নীলফামারীতে ইজতেমায় মুসল্লির মৃত্যু
jugantor
নীলফামারীতে ইজতেমায় মুসল্লির মৃত্যু

  নীলফামারী প্রতিনিধি  

২৪ নভেম্বর ২০২২, ২০:১০:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারী জেলা ইজতেমা প্রাঙ্গণে বুধবার মধ্যরাতে জসো উদ্দিন নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। তিনি ডোমার উপজেলার গোমনাতি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানপাড়া এলাকার কাচুয়া মামুদের ছেলে। বৃহস্পতিবার দুপুরে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয় তার।

জেলা তাবলিগ জামাতের আমীর ও নীলফামারী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ দিদারুল ইসলাম জানান, বুধবার বিকালে ইজতেমায় এসেছিলেন তিনি। রাতে ঘুমানো অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজের পর ইজতেমা প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে তার লাশ বাড়িতে পাঠানো হয়।

গোমনাতি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আহমেদ ফয়সাল শুভ জানান, ৬৫ বছর বয়সী জসো মামুদের দুপুরে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়।

এদিকে বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজের পর বয়ানের মধ্যদিয়ে শুরু হয়েছে তিন দিনের জেলা ইজতেমা। বয়ান পেশ করেন বাংলাদেশ তাবলিগ জামাতের সুরা সদস্য মাওলানা মো. মোশাররফ হোসেন।

অধ্যক্ষ দিদারুল ইসলাম জানান, আগামী শনিবার দুপুরে আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হবে এই ইজতেমা। তিন দিনে মাওলানা মোশাররফ হোসেন ছাড়াও কওমি মাদ্রাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান মাওলানা জিয়ামিন কাশেমী বয়ান করবেন।

প্রসঙ্গত, নীলফামারীতে ২০০৩ সাল থেকে ইজতেমা শুরু হয়। ২০১৮ সাল থেকে জেলা সদরের টেক্সটাইল মাঠে এ ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে জেলা শহরের বড়মাঠে অনুষ্ঠিত হতো।

নীলফামারীতে ইজতেমায় মুসল্লির মৃত্যু

 নীলফামারী প্রতিনিধি 
২৪ নভেম্বর ২০২২, ০৮:১০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারী জেলা ইজতেমা প্রাঙ্গণে বুধবার মধ্যরাতে জসো উদ্দিন নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। তিনি ডোমার উপজেলার গোমনাতি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানপাড়া এলাকার কাচুয়া মামুদের ছেলে। বৃহস্পতিবার দুপুরে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয় তার।

জেলা তাবলিগ জামাতের আমীর ও নীলফামারী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ দিদারুল ইসলাম জানান, বুধবার বিকালে ইজতেমায় এসেছিলেন তিনি। রাতে ঘুমানো অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজের পর ইজতেমা প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে তার লাশ বাড়িতে পাঠানো হয়।

গোমনাতি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আহমেদ ফয়সাল শুভ জানান, ৬৫ বছর বয়সী জসো মামুদের দুপুরে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়।

এদিকে বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজের পর বয়ানের মধ্যদিয়ে শুরু হয়েছে তিন দিনের জেলা ইজতেমা। বয়ান পেশ করেন বাংলাদেশ তাবলিগ জামাতের সুরা সদস্য মাওলানা মো. মোশাররফ হোসেন।

অধ্যক্ষ দিদারুল ইসলাম জানান, আগামী শনিবার দুপুরে আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হবে এই ইজতেমা। তিন দিনে মাওলানা মোশাররফ হোসেন ছাড়াও কওমি মাদ্রাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান মাওলানা জিয়ামিন কাশেমী বয়ান করবেন।

প্রসঙ্গত, নীলফামারীতে ২০০৩ সাল থেকে ইজতেমা শুরু হয়। ২০১৮ সাল থেকে জেলা সদরের টেক্সটাইল মাঠে এ ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে জেলা শহরের বড়মাঠে অনুষ্ঠিত হতো।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন