প্রতিমা বিসর্জন দিতে গিয়ে কিশোর নিখোঁজ
jugantor
প্রতিমা বিসর্জন দিতে গিয়ে কিশোর নিখোঁজ

  বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি  

০৭ অক্টোবর ২০২২, ০০:০৯:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রতিমা বিসর্জন দিতে গিয়ে দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ধরঞ্জয় রায় (১৭) নামে একজন নিখোঁজ হয়েছেন। স্থানীয়দের পাশাপাশি নিখোঁজ ধরঞ্জয় রায়কে উদ্ধারে কাজ শুরু করেছে ফায়ার সার্ভিসের ১টি ইউনিট।

বৃহস্পতিবার দুপুর ৩টায় পৌর শহরের ঢেপা নদীতে প্রতিমা বিসর্জনের সময় এ ঘটনা ঘটে।

ধরঞ্জয় রায় বীরগঞ্জ পৌর শহরের ৭নং ওয়ার্ডের গাটুর মোড় এলাকার মধু চন্দ্র রায়ের ছেলে।

বীরগঞ্জ পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর বনমালী রায় জানান, দেশের বেশির ভাগ এলাকায় বুধবার প্রতিমা বিসর্জন দেওয়া হলেও বীরগঞ্জ পৌর শহরে বৃহস্পতিবার প্রতিমা বিসর্জন দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে পূজা কমিটির নেতারা। তারই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা হতে বিভিন্ন পূজামণ্ডপের প্রতিমা বিসর্জন শুরু হয়। দুপুর ৩টায় ভক্তদের সঙ্গে নিয়ে পৌর শহরের ৭নং ওয়ার্ডের আদিবাসীপাড়া সার্বজনীন দুর্গামণ্ডপের প্রতিমা বিসর্জন করতে যায় স্থানীয় ঢেপা নদীতে।

প্রতিমা বিসর্জনের সময় মধু চন্দ্র রায়ের ছেলে ধরঞ্জয় রায় পানিতে তলিয়ে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে উপস্থিত লোকজন উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেন। পরে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। সংবাদ পেয়ে বীরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ওয়ার হাউজ ইন্সপেক্টর মো. মেরাজ আলীর নেতৃত্বে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট উদ্ধার অভিযান শুরু করে।

বীরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ওয়ার হাউজ ইন্সপেক্টর মো. মেরাজ আলী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সংবাদ পেয়ে ফায়ার সার্ভিস উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেছে। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত তাকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে; পাশাপাশি রংপুর হতে ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে রওনা হয়েছে বলে তিনি জানান।

প্রতিমা বিসর্জন দিতে গিয়ে কিশোর নিখোঁজ

 বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি 
০৭ অক্টোবর ২০২২, ১২:০৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রতিমা বিসর্জন দিতে গিয়ে দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ধরঞ্জয় রায় (১৭) নামে একজন নিখোঁজ হয়েছেন। স্থানীয়দের পাশাপাশি নিখোঁজ ধরঞ্জয় রায়কে উদ্ধারে কাজ শুরু করেছে ফায়ার সার্ভিসের ১টি ইউনিট।

বৃহস্পতিবার দুপুর ৩টায় পৌর শহরের ঢেপা নদীতে প্রতিমা বিসর্জনের সময় এ ঘটনা ঘটে।

ধরঞ্জয় রায় বীরগঞ্জ পৌর শহরের ৭নং ওয়ার্ডের গাটুর মোড় এলাকার মধু চন্দ্র রায়ের ছেলে।

বীরগঞ্জ পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর বনমালী রায় জানান, দেশের বেশির ভাগ এলাকায় বুধবার প্রতিমা বিসর্জন দেওয়া হলেও বীরগঞ্জ পৌর শহরে বৃহস্পতিবার প্রতিমা বিসর্জন দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে পূজা কমিটির নেতারা। তারই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা হতে বিভিন্ন পূজামণ্ডপের প্রতিমা বিসর্জন শুরু হয়। দুপুর ৩টায় ভক্তদের সঙ্গে নিয়ে পৌর শহরের ৭নং ওয়ার্ডের আদিবাসীপাড়া সার্বজনীন দুর্গামণ্ডপের প্রতিমা বিসর্জন করতে যায় স্থানীয় ঢেপা নদীতে।

প্রতিমা বিসর্জনের সময় মধু চন্দ্র রায়ের ছেলে ধরঞ্জয় রায় পানিতে তলিয়ে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে উপস্থিত লোকজন উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেন। পরে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। সংবাদ পেয়ে বীরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ওয়ার হাউজ ইন্সপেক্টর মো. মেরাজ আলীর নেতৃত্বে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট উদ্ধার অভিযান শুরু করে।

বীরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ওয়ার হাউজ ইন্সপেক্টর মো. মেরাজ আলী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সংবাদ পেয়ে ফায়ার সার্ভিস উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেছে। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত তাকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে; পাশাপাশি রংপুর হতে ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে রওনা হয়েছে বলে তিনি জানান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন