অনলাইনে কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া সেই যুবক গ্রেফতার
jugantor
অনলাইনে কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া সেই যুবক গ্রেফতার

  বগুড়া ব্যুরো  

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২২:২২:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ায় অনলাইনের মাধ্যমে কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার মামলায় পুলিশ লিপন ইসলাম বিজয় (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে। মঙ্গলবার রাতে ‘৯৯৯’ নম্বর থেকে ফোন পেয়ে তাকে শহরের মালতিনগর বউবাজার এলাকার ভাড়া বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

বুধবার দুপুরে তাকে আদালতে পাঠিয়ে পাঁচ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়।

সদর থানার ওসি নূরে আলম সিদ্দিকী জানান, রিমান্ডের ব্যাপারে পরবর্তীতে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

পুলিশ, এজাহার সূত্র ও ভুক্তভোগীরা জানান, লিপন ইসলাম বিজয় বগুড়ার গাবতলী উপজেলার নেপালতলী গ্রামের মৃত গাজিউল ইসলামের ছেলে। তিনি ও ঢাকার কয়েকজন ট্রোন কোম্পানি নামে একটি অনলাইন প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করেন। তারা জনগণকে জানান, ওই কোম্পানিতে এক লাখ টাকা জমা করলে প্রতিদিন ৫ হাজার টাকা লাভ পাওয়া যাবে। তাদের এ প্রলোভনের ফাঁদে অনেকে জড়িয়ে যান। অনেকে ওই অনলাইন কোম্পানিতে প্রায় কোটি টাকা বিনিয়োগ করেন।

পরবর্তীতে গ্রাহকরা লিংকে প্রবেশ করে ওই কোম্পানির সাইট বন্ধ পান। এছাড়া বিজয় ও অন্যদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। বুধবার রাতে গ্রাহকরা বিজয়ের শহরের মালতিনগর বউবাজার এলাকায় ভাড়া বাসায় যান এবং সঞ্চয় করা টাকা ফেরত চাইলে প্রতারকরা তালবাহানা করতে থাকেন। এ সময় আবু সাঈদ নামে এক ব্যক্তি জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিলে পুলিশ লিপন ইসলাম বিজয়কে গ্রেফতার করে।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী আবু সাঈদ সদর থানায় বিজয়সহ ৩ জনের নাম উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

সদর থানার ওসি নূরে আলম সিদ্দিকী জানান, গ্রেফতার আসামি বিজয়কে বুধবার দুপুরে আদালতে পাঠিয়ে ৫ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছিল। এ ব্যাপারে পরবর্তীতে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি আরও জানান, মামলার অন্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

অনলাইনে কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া সেই যুবক গ্রেফতার

 বগুড়া ব্যুরো 
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:২২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ায় অনলাইনের মাধ্যমে কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার মামলায় পুলিশ লিপন ইসলাম বিজয় (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে। মঙ্গলবার রাতে ‘৯৯৯’ নম্বর থেকে ফোন পেয়ে তাকে শহরের মালতিনগর বউবাজার এলাকার ভাড়া বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

বুধবার দুপুরে তাকে আদালতে পাঠিয়ে পাঁচ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়।

সদর থানার ওসি নূরে আলম সিদ্দিকী জানান, রিমান্ডের ব্যাপারে পরবর্তীতে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

পুলিশ, এজাহার সূত্র ও ভুক্তভোগীরা জানান, লিপন ইসলাম বিজয় বগুড়ার গাবতলী উপজেলার নেপালতলী গ্রামের মৃত গাজিউল ইসলামের ছেলে। তিনি ও ঢাকার কয়েকজন ট্রোন কোম্পানি নামে একটি অনলাইন প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করেন। তারা জনগণকে জানান, ওই কোম্পানিতে এক লাখ টাকা জমা করলে প্রতিদিন ৫ হাজার টাকা লাভ পাওয়া যাবে। তাদের এ প্রলোভনের ফাঁদে অনেকে জড়িয়ে যান। অনেকে ওই অনলাইন কোম্পানিতে প্রায় কোটি টাকা বিনিয়োগ করেন।

পরবর্তীতে গ্রাহকরা লিংকে প্রবেশ করে ওই কোম্পানির সাইট বন্ধ পান। এছাড়া বিজয় ও অন্যদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। বুধবার রাতে গ্রাহকরা বিজয়ের শহরের মালতিনগর বউবাজার এলাকায় ভাড়া বাসায় যান এবং সঞ্চয় করা টাকা ফেরত চাইলে প্রতারকরা তালবাহানা করতে থাকেন। এ সময় আবু সাঈদ নামে এক ব্যক্তি জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিলে পুলিশ লিপন ইসলাম বিজয়কে গ্রেফতার করে।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী আবু সাঈদ সদর থানায় বিজয়সহ ৩ জনের নাম উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

সদর থানার ওসি নূরে আলম সিদ্দিকী জানান, গ্রেফতার আসামি বিজয়কে বুধবার দুপুরে আদালতে পাঠিয়ে ৫ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছিল। এ ব্যাপারে পরবর্তীতে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি আরও জানান, মামলার অন্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন