‘খালেদা জিয়ার জন্য আমার বড্ড মায়া হয়’
jugantor
‘খালেদা জিয়ার জন্য আমার বড্ড মায়া হয়’

  নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি  

১৬ আগস্ট ২০২২, ০১:০৮:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

‘খালেদা জিয়ার জন্য আমার বড্ড মায়া হয়’- এমনটাই মন্তব্য করে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সমালোচনা করে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান বলেছেন, ‘যার মায়ের প্রতি দরদ নাই তার আবার দেশের প্রতি দরদ কেন। সাহস থাকলে নেতাকে লন্ডন থেকে দেশে আসতে বলেন’।

সোমবার (১৫ আগস্ট) বিকালে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগ আয়োজিত শোক দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

শামীম ওসমান বলেন, নারায়ণগঞ্জের অনেকেই লন্ডনে থাকা নেতার কথায় নাচতাছেন। যারা নাচুইন্না বুড়ি তাদের বলি, নাইচা যদি গর্তে ঢুকেন তাহলে আমাদের বিচ্ছু বাহিনী কিন্তু ঠিকই হাত দিয়ে বের করে নিয়ে আসবে। বারবার একই জিনিস চলে না। এবার আগুন দিবেন মানুষ পুড়িয়ে মারবেন সেটা আর হবে না। এবার যদি আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনাও বলেন যে শান্ত হও তাও হব না। এবার কেউ কারো কথাই শুনবে না।

তিনি বলেন, নেতায় লন্ডনে বসে হুকুম দেয় আর আপনি নাচবেন, তা হবে না। ওর তো কিছু হবে না। ফাঁসবেন তো আপনি। সাহস থাকলে নেতাকে লন্ডন থেকে দেশে আসতে বলেন। নিজের মা মরে মরে; আসে না আর আপনার জন্য আসবে কোন দুঃখে; যার মায়ের প্রতি দরদ নাই তার আবার দেশের প্রতি দরদ কেন।

তিনি আরও বলেন, ছেলের বউ এত বড় ডাক্তার মা অসুস্থ চিকিৎসার জন্য আসে না। আচ্ছা বুঝলাম বউ বোধহয় স্বামীকে ভালোবাসে না। আচ্ছা নাতনি তো আছে। সে তো আসতে পারতো। সেও আসেনি। আহারে খালেদা জিয়ার জন্য আমার বড় মায়া লাগে। খুবই কষ্ট লাগে। তাই বলি তার কথায় অনেকেই নাচানাচি করে লাভ হবে না।

শামীম ওসমান বলেন, সমাজের ভালো মানুষদের নিয়ে কাজ করতে চাই, যে যেই দলই করুক। আমাদের হাইব্রিড দরকার নাই। হাইব্রিড পেছনেই থাইকেন। নামাজ যে পড়বেন সে ইমামের পেছনে দাঁড়িয়ে পড়বেন। ইমামের সামনে গেলে কিন্তু নামাজ হবে না। নেতা হোন মন্ত্রী হোন মেয়র হন আপত্তি নাই ইমামের পেছনে থাইকেন।

‘খালেদা জিয়ার জন্য আমার বড্ড মায়া হয়’

 নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি 
১৬ আগস্ট ২০২২, ০১:০৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

‘খালেদা জিয়ার জন্য আমার বড্ড মায়া হয়’- এমনটাই মন্তব্য করে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সমালোচনা করে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান বলেছেন, ‘যার মায়ের প্রতি দরদ নাই তার আবার দেশের প্রতি দরদ কেন। সাহস থাকলে নেতাকে লন্ডন থেকে দেশে আসতে বলেন’।

সোমবার (১৫ আগস্ট) বিকালে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগ আয়োজিত শোক দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

শামীম ওসমান বলেন, নারায়ণগঞ্জের অনেকেই লন্ডনে থাকা নেতার কথায় নাচতাছেন। যারা নাচুইন্না বুড়ি তাদের বলি, নাইচা যদি গর্তে ঢুকেন তাহলে আমাদের বিচ্ছু বাহিনী কিন্তু ঠিকই হাত দিয়ে বের করে নিয়ে আসবে। বারবার একই জিনিস চলে না। এবার আগুন দিবেন মানুষ পুড়িয়ে মারবেন সেটা আর হবে না। এবার যদি আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনাও বলেন যে শান্ত হও তাও হব না। এবার কেউ কারো কথাই শুনবে না।

তিনি বলেন, নেতায় লন্ডনে বসে হুকুম দেয় আর আপনি নাচবেন, তা হবে না। ওর তো কিছু হবে না। ফাঁসবেন তো আপনি। সাহস থাকলে নেতাকে লন্ডন থেকে দেশে আসতে বলেন। নিজের মা মরে মরে; আসে না আর আপনার জন্য আসবে কোন দুঃখে; যার মায়ের প্রতি দরদ নাই তার আবার দেশের প্রতি দরদ কেন।

তিনি আরও বলেন, ছেলের বউ এত বড় ডাক্তার মা অসুস্থ চিকিৎসার জন্য আসে না। আচ্ছা বুঝলাম বউ বোধহয় স্বামীকে ভালোবাসে না। আচ্ছা নাতনি তো আছে। সে তো আসতে পারতো। সেও আসেনি। আহারে খালেদা জিয়ার জন্য আমার বড় মায়া লাগে। খুবই কষ্ট লাগে। তাই বলি তার কথায় অনেকেই নাচানাচি করে লাভ হবে না।

শামীম ওসমান বলেন, সমাজের ভালো মানুষদের নিয়ে কাজ করতে চাই, যে যেই দলই করুক। আমাদের হাইব্রিড দরকার নাই। হাইব্রিড পেছনেই থাইকেন। নামাজ যে পড়বেন সে ইমামের পেছনে দাঁড়িয়ে পড়বেন। ইমামের সামনে গেলে কিন্তু নামাজ হবে না। নেতা হোন মন্ত্রী হোন মেয়র হন আপত্তি নাই ইমামের পেছনে থাইকেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন