট্রাক্টর পার্শ্বরাস্তা থেকে হঠাৎ করে মূল সড়কে উঠার কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রাইভেটকারটি ব্রিজের নিচে গভীর খাদে পড়ে পানিতে তলিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক স্বামী-স্ত্রী দুইজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

মহাদেবপুর থানার ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ পৃথক দুটি দুর্ঘটনায় বাবা-ছেলে, স্বামী- স্ত্রীর মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন