গলায় ফাঁস দিলেন পপি
jugantor
গলায় ফাঁস দিলেন পপি

  দশমিনা ও দক্ষিণ (পটু্য়াখালী) প্রতিনিধি  

০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৩:৩৮:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

পটু্য়াখালীর দশমিনায় পপি বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূ গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

বুধবার রাতে উপজেলার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন চরবোরহান ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের চরশাহজালালে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত পপি ওই এলাকার কাইয়ুম হোসেন মৃধার স্ত্রী।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সহিদুল যুগান্তরকে বলেন, উপজেলার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন চরবোরহান ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের চরশাহজালালের কাইয়ুম হোসেন মৃধার স্ত্রী পপি বেগমের সঙ্গে তার দেবর ইমাম হোসেনের প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এ নিয়ে তাদের পরিবারে বেশ অশান্তি ছিল। ঘটনার দিন পপি শ্বশুরবাড়ি এলাকার একটি গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এ বিষয় জানার জন্য পরিবারের নম্বরে একাধিকবার ফোন করা হলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

দশমিনা হাসপাতালের চিকিৎসক মো. আলভি বলেন, গলায় ফাঁস দেওয়া গৃহবধূকে মৃত অবস্থায় দশমিনা হাসপাতালে আনা হয়েছিল।

দশমিনা থানার ওসি মো. মেহেদি হাসান যুগান্তরকে বলেন, লাশ সুরতহালের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গলায় ফাঁস দিলেন পপি

 দশমিনা ও দক্ষিণ (পটু্য়াখালী) প্রতিনিধি 
০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পটু্য়াখালীর দশমিনায় পপি বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূ গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। 

বুধবার রাতে উপজেলার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন চরবোরহান ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের চরশাহজালালে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত পপি ওই এলাকার কাইয়ুম হোসেন মৃধার স্ত্রী।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সহিদুল যুগান্তরকে বলেন, উপজেলার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন চরবোরহান ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের চরশাহজালালের কাইয়ুম হোসেন মৃধার স্ত্রী পপি বেগমের সঙ্গে তার দেবর ইমাম হোসেনের প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এ নিয়ে তাদের পরিবারে বেশ অশান্তি ছিল। ঘটনার দিন পপি শ্বশুরবাড়ি এলাকার একটি গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। 

এ বিষয় জানার জন্য পরিবারের নম্বরে একাধিকবার ফোন করা হলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

দশমিনা হাসপাতালের চিকিৎসক মো. আলভি বলেন, গলায় ফাঁস দেওয়া গৃহবধূকে মৃত অবস্থায় দশমিনা হাসপাতালে আনা হয়েছিল।

দশমিনা থানার ওসি মো. মেহেদি হাসান যুগান্তরকে বলেন,  লাশ সুরতহালের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন