গণতন্ত্রের স্বার্থে বিএনপি ইভিএমের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে: হাসনা মওদুদ
jugantor
গণতন্ত্রের স্বার্থে বিএনপি ইভিএমের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে: হাসনা মওদুদ

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

২২ আগস্ট ২০২২, ০০:৩৩:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সাবেক সদস্য মরহুম ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের সহধর্মিণী সাবেক এমপি হাসনা জসীম উদ্দীন মওদুদ বলেছেন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি একটি গণতন্ত্রমুখী এবং নির্বাচনমুখী দল। আমরা বিশ্বাস করি- বিশেষ করে যারা ইভিএম সম্পর্কে টেকনিক্যালি জ্ঞাত তারা জানেন ইভিএমে কীভাবে নির্বাচন ম্যানিপুলেট (বানচাল) করা যায়। ইভিএমে ভোট ম্যানিপুলেট (বানচাল) করতে যা লাগে তা এ সরকারের জানা আছে এবং তারা এটা প্রয়োগ করবে। তারা চেষ্টা করবে ইভিএমের মাধ্যমে জনগণের রায় পাল্টে দিতে।

রোববার দুপুর ১২টার দিকে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সিরাজপুর ইউনিয়নের পূর্ব মোহাম্মদনগর গ্রামের মওদুদ আহমদের নিজ বাড়িতে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

হাসনা মওদুদ বলেন, ইভিএমের মাধ্যমে নির্বাচনের ফলাফলকে উল্টে দিতে পারে। গণতন্ত্রের স্বার্থে বিএনপি ইভিএমের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে। এটা একটি হটকারিতা ব্যবস্থা। ইভিএম আমাদের জন্য কার্যকারিতা আনবে না। সরকার লোক দেখানো কিছু নির্বাচন করবে। এ ব্যাপারে এখন আমরা সোচ্চার। জনগণের রায় যেন প্রকাশিত হয়। সেটাতেই আমরা গণতন্ত্রের রায় পাব।

তিনি বলেন, আমি এলাকায় কি দেখেছি ভোটের মাঠে মহিলাদের লম্বা ভিড়। কিন্তু লাইন আর যায় না? একটা লোক ভোট দিতে সামনে যেতে পারছে না,আগাইতেছে না? ভিতরে কারসাজি চলছে। শোনা যায় সব ভোট দেয়া হয়ে গেছে। এটাতো গণতন্ত্র না, এটাতো সঠিক নির্বাচন না। এটা করতে দেয়া হবে না।

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ে হাসনা মওদুদ বলেন, আরও বড় বড় এজেন্ডা আছে। গণতন্ত্র রক্ষার জন্য, নির্বাচনের জন্য নিরপেক্ষ একটা সরকারের যে দাবি। সেই সঙ্গে আমরা সবাই যেন ভোট দিয়ে যেতে পারি। এসব বড় এজেন্ডা থেকে বের হয়ে এসে বিএনপি এখন জনগণের কাতারে দাঁড়িয়েছে। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদ করছে। বলছে মানুষের কাছে দ্রব্যমূল্যের দাম বৃদ্ধি অসহনীয়। খাবারের দাম বৃদ্ধি, তেলের দাম বৃদ্ধি, লোডশেডিং। জনগণের এই অসহনীয় কষ্টের জন্য বিএনপি তাদের পাশে দাঁড়াতে চায়। এটাকে এক নম্বর পলিটিক্যাল এজেন্ডা করে দিয়েছে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। এটাতে এলাকাবাসী খুশি। যে না জনগণের কথা বলার জন্য একটা পার্টি আছে। বিএনপি জনগণের পক্ষে কথা বলেছে।

তিনি আরও বলেন, আমিতো শুধু ভোট চাইতে আসিনি। আমার প্রধান একটা স্বপ্ন হলো গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের ব্যাপারে ভূমিকা রাখব। এই নোয়াখালী-৫ আসন (কোম্পানীগঞ্জ এবং কবিরহাট উপজেলা) থেকে দেশে গণতন্ত্র ফিরিতে আনার জন্য আমি লড়াই শুরু করব এবং ইনশাআল্লাহ আমরা জয়লাভ করব।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব মাহমুদুর রহমান রিপন, চরহাজারী ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সাবেক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আতোয়ার হোসেন পাভেল, উপজেলা ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক হোসেন মোহাম্মদ এরশাদ প্রমুখ।

গণতন্ত্রের স্বার্থে বিএনপি ইভিএমের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে: হাসনা মওদুদ

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
২২ আগস্ট ২০২২, ১২:৩৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সাবেক সদস্য মরহুম ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের সহধর্মিণী সাবেক এমপি হাসনা জসীম উদ্দীন মওদুদ বলেছেন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি একটি গণতন্ত্রমুখী এবং নির্বাচনমুখী দল। আমরা বিশ্বাস করি- বিশেষ করে যারা ইভিএম সম্পর্কে টেকনিক্যালি জ্ঞাত তারা জানেন ইভিএমে কীভাবে নির্বাচন ম্যানিপুলেট (বানচাল) করা যায়। ইভিএমে ভোট ম্যানিপুলেট (বানচাল) করতে যা লাগে তা এ সরকারের জানা আছে এবং তারা এটা প্রয়োগ করবে। তারা চেষ্টা করবে ইভিএমের মাধ্যমে জনগণের রায় পাল্টে দিতে।

রোববার দুপুর ১২টার দিকে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সিরাজপুর ইউনিয়নের পূর্ব মোহাম্মদনগর গ্রামের মওদুদ আহমদের নিজ বাড়িতে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।  

হাসনা মওদুদ বলেন, ইভিএমের মাধ্যমে নির্বাচনের ফলাফলকে উল্টে দিতে পারে। গণতন্ত্রের স্বার্থে বিএনপি ইভিএমের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে। এটা একটি হটকারিতা ব্যবস্থা। ইভিএম আমাদের জন্য কার্যকারিতা আনবে না। সরকার লোক দেখানো কিছু নির্বাচন করবে। এ ব্যাপারে এখন আমরা সোচ্চার। জনগণের রায় যেন প্রকাশিত হয়। সেটাতেই আমরা গণতন্ত্রের রায় পাব।

তিনি বলেন, আমি এলাকায় কি দেখেছি ভোটের মাঠে মহিলাদের লম্বা ভিড়। কিন্তু লাইন আর যায় না? একটা লোক ভোট দিতে সামনে যেতে পারছে না,আগাইতেছে না? ভিতরে কারসাজি চলছে।  শোনা যায় সব ভোট দেয়া হয়ে গেছে। এটাতো গণতন্ত্র না, এটাতো সঠিক নির্বাচন না। এটা করতে দেয়া হবে না। 

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ে হাসনা মওদুদ বলেন, আরও বড় বড় এজেন্ডা আছে। গণতন্ত্র রক্ষার জন্য, নির্বাচনের জন্য নিরপেক্ষ একটা সরকারের যে দাবি। সেই সঙ্গে আমরা সবাই যেন ভোট দিয়ে যেতে পারি। এসব বড় এজেন্ডা থেকে বের হয়ে এসে বিএনপি এখন জনগণের কাতারে দাঁড়িয়েছে। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদ করছে। বলছে মানুষের কাছে দ্রব্যমূল্যের দাম বৃদ্ধি অসহনীয়। খাবারের দাম বৃদ্ধি, তেলের দাম বৃদ্ধি, লোডশেডিং। জনগণের এই অসহনীয় কষ্টের জন্য বিএনপি তাদের পাশে দাঁড়াতে চায়। এটাকে এক নম্বর পলিটিক্যাল এজেন্ডা করে দিয়েছে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। এটাতে এলাকাবাসী খুশি। যে না জনগণের কথা বলার জন্য একটা পার্টি আছে। বিএনপি জনগণের পক্ষে কথা বলেছে।

তিনি আরও বলেন, আমিতো শুধু ভোট চাইতে আসিনি। আমার প্রধান একটা স্বপ্ন হলো গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের ব্যাপারে ভূমিকা রাখব। এই নোয়াখালী-৫ আসন (কোম্পানীগঞ্জ এবং কবিরহাট উপজেলা) থেকে দেশে গণতন্ত্র ফিরিতে আনার জন্য আমি লড়াই শুরু করব এবং ইনশাআল্লাহ আমরা জয়লাভ করব।   

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব মাহমুদুর রহমান রিপন, চরহাজারী ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সাবেক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আতোয়ার হোসেন পাভেল, উপজেলা ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক হোসেন মোহাম্মদ এরশাদ প্রমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন