কিশোরীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার
jugantor
কিশোরীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার

  ব্রাহ্মণপাড়া (কুমিল্লা) প্রতিনিধি   

১৪ আগস্ট ২০২২, ১৫:৩৫:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার ব্রা‏হ্মণপাড়ায় এক কিশোরীকে (১৬) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে থানায় মামলা হয়েছে।

রাতেই পুলিশ ধর্ষণের অভিযোগে হাসান মিয়া (২২) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেফতার হাসান মিয়া কুমিল্লার ব্রা‏হ্মণপাড়া উপজেলার সিদলাই ইউনিয়নের বাসিন্দা। তাকে শনিবার সকালে কুমিল্লা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। আদালত তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করেছেন।

মামলার এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী একটি মাদ্রাসার শিক্ষার্থী। তাকে মাদ্রাসায় আসা-যাওয়ার পথে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত। বিভিন্ন সময় তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছে। মাদ্রাসার শিক্ষার্থী তা প্রত্যাখ্যান করেন। শিক্ষার্থীর বাবা দেবিদ্বার উপজেলা সদরে ব্যবসা করেন।

গত বৃহস্পতিবার রাতে ছাত্রীর বাবা-মা ও ভাই দেবিদ্বার এলাকায় চলে যান। বাড়িতেই একাই ছিলেন শিক্ষার্থী। ওই দিন রাতেই হাসান মিয়া শিক্ষার্থীর ঘরে গিয়ে জোরপূর্বক ঢুকে তাকে ধর্ষণ করে। এ সময় ছাত্রীর চিৎকারে বাড়ির অন্য লোকজন দৌড়ে এসে তাকে উদ্ধার করে। এ সময় হাসান দৌড়ে পালিয়ে যায়।

শুক্রবার রাতে মামলার পর রাতেই হাসান মিয়াকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। শিক্ষার্থীকে ডাক্তারি পরীক্ষা করানোর জন্য শনিবার সকালে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ব্রা‏হ্মণপাড়া থানার ওসি অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন, ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে আদালতে ভুক্তভোগীর জবানবন্দি নেওয়া হবে।

কিশোরীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার

 ব্রাহ্মণপাড়া (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  
১৪ আগস্ট ২০২২, ০৩:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার ব্রা‏হ্মণপাড়ায় এক কিশোরীকে (১৬) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে থানায় মামলা হয়েছে। 

রাতেই পুলিশ ধর্ষণের অভিযোগে হাসান মিয়া (২২) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে। 

গ্রেফতার হাসান মিয়া কুমিল্লার ব্রা‏হ্মণপাড়া উপজেলার সিদলাই ইউনিয়নের বাসিন্দা। তাকে শনিবার সকালে কুমিল্লা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। আদালত তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করেছেন। 

মামলার এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী একটি মাদ্রাসার শিক্ষার্থী। তাকে মাদ্রাসায় আসা-যাওয়ার পথে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত। বিভিন্ন সময় তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছে। মাদ্রাসার শিক্ষার্থী তা প্রত্যাখ্যান করেন। শিক্ষার্থীর বাবা দেবিদ্বার উপজেলা সদরে ব্যবসা করেন। 

গত বৃহস্পতিবার রাতে ছাত্রীর বাবা-মা ও ভাই দেবিদ্বার এলাকায় চলে যান। বাড়িতেই একাই ছিলেন শিক্ষার্থী। ওই দিন রাতেই হাসান মিয়া শিক্ষার্থীর ঘরে গিয়ে জোরপূর্বক ঢুকে তাকে ধর্ষণ করে। এ সময় ছাত্রীর চিৎকারে বাড়ির অন্য লোকজন দৌড়ে এসে তাকে উদ্ধার করে। এ সময় হাসান দৌড়ে পালিয়ে যায়। 

শুক্রবার রাতে মামলার পর রাতেই হাসান মিয়াকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। শিক্ষার্থীকে ডাক্তারি পরীক্ষা করানোর জন্য শনিবার সকালে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ব্রা‏হ্মণপাড়া থানার ওসি অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন, ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে আদালতে ভুক্তভোগীর জবানবন্দি নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন