বুড়িচং সীমান্তে ৩০ রোহিঙ্গা আটক
jugantor
বুড়িচং সীমান্তে ৩০ রোহিঙ্গা আটক

  বুড়িচং (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  

০৭ অক্টোবর ২০২২, ০০:০৭:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়নের সীমান্ত এলাকা দিয়ে অবৈধভাবে ভারত প্রবেশ করার সময় ৩০ রোহিঙ্গাকে আটক করে খাড়েরা বিওপির বিজিবির সদস্যরা।

খারেরা বিজিবির সুবেদার আব্দুল খালেক জানান, বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) বিকালে বুড়িচং উপজেলার খাড়েরা সীমান্ত এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। ৩০ রোহিঙ্গা কক্সবাজারের টেকনাফের কুতুপালং ট্রানজিট ক্যাম্পের বাসিন্দা। ভালো উপার্জনের আশায় সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল এসব রোহিঙ্গা। তাদের থানায় হস্তান্তর করা হয়।

বুড়িচং থানার ওসি মারুফ রহমান জানান, কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ৫টি পরিবার অবৈধভাবে ভারত যাওয়ার চেষ্টা করে। এর মধ্যে ৬ জন পুরুষ ৮ জন নারী এবং বাকি ১৬ জনই শিশু। তারা বুধবার সড়ক পথে কক্সবাজার থেকে কুমিল্লায় আসে। বৃহস্পতিবার তারা ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের নিজস্ব প্রক্রিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাঠাবেন বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে খাড়েরা বিওপি সুবেদার আব্দুল খালেক জানান, ৩০ জন রোহিঙ্গাকে ভারতে পাচারের জন্য সহযোগিতা করেন বাকশীমূল ইউনিয়নের কোদালিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল রশিদের ছেলে মো. ইসহাক, একই গ্রামের আব্দুল মতিনের ছেলে মীর হোসেন ও একই গ্রামের মৃত আব্দুল শহীদের ছেলে মো. ফরহাদ হোসেন।

বুড়িচং সীমান্তে ৩০ রোহিঙ্গা আটক

 বুড়িচং (কুমিল্লা) প্রতিনিধি 
০৭ অক্টোবর ২০২২, ১২:০৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়নের সীমান্ত এলাকা দিয়ে অবৈধভাবে ভারত প্রবেশ করার সময় ৩০ রোহিঙ্গাকে আটক করে খাড়েরা বিওপির বিজিবির সদস্যরা।

খারেরা বিজিবির সুবেদার আব্দুল খালেক জানান, বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) বিকালে বুড়িচং উপজেলার খাড়েরা সীমান্ত এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। ৩০ রোহিঙ্গা কক্সবাজারের টেকনাফের কুতুপালং ট্রানজিট ক্যাম্পের বাসিন্দা। ভালো উপার্জনের আশায় সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল এসব রোহিঙ্গা। তাদের থানায় হস্তান্তর করা হয়।

বুড়িচং থানার ওসি মারুফ রহমান জানান, কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ৫টি পরিবার অবৈধভাবে ভারত যাওয়ার চেষ্টা করে। এর মধ্যে ৬ জন পুরুষ ৮ জন নারী এবং বাকি ১৬ জনই শিশু। তারা বুধবার সড়ক পথে কক্সবাজার থেকে কুমিল্লায় আসে। বৃহস্পতিবার তারা ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের নিজস্ব প্রক্রিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাঠাবেন বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে খাড়েরা বিওপি সুবেদার আব্দুল খালেক জানান, ৩০ জন রোহিঙ্গাকে ভারতে পাচারের জন্য সহযোগিতা করেন বাকশীমূল ইউনিয়নের কোদালিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল রশিদের ছেলে মো. ইসহাক, একই গ্রামের আব্দুল মতিনের ছেলে মীর হোসেন ও একই গ্রামের মৃত আব্দুল শহীদের ছেলে মো. ফরহাদ হোসেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন