নেতাকে পিটিয়ে ‘বিবস্ত্র’ করলেন যুবলীগ কর্মীরা!
jugantor
নেতাকে পিটিয়ে ‘বিবস্ত্র’ করলেন যুবলীগ কর্মীরা!

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২২:০৬:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রতীকী ছবি

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি বর্তমানে জেলা যুবলীগের সদস্য হুমায়ুন কবিরকে (৪৫) পেটানোর পর বিবস্ত্র করেছেন সংগঠনটিরকর্মীরা।

রোববার বিকালে বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী ডিবি রোডে এ ঘটনা ঘটে। ইতোমধ্যে মারধরের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মনির মুহুরির নেতৃত্বে ফাহাদ, শাহাদাত, রায়হান ও সোহানসহ কয়েকজন হুমায়ুন কবিরকে পিটিয়ে মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে। পরে তার জামা-কাপড় ছিঁড়ে তাকে বিবস্ত্র করা হয়। হামলাকারীরা যুবলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত।

গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

স্থানীয় যুবলীগ নেতারা জানান, হুমায়ুন বাড়ির নির্মাণকাজের জন্য রড কিনতে গেলে মনির মুহুরির নেতৃত্বে যুবলীগ নামধারীরা তাকে পিটিয়ে মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করেছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই। বাড়ির নির্মাণকাজের জন্য হামলাকারীরা হুমায়ুন করিরের কাছে তিন লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছে। চাঁদা না দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে প্রকাশ্যে হামলা করেছে। তারা সবাই একলাসপুরের দেলোয়ার বাহিনীর সদস্য।

বেগমগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ৩১ আগস্ট মনির মুহুরি হুমায়ুন করিবের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা করেন। এরপর রোববার বিকালে হুমায়ুন করিবকে একা পেয়ে অতর্কিতভাবে মনির ও তার লোকজন হামলা চালায়। এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নেতাকে পিটিয়ে ‘বিবস্ত্র’ করলেন যুবলীগ কর্মীরা!

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি বর্তমানে জেলা যুবলীগের সদস্য হুমায়ুন কবিরকে (৪৫) পেটানোর পর বিবস্ত্র করেছেন সংগঠনটির কর্মীরা।  

রোববার বিকালে বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী ডিবি রোডে এ ঘটনা ঘটে। ইতোমধ্যে মারধরের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মনির মুহুরির নেতৃত্বে ফাহাদ, শাহাদাত, রায়হান ও সোহানসহ কয়েকজন হুমায়ুন কবিরকে পিটিয়ে মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে। পরে তার জামা-কাপড় ছিঁড়ে তাকে বিবস্ত্র করা হয়। হামলাকারীরা যুবলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। 

গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

স্থানীয় যুবলীগ নেতারা জানান, হুমায়ুন বাড়ির নির্মাণকাজের জন্য রড কিনতে গেলে মনির মুহুরির নেতৃত্বে যুবলীগ নামধারীরা তাকে পিটিয়ে মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করেছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই। বাড়ির নির্মাণকাজের জন্য হামলাকারীরা হুমায়ুন করিরের কাছে তিন লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছে। চাঁদা না দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে প্রকাশ্যে হামলা করেছে। তারা সবাই একলাসপুরের দেলোয়ার বাহিনীর সদস্য।

বেগমগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ৩১ আগস্ট মনির মুহুরি হুমায়ুন করিবের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা করেন। এরপর রোববার বিকালে হুমায়ুন করিবকে একা পেয়ে অতর্কিতভাবে মনির ও তার লোকজন হামলা চালায়। এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন