যুবদলের যুগ্ম আহবায়কসহ ২ জন গ্রেফতার
jugantor
যুবদলের যুগ্ম আহবায়কসহ ২ জন গ্রেফতার

  যুগান্তর প্রতিবেদন, মানিকগঞ্জ  

২৯ নভেম্বর ২০২২, ২০:৪১:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ককটেল বিস্ফোরণ করে নাশকতা সৃষ্টির অভিযোগে মানিকগঞ্জ জেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মাসুদ পারভেজসহ যুবদল কর্মী জামাল উদ্দিন আকাশকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে বেউথা এলাকা থেকে তাদের দুজনকে আটক করা হয়।

মাসুদ পারভেজ জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতিও ছিলেন। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রউফ সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সদর থানা সূত্রে জানা গেছে, সোমবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডের অদূরের ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের মানড়া এলাকায় বিকট শব্দে দুটি ককটেল বিস্ফোরিত হয় এবং একই জায়গা থেকে অবিস্ফোরিত তিন থেকে চারটি তাজা শক্তিশালী ককটেল উদ্ধার করা হয়। পরে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে শহরের বেউথা এলাকা থেকে মাসুদ পারভেজ এবং তার অনুসারী জামাল উদ্দিনকে আটক করা হয়।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রউফ সরকার জানান, ঘটনাস্থল থেকে বিস্ফোরিত কয়েকটি ককটেলের খোসাসহ চারটি তাজা শক্তিশালী ককটেল উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি বলেন, প্রাথমিক তদন্তে ককটেল বিস্ফোরক ঘটনায় যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মাসুদ পারভেজ এবং জামাল উদ্দিনসহ বিএনপির সহযোগী সংগঠনের প্রায় ১৫ জন জড়িত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে। সবার বিরুদ্ধে সদর থানায় বিস্ফোরক আইনে মামলা হয়েছে। উদ্ধার করা ককটেল নিষ্ক্রিয় করতে ঢাকার স্পেশাল বোমা ডিসপোজাল টিমকে খবর দেওয়া হয়েছে।

এদিকে যুবদল নেতা গ্রেফতার প্রসঙ্গে জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুরতাজ আলম বাহার বলেন, ঢাকায় আমাদের ১০ ডিসেম্বরের গণসমাবেশ বিঘ্নিত করতে সরকার পরিকল্পিতভাবে মিথ্যা মামলা সাজিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করে আতঙ্ক সৃষ্টি করছে। আমরা আমাদের নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের নিন্দা জানাই।

যুবদলের যুগ্ম আহবায়কসহ ২ জন গ্রেফতার

 যুগান্তর প্রতিবেদন, মানিকগঞ্জ 
২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৮:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ককটেল বিস্ফোরণ করে নাশকতা সৃষ্টির অভিযোগে মানিকগঞ্জ জেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মাসুদ পারভেজসহ যুবদল কর্মী জামাল উদ্দিন আকাশকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে বেউথা এলাকা থেকে তাদের দুজনকে আটক করা হয়।

মাসুদ পারভেজ জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতিও ছিলেন। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রউফ সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সদর থানা সূত্রে জানা গেছে, সোমবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডের অদূরের ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের মানড়া এলাকায় বিকট শব্দে দুটি ককটেল বিস্ফোরিত হয় এবং একই জায়গা থেকে অবিস্ফোরিত তিন থেকে চারটি তাজা শক্তিশালী ককটেল উদ্ধার করা হয়। পরে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে শহরের বেউথা এলাকা থেকে মাসুদ পারভেজ এবং তার অনুসারী জামাল উদ্দিনকে আটক করা হয়।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রউফ সরকার জানান, ঘটনাস্থল থেকে বিস্ফোরিত কয়েকটি ককটেলের খোসাসহ চারটি তাজা শক্তিশালী ককটেল উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি বলেন, প্রাথমিক তদন্তে ককটেল বিস্ফোরক ঘটনায় যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মাসুদ পারভেজ এবং জামাল উদ্দিনসহ বিএনপির সহযোগী সংগঠনের প্রায় ১৫ জন জড়িত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে। সবার বিরুদ্ধে সদর থানায় বিস্ফোরক আইনে মামলা হয়েছে। উদ্ধার করা ককটেল নিষ্ক্রিয় করতে ঢাকার স্পেশাল বোমা ডিসপোজাল টিমকে খবর দেওয়া হয়েছে।

এদিকে যুবদল নেতা গ্রেফতার প্রসঙ্গে জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুরতাজ আলম বাহার বলেন, ঢাকায় আমাদের ১০ ডিসেম্বরের গণসমাবেশ বিঘ্নিত করতে সরকার পরিকল্পিতভাবে মিথ্যা মামলা সাজিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করে আতঙ্ক সৃষ্টি করছে। আমরা আমাদের নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের নিন্দা জানাই।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন