বাড়ি লিখে না দেওয়ায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা করল স্ত্রী
jugantor
বাড়ি লিখে না দেওয়ায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা করল স্ত্রী

  বরিশাল ব্যুরো  

২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৩:৫০:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশালে পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীকে বঁটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে স্ত্রীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ঘাতক স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

হত্যার শিকার শেখ ইকবাল কবির (৬০) নগরীর পলাশপুরের বউবাজার এলাকার মৃত শেখ দেলোয়ার হোসেনের ছেলে।

তিনি একসময় লঞ্চের সুকানী ছিলেন। অর্ধ পক্ষাঘাতগ্রস্ত হওয়ায় বউবাজার এলাকার অটোরিকশা চার্জ ও ভাড়া দেওয়ার ব্যবসা করতেন তিনি। ইকবাল দুই কন্যাসন্তানের জনক।

সোমবার গভীর রাতে নগরীর পলাশপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহতাবস্থায় ইকবালকে অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় নেওয়ার পথে মাদারীপুর এলাকায় পৌঁছলে মৃত্যু হয় তার।

ঘটনার পর পুলিশ স্ত্রী জাফরিন আরা পপিকে (৪০) গ্রেফতার করেছে। উদ্ধার করা হয়েছে হত্যায় ব্যবহৃত বঁটি।

কাউনিয়া থানার ওসি আব্দুর রহমান মুকুল জানান, পারিবারিক বিষয় নিয়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া হয়। রাত ১০টার দিকে বাসার ছাদে বসা ছিলেন স্বামী ইকবাল।

এ সময় পেছন থেকে ইকবালকে বঁটি দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপায় স্ত্রী পপি। ইকবালের চিৎকার শুনে স্বজনরা উদ্ধার করে প্রথমে শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে ঢাকা পাঠিয়ে দেন।

কাউনিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হরিদাস নাগ বলেন, ঢাকা নেওয়ার পথে মারা যান শেখ ইকবাল। পরে বরিশাল মেডিকেলের মর্গে এনে রাখা হয়েছে তার লাশ।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্ত্রী পপি স্বীকার করেছে জমি ও ভবন তার নামে লিখে না দেওয়া নিয়ে ঝগড়া হয়। এর জেরে ক্ষিপ্ত হয়ে কুপিয়েছেন তিনি। এ ঘটনায় নিহত ইকবালের ভাতিজা মো. সোহাগ বাদী হয়ে মামলা করবে।

বাড়ি লিখে না দেওয়ায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা করল স্ত্রী

 বরিশাল ব্যুরো 
২৯ নভেম্বর ২০২২, ০১:৫০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশালে পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীকে বঁটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে স্ত্রীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ঘাতক স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

হত্যার শিকার শেখ ইকবাল কবির (৬০) নগরীর পলাশপুরের বউবাজার এলাকার মৃত শেখ দেলোয়ার হোসেনের ছেলে।

তিনি একসময় লঞ্চের সুকানী ছিলেন। অর্ধ পক্ষাঘাতগ্রস্ত হওয়ায় বউবাজার এলাকার অটোরিকশা চার্জ ও ভাড়া দেওয়ার ব্যবসা করতেন তিনি। ইকবাল দুই কন্যাসন্তানের জনক।

সোমবার গভীর রাতে নগরীর পলাশপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহতাবস্থায় ইকবালকে অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় নেওয়ার পথে মাদারীপুর এলাকায় পৌঁছলে মৃত্যু হয় তার।

ঘটনার পর পুলিশ স্ত্রী জাফরিন আরা পপিকে (৪০) গ্রেফতার করেছে। উদ্ধার করা হয়েছে হত্যায় ব্যবহৃত বঁটি।

কাউনিয়া থানার ওসি আব্দুর রহমান মুকুল জানান, পারিবারিক বিষয় নিয়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া হয়। রাত ১০টার দিকে বাসার ছাদে বসা ছিলেন স্বামী ইকবাল।

এ সময় পেছন থেকে ইকবালকে বঁটি দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপায় স্ত্রী পপি। ইকবালের চিৎকার শুনে স্বজনরা উদ্ধার করে প্রথমে শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে ঢাকা পাঠিয়ে দেন।

কাউনিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হরিদাস নাগ বলেন, ঢাকা নেওয়ার পথে মারা যান শেখ ইকবাল। পরে বরিশাল মেডিকেলের মর্গে এনে রাখা হয়েছে তার লাশ।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্ত্রী পপি স্বীকার করেছে জমি ও ভবন তার নামে লিখে না দেওয়া নিয়ে ঝগড়া হয়। এর জেরে ক্ষিপ্ত হয়ে কুপিয়েছেন তিনি। এ ঘটনায় নিহত ইকবালের ভাতিজা মো. সোহাগ বাদী হয়ে মামলা করবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন