স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ, অভিযুক্ত গ্রেফতার
jugantor
স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ, অভিযুক্ত গ্রেফতার

  ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) প্রতিনিধি  

২৪ নভেম্বর ২০২২, ১৯:৫৫:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে প্রেমের সম্পর্কের জের ধরে বিয়ের কথা বলে স্কুলছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ করে। এরপর ওই ছাত্রী শারীরিক সম্পর্কে রাজি না হলে ধর্ষক ছাত্রীর নাম ব্যবহার করে আইডি খুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি পোস্ট করে।

বিষয়টি নিয়ে এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি হলে ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে বুধবার রাতে ধর্ষক কালাইয়া গ্রামের রাম ব্যাপারীর ছেলে হৃদয় ব্যাপারী ও তার সহযোগী ভগিনীপতি সুব্রত সরকারের বিরুদ্ধে ইন্দুরকানী থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। বুধবার রাতে হৃদয়কে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বাদীর অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ইন্দুরকানীর একটি বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রীকে প্রেমের প্রলোভনে গ্রামের হৃদয় ব্যাপারী (২০) গত ৫ মে তার ভগিনীপতির বাড়িতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে ভিডিওচিত্র ধারণ করে। ভিডিওর ভয় দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে ছাত্রী এ কাজে রাজি না হওয়ায় ১৪ ও ২০ নভেম্বর ছাত্রীর নামে আইডি খুলে হৃদয় ব্যাপারী ওই ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি পোস্ট করে।

ইন্দুরকানী থানার ওসি মো. এনামুল হক জানান, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। উভয়পক্ষকে থানায় ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ, অভিযুক্ত গ্রেফতার

 ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) প্রতিনিধি 
২৪ নভেম্বর ২০২২, ০৭:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে প্রেমের সম্পর্কের জের ধরে বিয়ের কথা বলে স্কুলছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ করে। এরপর ওই ছাত্রী শারীরিক সম্পর্কে রাজি না হলে ধর্ষক ছাত্রীর নাম ব্যবহার করে আইডি খুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি পোস্ট করে।

বিষয়টি নিয়ে এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি হলে ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে  বুধবার রাতে ধর্ষক কালাইয়া গ্রামের রাম ব্যাপারীর ছেলে হৃদয় ব্যাপারী ও তার সহযোগী ভগিনীপতি সুব্রত সরকারের বিরুদ্ধে ইন্দুরকানী থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। বুধবার রাতে হৃদয়কে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বাদীর অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ইন্দুরকানীর একটি বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রীকে প্রেমের প্রলোভনে গ্রামের হৃদয় ব্যাপারী (২০) গত ৫ মে তার ভগিনীপতির বাড়িতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে ভিডিওচিত্র ধারণ করে। ভিডিওর ভয় দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে ছাত্রী এ কাজে রাজি না হওয়ায় ১৪ ও ২০ নভেম্বর ছাত্রীর নামে আইডি খুলে হৃদয় ব্যাপারী ওই ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি পোস্ট করে।

ইন্দুরকানী থানার ওসি মো. এনামুল হক জানান, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। উভয়পক্ষকে থানায় ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন