ফরিদপুরে ইয়াবাসহ আলোচিত মাসুদ গ্রেফতার
jugantor
ফরিদপুরে ইয়াবাসহ আলোচিত মাসুদ গ্রেফতার

  সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি  

২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৯:৪৫:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ফরিদপুরের সালথা উপজেলার আলোচিত গরুচোর মো. মাসুদ খানকে (৪৮) ইয়াবাসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। চোর মাসুদের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় নানা অপরাধের ১৯টি মামলা রয়েছে। এরমধ্যে একটি ডাকাতির প্রস্তুতি মামলায় ওয়ারেন্ট ছিল তার বিরুদ্ধে।

শনিবার ভোরে উপজেলার ভাওয়াল ইউনিয়নের কামদিয়া গ্রামের নিজ বাড়ি সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বিকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মাসুদ খান কামদিয়া গ্রামের মৃত সাদেক খানের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মাসুদ এক সময় নছিমন ভাড়ায় চালাতেন। এখন তিনি এলাকায় গরু চোরের সম্রাট হিসেবে পরিচিত। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ট্রাক ভরে চোরাই গরু এনে সালথাসহ আশপাশের উপজেলায় সরবরাহ করেন। এছাড়া চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি ও মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপরাধ সঙ্গে জড়িত তিনি।

জানা যায়, এসব করে মাসুদ বিপুল পরিমান অর্থের মালিক হয়েছেন। তার বেশ কয়েকটি বড় ট্রাক রয়েছে। ওই ট্রাকগুলোতে করে মূলত চোরাই গরু আনা-নেওয়া করতেন। তবে কয়েক মাস আগে ট্রাকগুলো জব্দ করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। সর্বশেষ গত ১৩ অক্টোবর কুষ্টিয়ায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আটক হন। সেই মামলায় দুই মাসের বেশি কারাভোগ করে কিছুদিন আগে জামিনে বের হন।

সালথা থানার ওসি মো. শেখ সাদিক বলেন, মাসুদ একজন মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে একটি ডাকাতি প্রস্তুতি মামলার ওয়ারেন্ট ছিল। শনিবার ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছে ৩২ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট পাওয়া যায়। মাসুদ চুরি, ডাকাতি, ডাকাতের প্রস্তুতিসহ বিভিন্ন অপরাধের মোট ১৯ মামলার আসামি। নতুন করে তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে আরও একটি রুজু করে তাকে আদালতে মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ফরিদপুরে ইয়াবাসহ আলোচিত মাসুদ গ্রেফতার

 সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি 
২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৯:৪৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ফরিদপুরের সালথা উপজেলার আলোচিত গরুচোর মো. মাসুদ খানকে (৪৮) ইয়াবাসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। চোর মাসুদের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় নানা অপরাধের ১৯টি মামলা রয়েছে। এরমধ্যে একটি ডাকাতির প্রস্তুতি মামলায় ওয়ারেন্ট ছিল তার বিরুদ্ধে।

শনিবার ভোরে উপজেলার ভাওয়াল ইউনিয়নের কামদিয়া গ্রামের নিজ বাড়ি সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বিকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মাসুদ খান কামদিয়া গ্রামের মৃত সাদেক খানের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মাসুদ এক সময় নছিমন ভাড়ায় চালাতেন। এখন তিনি এলাকায় গরু চোরের সম্রাট হিসেবে পরিচিত। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ট্রাক ভরে চোরাই গরু এনে সালথাসহ আশপাশের উপজেলায় সরবরাহ করেন। এছাড়া চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি ও মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপরাধ সঙ্গে জড়িত তিনি।

জানা যায়, এসব করে মাসুদ বিপুল পরিমান অর্থের মালিক হয়েছেন। তার বেশ কয়েকটি বড় ট্রাক রয়েছে। ওই ট্রাকগুলোতে করে মূলত চোরাই গরু আনা-নেওয়া করতেন। তবে কয়েক মাস আগে ট্রাকগুলো জব্দ করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। সর্বশেষ গত ১৩ অক্টোবর কুষ্টিয়ায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আটক হন। সেই মামলায় দুই মাসের বেশি কারাভোগ করে কিছুদিন আগে জামিনে বের হন।

সালথা থানার ওসি মো. শেখ সাদিক বলেন, মাসুদ একজন মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে একটি ডাকাতি প্রস্তুতি মামলার ওয়ারেন্ট ছিল। শনিবার ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছে ৩২ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট পাওয়া যায়। মাসুদ চুরি, ডাকাতি, ডাকাতের প্রস্তুতিসহ বিভিন্ন অপরাধের মোট ১৯ মামলার আসামি। নতুন করে তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে আরও একটি রুজু করে তাকে আদালতে মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন