গৌরীপুর প্রেস ক্লাবের নির্বাচন নিয়ে মামলায় ৫ জনকে শোকজ!
jugantor
গৌরীপুর প্রেস ক্লাবের নির্বাচন নিয়ে মামলায় ৫ জনকে শোকজ!

  গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

২৪ নভেম্বর ২০২২, ১৯:৫৩:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের গৌরীপুর প্রেস ক্লাব নির্বাচনের ২০২২ সালের দেওয়া তফসিল ও ভোটার তালিকা অবৈধ ও বেআইনি ঘোষণাসহ বাতিল চেয়ে গৌরীপুর সহকারী জজ আদালতে মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) মামলা হয়েছে।

২০১৯ সালের নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী দৈনিক যুগান্তরের গৌরীপুর প্রতিনিধি মো. রইছ উদ্দিন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

আদালতের বিচারক শুনানি শেষে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা প্রধান নির্বাচন কমিশনার উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার নন্দন কুমার দেবনাথ, নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আবদুর রহিম, লামাপাড়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শাহজাহান, প্রেস ক্লাবের আহবায়ক এইচএম খায়রুল বাসার, সদস্য সচিব মশিউর রহমান কাউসারকে কারণ দর্শানোর নোটিশ (শোকজ) প্রদান করেন। ৭ দিনের মধ্যে এর জবাব দিতে বলা হয়েছে।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) নোটিশ প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার নন্দন কুমার দেবনাথ। তিনি জানান, আমাকে যে পত্রের আলোকে নির্বাচনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এবং নির্বাচনী কার্যক্রমের বিষয়ে আদালতে জবাব প্রদান করা হবে।

মামলার বাদী মো. রইছ উদ্দিন জানান, ২০১৯ সালে ঘোষিত গৌরীপুর প্রেস ক্লাবের তফসিলের ভিত্তিতে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হন। এছাড়াও সভাপতি পদে দৈনিক ইত্তেফাকের প্রতিনিধি মো. শফিকুল ইসলাম মিন্টু, দৈনিক ইনকিলাবের প্রতিনিধি বেগ ফারুক আহাম্মেদ ও সাধারণ সম্পাদক পদে দৈনিক আমাদের সময়ের প্রতিনিধি মশিউর রহমান কাউসার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। ওই বছরের ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের দিন ভোটগ্রহণ ছাড়াই নির্বাচন স্থগিত করা হয়। এরপর এ প্রেস ক্লাবের কার্যকরী পরিষদের আর কোনো নির্বাচন বা সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়নি। ওই তফসিলের ভোটগ্রহণ ও বাতিল ছাড়াই আবারো তফসিল ঘোষণা করায় আইনের আশ্রয় নিয়েছি।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গৌরীপুর প্রেস ক্লাবের ২০২২ সালের দেওয়া নির্বাচনী তফসিল অবৈধ ও বাতিল চেয়ে এবং ২০১৯ সালে ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী নির্বাচনের আবেদন জানান মামলার বাদী মো. রইছ উদ্দিন। মামলায় ২০১৯ সালের নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা প্রধান নির্বাচক কমিশনার সুপ্রিয় ধর বাচ্চু, নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট জসিম উদ্দিন আহাম্মেদ, আলী হায়দার রবিন, সুজিত কুমার দাসকেও বিবাদী করা হয়েছে। প্রেস ক্লাব সংক্রান্ত এ মামলায় গৌরীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে মোকাবিলা বিবাদী রাখা হয়েছে।

বাদীপক্ষের মামলাটি পরিচালনা করেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. সাইফুল ইসলাম।

গৌরীপুর প্রেস ক্লাবের নির্বাচন নিয়ে মামলায় ৫ জনকে শোকজ!

 গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
২৪ নভেম্বর ২০২২, ০৭:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের গৌরীপুর প্রেস ক্লাব নির্বাচনের ২০২২ সালের দেওয়া তফসিল ও ভোটার তালিকা অবৈধ ও বেআইনি ঘোষণাসহ বাতিল চেয়ে গৌরীপুর সহকারী জজ আদালতে মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) মামলা হয়েছে।

২০১৯ সালের নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী দৈনিক যুগান্তরের গৌরীপুর প্রতিনিধি মো. রইছ উদ্দিন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

আদালতের বিচারক শুনানি শেষে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা প্রধান নির্বাচন কমিশনার উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার নন্দন কুমার দেবনাথ, নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আবদুর রহিম, লামাপাড়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শাহজাহান, প্রেস ক্লাবের আহবায়ক এইচএম খায়রুল বাসার, সদস্য সচিব মশিউর রহমান কাউসারকে কারণ দর্শানোর নোটিশ (শোকজ) প্রদান করেন। ৭ দিনের মধ্যে এর জবাব দিতে বলা হয়েছে।
  
বুধবার (২৪ নভেম্বর) নোটিশ প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার নন্দন কুমার দেবনাথ। তিনি জানান, আমাকে যে পত্রের আলোকে নির্বাচনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এবং নির্বাচনী কার্যক্রমের বিষয়ে আদালতে জবাব প্রদান করা হবে।

মামলার বাদী মো. রইছ উদ্দিন জানান, ২০১৯ সালে ঘোষিত গৌরীপুর প্রেস ক্লাবের তফসিলের ভিত্তিতে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হন। এছাড়াও সভাপতি পদে দৈনিক ইত্তেফাকের প্রতিনিধি মো. শফিকুল ইসলাম মিন্টু, দৈনিক ইনকিলাবের প্রতিনিধি বেগ ফারুক আহাম্মেদ ও সাধারণ সম্পাদক পদে দৈনিক আমাদের সময়ের প্রতিনিধি মশিউর রহমান কাউসার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। ওই বছরের ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের দিন ভোটগ্রহণ ছাড়াই নির্বাচন স্থগিত করা হয়। এরপর এ প্রেস ক্লাবের কার্যকরী পরিষদের আর কোনো নির্বাচন বা সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়নি। ওই তফসিলের ভোটগ্রহণ ও বাতিল ছাড়াই আবারো তফসিল ঘোষণা করায় আইনের আশ্রয় নিয়েছি।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গৌরীপুর প্রেস ক্লাবের ২০২২ সালের দেওয়া নির্বাচনী তফসিল অবৈধ ও বাতিল চেয়ে এবং ২০১৯ সালে ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী নির্বাচনের আবেদন জানান মামলার বাদী মো. রইছ উদ্দিন। মামলায় ২০১৯ সালের নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা প্রধান নির্বাচক কমিশনার সুপ্রিয় ধর বাচ্চু, নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট জসিম উদ্দিন আহাম্মেদ, আলী হায়দার রবিন, সুজিত কুমার দাসকেও বিবাদী করা হয়েছে। প্রেস ক্লাব সংক্রান্ত এ মামলায় গৌরীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে মোকাবিলা বিবাদী রাখা হয়েছে।

বাদীপক্ষের মামলাটি পরিচালনা করেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. সাইফুল ইসলাম।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন