ভান্ডারিয়ায় স্কুলছাত্রকে রাজকারের ছেলে বলায় তিনজনকে কুপিয়ে জখম

  ভান্ডারিয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি ২২ জুন ২০১৮, ১৮:৩৬ | অনলাইন সংস্করণ

ভান্ডারিয়ায় স্কুলছাত্রকে রাজকারের ছেলে বলায় তিনজনকে কুপিয়ে জখম
ছবি: যুগান্তর

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার আসামির ছেলেকে রাজাকারের ছেলে বলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে ধারালো অস্ত্রের কোপে প্রতিপক্ষের তিনজন গুরুতর জখম হয়েছে। পুলিশ এ ঘটনায় দুই নারীকে আটক করেছে।

আহতরা হলেন, পশারিবুনিয়া গ্রামের ইমরান হোসেন হাওলাদার (৩৫) ও তার দুই নিকটাত্মীয় আবদুল গফফার (পুতুল) (২২) ও হাফিজ মীর (৩৫)।

আটকরা হলেন, পশারিবুনিয়া গ্রামের নাজমুন নাহার বেগম (৪২) ও হিরা বেগম (২৬)।

শুক্রবার সকালে উপজেলার পশারিবুনিয়া গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

থানা সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার পশারিবুনিয়া গ্রামের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার আসামি নূরুল আমিনের ছেলে স্কুলছাত্র রিফাতকে তার বাড়ির সামনে বসে একই গ্রামের ইমরান হোসেন নামে এক ব্যক্তি রাজাকারের ছেলে বলে গালি দেয়।

রিফাত বাড়িতে গিয়ে তার মা নজমুন নাহার বেগমকে জানায়। পরে মা নাজমুন নাহার বড় ছেলে মিরাজকে সঙ্গে নিয়ে মানবতাবিরোধী মামলার অপর এক আসামি ফজলুল হকের দুই ছেলে আবদুল আজিজ ও এনামুল কবির, মৃত রাজা আলীর ছেলে আলতাফ হোসেনসহ ৮-১০ জন ধারালো অস্ত্র দিয়ে তিনজনকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে তাদের অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে আবদুল গাফ্ফারে অবস্থার আরও অবনতি ঘটলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়।

এদিকে হামলায় গ্রেফতারকৃত নাজমুন নাহার দাবি করেন, তার ছেলেকে রাজাকার ছেলে বলে গালি দেয়। প্রতিপক্ষরা তার বাড়ি ঘরে হামলার চেষ্টা করলে তাদের ওপর পাল্টা হামলা চালানো হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এ হামলার ঘটনার পরপর স্থানীয় মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের অর্ধশত জনতা মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার আসামি নূরুল আমিন (পলাতক) ও রাজাকার ফজলুল হকের (বর্তমানে জেলহাজতে) বসতবাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর চালিয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করেছে।

ভান্ডারিয়া থানার এসআই মো. শহিদুল ইসলাম হামলার ঘটনা নিশ্চিত করেছেন।

 

 

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter